corona virus btn
corona virus btn
Loading

উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে আমাদের প্রস্তুতি আছে, তবে ছাত্র-ছাত্রীদের স্বাস্থ্য দেখেই চূড়ান্ত ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে আমাদের প্রস্তুতি আছে, তবে ছাত্র-ছাত্রীদের স্বাস্থ্য দেখেই চূড়ান্ত ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

তবে সম্প্রতি অভিভাবকদের তরফে আইসিএসই,সিবিএসই পরীক্ষা বাতিলের দাবি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়াতে যথেষ্টই চিন্তিত রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরও। এই পরিস্থিতিতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হওয়া উচিত নাকি তা নিয়েও বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন গুলির ইতিমধ্যেই মতামত নিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

  • Share this:

#কলকাতা: উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো ভবিষ্যৎ কী? অন্তত করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পর্যায় রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর কেন্দ্রীয় বোর্ডগুলোর পদক্ষেপের ওপর নজর রাখছে। এমনটাই খবর রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে। মঙ্গলবার এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন " উচ্চমাধ্যমিক নিয়ে আমাদের প্রস্তুতি আছে কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীদের স্বাস্থ্য দেখেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। সুপ্রিম কোর্ট,অন্যান্য বোর্ড বা অন্যান্য রাজ্যগুলির ওপরেও আমরা নজর রাখছি।"

ইতিমধ্যেই আইসিএসই বোর্ড দশম ও  দ্বাদশ এর বাকি থাকা পরীক্ষাগুলোর জন্য অভিভাবকদের কাছে দুটি অপশন ইতিমধ্যেই দিয়েছে। সিবিএসই বোর্ডের পরীক্ষা বাতিলের দাবি জানিয়ে ইতিমধ্যেই আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন অভিভাবকরা। এই পরিস্থিতিতে উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলি কিভাবে নেওয়া সম্ভব তার জন্যই কেন্দ্রের এই বোর্ড গুলির পদক্ষেপের ওপর এই আপাতত নজর রাখছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা  দফতর। এ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান আইসিএসই বোর্ডের তরফে দুই দফা প্রস্তাব অভিভাবকদের দেওয়া হলেও সিবিএসই বোর্ড এখনো পর্যন্ত তাদের সিদ্ধান্ত জানায়নি আদালতকে। যদিও পরীক্ষা সম্পর্কে ইতিমধ্যেই সিবিএসই বোর্ডের থেকে মতামত জানতে চেয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। মঙ্গলবার মতামত জানানোর কথা থাকলেও সিবিএসই বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে ২৫ জুনের মধ্যেই বোর্ডের মতামত জানানো হবে সুপ্রিম কোর্টকে।

কিছুদিন আগেই রাজ্যের উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সূচি ঘোষণা করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। আগামী ২,৬,ও ৮ ই জুলাই উচ্চমাধ্যমিকের বাকি পরীক্ষাগুলো নেওয়ার কথা রয়েছে। কোন কোন দিনে কী কী বিষয়ে পরীক্ষা হবে তাও বিজ্ঞপ্তি আকারে ইতিমধ্যেই জারি করেছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। পরীক্ষা কেন্দ্রগুলোকে করোনা আবহে কি কি সতর্কতামূলক পদক্ষেপ নিতে হবে সে সম্পর্কে বিস্তারিত গাইড লাইন দিয়েছে সংসদ।জেলাশাসকদেরও একাধিক পদক্ষেপ নেওয়ার কথা জানিয়েছে সংসদ।

তবে সম্প্রতি অভিভাবকদের তরফে আইসিএসই,সিবিএসই পরীক্ষা বাতিলের দাবি নিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হওয়াতে যথেষ্টই চিন্তিত রাজ্য স্কুল শিক্ষা  দফতরও। এই পরিস্থিতিতে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা হওয়া উচিত নাকি তা নিয়েও বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন গুলির ইতিমধ্যেই মতামত নিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। রাজ্যের কয়েকজন শিক্ষাবিদদের মতামত নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। গত সপ্তাহেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের সভাপতি সহ আধিকারিকদের নিয়ে একপ্রস্থ বৈঠকও করেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার প্রস্তুতি পর্যায় নিয়ে আলোচনার পাশাপাশি বর্তমান পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নেওয়া কীভাবে সম্ভব তা নিয়েও আলোচনা করেন শিক্ষামন্ত্রী সংসদের আধিকারিকদের সঙ্গে। হোম সেন্টারে পরীক্ষা নেওয়া যায় নাকি তা আলোচনা করার পাশাপাশি পরীক্ষাকেন্দ্র বাড়ানোর বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়। ইতিমধ্যেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে জেলার কনভেনার নির্দেশিকা দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে প্রয়োজনে বাড়াতে হবে পরীক্ষা কেন্দ্রের সংখ্যা।

কিন্তু সম্প্রতি আইসিএসই বোর্ডে নির্দেশিকা ও তার সঙ্গে সিবিএসই পরীক্ষা বাতিলের দাবি নিয়ে অভিভাবকদের সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার বিষয়ে আপাতত ভাবাচ্ছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তরকে। মঙ্গলবার সিবিএসই পরীক্ষা ব্যাপারে তাদের মতামত জানানোর কথা থাকলেও বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে ২৫ জুনের মধ্যেই তারা তাদের চূড়ান্ত মতামত জানাবে সুপ্রিম কোর্টকে। তাই আপাতত সিবিএসই বোর্ড কি পদক্ষেপ নেয় সেই দিকেই তাকিয়ে রয়েছে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দপ্তর উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার ভবিষ্যতের জন্য। যদিও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ কে পরীক্ষা হচ্ছে তার ধরে নিয়েই প্রস্তুতি চূড়ান্ত করতে বলা হয়েছে বলেই স্কুল শিক্ষা দপ্তর সূত্রে খবর।

 সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Elina Datta
First published: June 23, 2020, 3:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर