• Home
  • »
  • News
  • »
  • education-career
  • »
  • West Bengal School Guidelines: ঘরে বসেই পরীক্ষা প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের, আর কী কী নির্দেশ ? জানুন বিস্তারিত

West Bengal School Guidelines: ঘরে বসেই পরীক্ষা প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের, আর কী কী নির্দেশ ? জানুন বিস্তারিত

File Photo

File Photo

West Bengal Education Board Class 1-9 Guidelines: প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত কী ভাবে ছাত্র-ছাত্রীদের মূল্যায়ন হবে, তা নিয়ে বিস্তারিত গাইডলাইন দিল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর।

  • Share this:

কলকাতা: প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত কী ভাবে হবে ছাত্র-ছাত্রীদের মূল্যায়ন তা নিয়ে বিস্তারিত নির্দেশিকা দিল রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। নভেম্বর মাসে যে অ্যাক্টিভিটি টাস্ক দেওয়া হবে তাতেই হবে চূড়ান্ত মূল্যায়ন। মঙ্গলবারই রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর নির্দেশিকা জারি করে তা জানিয়ে দিয়েছে। সিলেবাস কমিটির তরফে যে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল সেই প্রস্তাবে সিলমোহর দিয়েছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর। গোটা প্রক্রিয়াটি ডিসেম্বর মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহের মধ্যেই শেষ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যেই বাংলা শিক্ষা পোর্টালে সেই প্রশ্নপত্র আপলোড করে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন- বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, ১ জানুয়ারি রাজ্যের ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিশেষ দিন!

নির্দেশিকায় বলা হয়েছে প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর পরীক্ষা হবে বিষয়ভিত্তিক ৩০ নম্বরের। তৃতীয় থেকে পঞ্চম শ্রেণীর পরীক্ষা হবে প্রত্যেকটি বিষয়ের ৪০ নম্বরের। ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণীর প্রত্যেকটি বিষয়ের পরীক্ষা হবে ৫০ নম্বরের। ঘরে বসেই ছাত্রছাত্রীরা সেই প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দেবেন। সেই উত্তর মূল্যায়ন করবেন স্কুলের শিক্ষক শিক্ষিকারাই। তাতে যে নম্বর হবে সেই নম্বরটি চূড়ান্ত নম্বর হিসেবে ধার্য করা হবে এমনটাই বলা হয়েছে রাজ্যের পক্ষ থেকে জারি করা নির্দেশিকায়।

করোনা পরিস্থিতিতে পরপর রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের তরফে এই ভাবেই অ্যাক্টিভিটি টাস্কের মাধ্যমে প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত মূল্যায়নের প্রক্রিয়া চালানো হচ্ছে। যদিও এক্ষেত্রে নবম ও দশম শ্রেণীর মূল্যায়নের কথা বলা হয়েছে অ্যাক্টিভিটি টাস্কের মাধ্যমে। সে ক্ষেত্রে দশম শ্রেণীর ছাত্র- ছাত্রীরা যেহেতু আগামী বছর মাধ্যমিক দেবেন সে ক্ষেত্রে স্কুলগুলির টেস্ট নেবে নাকি অ্যাক্টিভিটি টাস্কের মাধ্যমে  পরীক্ষা নেবে, তা স্কুলগুলির ওপরই নির্ভর করবে বলেই দাবি করছেন সিলেবাস কমিটির আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন- বিধানসভায় শোরগোল ফেললেন দিলীপ ঘোষ! সব নজর ঘুরে গেল ফিরহাদ-মলয়ের ঘরের দিকে

ইতিমধ্যেই কোন সময় নভেম্বর মাসে মিড-ডে-মিল দেওয়া হবে তা নিয়ে বিস্তারিত নির্দেশিকা দিয়েছে সর্বশিক্ষা মিশন। গত বছর করোনা পরিস্থিতির কারণে অ্যাক্টিভিটি টাস্কের মাধ্যমে মূল্যায়ন হলেও সেই ভাবে একটি নির্দিষ্ট মাসের অ্যাক্টিভিটি টাস্কের মাধ্যমে মূল্যায়নের কথা বলা হয়নি। এইবারই প্রথম নভেম্বর মাসের অ্যাক্টিভিটি টাস্ক-কেই চূড়ান্ত মূল্যায়ন হিসেবে ধার্য করা হয়েছে। প্রসঙ্গত ইতিমধ্যেই নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস শুরু করেছে রাজ্য সরকার। শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুও জানিয়েছেন ধাপে ধাপে অন্যান্য শ্রেণির ক্লাস চালু করা হতে পারে।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: