corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা-আবহে কেন মিড-ডে মিল নিতে স্কুলে ছাত্ররা? শাস্তিমূলক বদলির কোপে দুই প্রধানশিক্ষক

করোনা-আবহে কেন মিড-ডে মিল নিতে স্কুলে ছাত্ররা? শাস্তিমূলক বদলির কোপে দুই প্রধানশিক্ষক

দুই স্কুলের আলু ও চাল দেওয়ার সময় কিছু সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে আসেন। তার জেরেই এই দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শাস্তিমুলক বদলির নির্দেশিকা জারি করা হল।

  • Share this:

করোনা পরিস্থিতির জেরে দ্রুততার সঙ্গে মিড ডে মিলের আলু ও চাল দেওয়াকে নিয়েই হল বিপত্তি। রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের নির্দেশ অমান্য করাতেই কলকাতার দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে বদলির নির্দেশিকা জারি করা হল।

সোমবার দুপুর তিনটের মধ্যে মিড ডে মিলের আলু ও চাল দেওয়ার প্রক্রিয়া শেষ করার নির্দেশিকা জারি করে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতর।শুধু তাই নয় আলু ও চাল দেওয়ার সময় শুধুমাত্র পড়ুয়াদের অভিভাবকরাই আসবেন এমনও নির্দেশিকা দেওয়া হয়।

শিক্ষা দফতরের নির্দেশিকা শিক্ষা দফতরের নির্দেশিকা

অভিযোগ, এই দুই স্কুলের আলু ও চাল দেওয়ার সময় কিছু সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী স্কুলে আসেন। তার জেরেই এই দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শাস্তিমুলক বদলির নির্দেশিকা জারি করা হল। যদিও এই দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে শাস্তিমুলক বদলি নির্দেশিকা নিয়ে ক্ষুব্দ রাজ্যের শিক্ষক সংগঠনগুলি। তাদের অভিযোগ অনেক স্কুলে পড়ুয়ারা স্বতঃপ্রণোদিত ভাবে এসেছেন।তাহলে বেছে বেছে এই দুই স্কুলের বিরুদ্ধেই কেন শাস্তিমুলক পদক্ষেপ?  যদিও শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন "নিয়ম অমান্য করাতেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।"

নোভেল করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় রাজ্য প্রশাসন  ঘোষণা করায় সোমবার দুপুর তিনটের মধ্যে মিড ডে মিলের চাল ও আলু তুলে দেওয়ার অভিভাবকদের হাতে নির্দেশ দিয়েছিল স্কুল শিক্ষা দফতর। তার জেরে সোমবার সকাল থেকেই বিভিন্ন স্কুলে সকাল থেকেই  অভিভাবকদের লম্বা লাইন নজরে পরে। বিশেষত স্কুল শিক্ষা দফতরের তরফে জমায়তের কথা বারণ করা হলেও একাধিক স্কুলে দেখা যায় অভিভাবকরা জমায়েত করে রয়েছেন।

শুধুুু তাই নয়, মিড ডে মিলের এই প্রক্রিয়াকে ঘিরেও কোথাও কোথাও বিভ্রান্তিও তৈরি হয় আবার নিয়ম উপেক্ষা করে কোথাও স্কুলের পড়ুয়ারা এগিয়ে আলু ও চাল আনতে দেখা যায়। শুধু তাই নয় বহু স্কুলে অভিভাবকরা হাজির হয়ে যান বাচ্চাদের সঙ্গে নিয়েই।

কলকাতার কয়েকটি স্কুলে এই ধরনের খবর আশাতেই ক্ষুব্ধ হন শিক্ষা মন্ত্রী। যাদবপুর বিদ্যাপীঠ এর প্রধান শিক্ষক পরিমল ভট্টাচার্য্য এবং কাটজুনগর স্বর্ণময়ী বিদ্যাপীঠের প্রধান শিক্ষক কাজি মাসুম আখতারকে সোমবার শাস্তিমুলক বদলির নির্দেশিকা জারি করে মধ্যশিক্ষা পর্ষদ। তবে এক্ষেত্রে পোস্ত তুলেছে শিক্ষক সংগঠনগুলি। তাদের অভিযোগ "অভিভাবকরাই স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে বাচ্চাদের নিয়ে এসেছেন স্কুলে এক্ষেত্রে প্রধান শিক্ষকরা কি করবেন?" যদিও এ বিষয়ে ওই দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষকের কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

SOMRAJ BANDOPADHAY

First published: March 24, 2020, 12:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर