১২ বছরের নাবালিকাকে ঘরে আটকে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগ

১২ বছরের নাবালিকাকে ঘরে আটকে ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগ

অভিযুক্ত ১১ জনের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷

অভিযুক্ত ১১ জনের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷

  • Share this:

    #পটনা: ১২ বছরের নাবালিকার উপর নির্মম শারীরিক অত্যাচার, ধর্ষণ ও খুনের অভিযোগে ৪ জনরে বিরুদ্ধে মামলা করেছে বিহারের পূর্ব চম্পারন পুলিশ ৷ এর পাশাপাশি প্রমাণ লোপাটের জন্য ৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷ ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ২জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে ৷

    শনিবার স্থানীয় পুলিশ স্টেশনের ইনচার্জকে সাসপেন্ড করা হয়েছে ইচ্ছাকৃত ভাবে এফআইআর দায়ের করতে দেরি করায় ৷ এমনকি ঘটনা সম্বন্ধে জেনেও মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়নি ৷ অভিযুক্ত ১১ জনের বিরুদ্ধে পকসো আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে ৷

    ২১ জানুয়ারি পূর্ব চম্পারন মার্কেটের একটি ভাড়া ঘরে এই ঘটনাটি ঘটেছে ৷ জানা গিয়েছে, নির্যাতিতার বাবা নেপালের বাসিন্দা ৷ তিনি এখানে সকালে চা বিক্রি করেন এবং রাতে পাহারার কাজ করেন ৷ অভিযুক্তরা নির্যাতিতার দেহ জ্বালিয়ে দেয় এবং তার বাবাকে হুমকিও দেয় যাতে পুলিশের কাছে তিনি এই বিষয়ে কোনও অভিযোগ না করে ৷ নির্যাতিতার বাবা মতিহারি সাব ডিভিশনাল পুলিশ আধিকারিকের কাছে এফআইআর দায়ের করতে যান ৷ অভিযোগ দায়ের করা হয় ৩ ফেব্রুয়ারি ৷ ২ ফেব্রুয়ারি পুলিশ ইন চার্জ ও রমেশ শাহ নামে এক ব্যক্তির মধ্যে কথোপকোতন ভাইরাল হয়ে যায় ৷ তাতে শোনা যায় তারা কোনও একটি মেয়ের দেহ নিয়ে আলোচনা করছেন ৷

    পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, পুলিশ ইনচার্জকে সাসপেন্ড করা হয়েছে ৷ এবং অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করা হয়েছে ৷ নির্যাতিতার বাবা জানিয়েছেন, ঘটনার দিন তাঁর স্ত্রী নেপালে গিয়েছিলেন, ছেলে কাজে বেরিয়েছিল ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: