• Home
  • »
  • News
  • »
  • crime
  • »
  • FAKE VACCINATION DEBANJAN DEB BROTHER KANCHAN DEB ARRESTED AS HE KNEW EVERYTHING FROM STARTING PBD

Kasba Fake Vaccination: ভুয়ো ভ্যাকসিন কাণ্ডে এবার গ্রেফতার দেবাঞ্জনের খুড়তুতো ভাই! পরিবারের সকলেই কি ঠগ?

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, দেবাঞ্জন (Debanjan Deb) যে আইএএস (IAS) নয় সে কথা কাঞ্চন প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জানায় যে, প্রথম থেকে সব জানতো সে |

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, দেবাঞ্জন (Debanjan Deb) যে আইএএস (IAS) নয় সে কথা কাঞ্চন প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে জানায় যে, প্রথম থেকে সব জানতো সে |

  • Share this:

#কলকাতা: ভ্যাকসিনকাণ্ডে (Fake vaccination) ধৃত  আরও দুই |  এবার গ্রেফতার দেবাঞ্জনের (Debanjan Deb) কাকার ছেলে কাঞ্চন দেব (Kanchan Deb)|  নাকতলার বাসিন্দা কাঞ্চন | কার্যত এই ঘটনায়  কাঞ্চন সেকেন্ড ইন কমান্ড| গোয়েন্দা  সূত্রে খবর,  দেবাঞ্জন যে আইএএস নয় সে কথা কাঞ্চন প্রথমে অস্বীকার  করলেও, বার বার ম্যারাথন  জিজ্ঞাসাবাদের মুখে গোয়েন্দাদের জেরায় সে ভেঙে পড়ে৷ স্বীকার করে যে, প্রথম থেকে সব জানতো সে |  কসবায় দেবাঞ্জনের অফিস  রুমের  পাশের  রুমে কন্ট্রোলিং  অফিসার  হিসাবে সে সব কিছু দেখতো |  প্রতারণা  প্রতিটি ক্ষেত্রে পরতে  পরতে সেও যুক্ত ছিল |  দেবাঞ্জন যে পরীক্ষায় পাস করেনি, IAS নয়,  সে  জানতো  বলে দাবি গোয়েন্দাদের |

অপর  ধৃত শরৎ পাত্র (Debanjan Deb Assistant Sarat Patra)  | কৃষ্ণ দাস রোডের বাসিন্দা শরৎ |  দেবাঞ্জনের ভুয়ো ভ্যাকসিন ক্যাম্পে শরৎ ইনজেকশন  দিত |   তালতলাতে  এক চিকিৎসকের কাছে  সে কর্মী হিসাবে কাজ করত কয়েক বছর আগে |  তখনই ক্লাস এইট পাস শরৎ তালতলার ওই চিকিৎসকের থেকে ড্রেসিং  করা, ইনজেকশন  দেওয়ার কাজ শিখেছিল  |  সেই হাতুড়ি বিদ্যা  দিয়েই সে কাজ চালিয়েছিল৷ ভ্যাকসিনের ইনজেকশন  দিত  দেবাঞ্জনের ক্যাম্প গুলোতে | এমনকি সাংসদ  মিমি চক্রবর্তীকেও ইনজেকশন  সেই দিয়েছিল বলে জানা গিয়েছে  | ভ্যাকসিনকাণ্ডে এই নিয়ে মোট ছয় জনকে গ্রেফতার  করল কলকাতা  পুলিশের সিটের  আধিকারিকরা |

আরও পড়ুন সোনায় মোড়া বউকে নিয়ে গর্বিত স্বামী! পণে পাওয়া টাকা-গয়না-গাড়ি নিয়ে যা হল...

দেবাঞ্জনকে জেরা করে জানা গিয়েছে ,  ভেজাল পেট্রোল বিক্রি হয় এমন   কিছু জায়গাতে  এর আগে দেবাঞ্জন  নিজেকে অফিসার  হিসাবে  পরিচয় দিয়ে  অভিযান চালিয়েছিল | এছাড়া ভুয়ো একটা ইলেকশনের ব্যবস্থা করে যাতে কর্মীদের বিশ্বাস যোগ্যতা বাড়ানো  যায় | তার কর্মীরা ভোট দেয় ওই নির্বাচনে |  সে নিজেকে জয়ী হিসাবে ঘোষণা করেছিল | সে জানায় যে ওয়েস্ট বেঙ্গাক এমপ্লয়শ ফেডারেশন  ইলেকশনে জয়ী দেবাঞ্জন  নিজেই  | এভাবেই কর্মীদের মধ্যে বিশ্বাসযোগ্যতা  অর্জনের  জন্য বিভিন্ন অসৎ  পথ অবলম্বন  করেছিল দেবাঞ্জন দেব |

Published by:Pooja Basu
First published: