Vizag Steel Plant Apprenticeship 2021: মিলবে ভাতা, সঙ্গে NCVT সার্টিফিকেট, জেনে নিন কী করতে হবে!

Photo -Representative

জানা গিয়েছে যে সব মিলিয়ে ৩১৯ জন শিক্ষানবিশকে এই নিয়োগের অন্তর্গত পরিকল্পনায় সামিল করা হবে।

  • Share this:

#ভাইজাগ: দেশীয় শিল্পক্ষেত্রগুলোর মধ্যে সুপরিচিত একটি প্রতিষ্ঠান ভাইজাগ স্টিল প্লান্ট (Vizag Steel Plant)। এই প্রতিষ্ঠানের চাকরি যেমন আকর্ষণীয়, তেমনই চাকরির বাজারে আলাদা করে বিশেষত্বের দাবি রাখে প্রতিষ্ঠানের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্স। Vizag Steel Plant Apprenticeship 2021 চলতি বছরে মূল্যবান একটি কোর্স পরিচালনার বিজ্ঞপ্তি এবার প্রকাশ করল ভাইজাগ স্টিল প্লান্ট। জানা গিয়েছে যে সব মিলিয়ে ৩১৯ জন শিক্ষানবিশকে এই নিয়োগের অন্তর্গত পরিকল্পনায় সামিল করা হবে। সঙ্গে দেওয়া হবে মাস পিছু ভাতা, কোর্স শেষ হলে মিলবে ন্যাশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন (National Skill Development Corporation), সংক্ষেপে NSVT সার্টিফিকেট। বিশদ তথ্যের জন্য প্রার্থীদের ন্যাশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের ওয়েবসাইট https://www.vizagsteel.com/code/tenders/Advt%20Apprentices.pdf ভিজিট করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

ভাইজাগ স্টিল প্ল্যান্টের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্সের শূন্যপদের বিবরণ: জানা গিয়েছে যে কমপিউটার অপারেটর অ্যান্ড প্রোগ্রামিং অ্যাসিস্ট্যান্ট (Computer Operator And Programming Assistant), মেকানিক ডিজেল (Mechanic Diesel), মেকানিক রেফ্রিজারেশন অ্যান্ড এয়ার কন্ডিশনিং (Mechanic Refrigeration And Air Conditioning), কারপেন্টার (Carpenter), ইলেকট্রিসিয়ান (Electrician), ওয়েলডার (Welder), মেশিনিস্ট (Machinist), টার্নার (Turner), ফিটার (Fitter) এবং আরও বেশ কিছু পদে ৩১৯ জন শিক্ষানবিশকে কোর্স করানো হবে।

ভাইজাগ স্টিল প্ল্যান্টের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্সের মাসিক ভাতা: ওয়েলডার, কার্পেন্টার, মেকানিক ডিজেল এবং কমপিউটার অপারেটরদের মাস পিছু দেওয়া ৭৭০০ টাকা। অন্য পদগুলির ক্ষেত্রে প্রার্থীরা প্রতি মাসে ৮০৫০ টাকা ভাতা পাবেন।

ভাইজাগ স্টিল প্ল্যান্টের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্সে আবেদনের গুরুত্বপূর্ণ তারিখ: অনলাইনে আবেদনপত্র জমা দেওয়ার কাজ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে, চলবে ১৭ জুলাই, ২০২১ তারিখ পর্যন্ত। তবে অনলাইনে আবেদনপত্র জমা করার আগে ন্যাশনাল স্কিল ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশনের ওয়েবসাইটে রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে।

ভাইজাগ স্টিল প্ল্যান্টের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্সে অ্যাপ্রেনটিস বাছাইয়ের প্রক্রিয়া: প্রার্থীদের মাল্টিপল চয়েস ভিত্তিক একটি কমপিউটার বেসড টেস্ট দিতে হবে। সেই পরীক্ষায় অসংরক্ষিত এবং EWS প্রার্থীদের ৫০ শতাংশ নম্বর রাখতে হবে। তবে SC, ST, OBC এবং PWD প্রার্থীদের ৪০ শতাংশ নম্বর সুনিশ্চিত করলেই চলবে বলে জানা গিয়েছে। এর পর মেধা তালিকা এবং পরীক্ষায় পাওয়া নম্বরের ভিত্তিতে অ্যাপ্রেনটিস বেছে নেওয়া হবে। প্রসঙ্গত, এই কমপিউটার বেসড টেস্ট নেওয়া হবে বিশাখাপত্তনমে।

মনে রাখা দরকার- যাঁরা এর আগে এই প্রতিষ্ঠানের অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্স করেছেন, অন্য কোনও প্রতিষ্ঠান থেকে অ্যাপ্রেনটিসশিপ কোর্স করছেন বা কাজের অভিজ্ঞতা রয়েছে, তাঁদের করা আবেদন বৈধ বলে গ্রাহ্য করা হবে না!

Keywords:

Published by:Debalina Datta
First published: