#Coronavirus। সনিয়া- রাহুলের করোনা পরীক্ষার দাবি, বিক্ষোভ দেখাতে গিয়ে সাসপেন্ড সাত কংগ্রেস সাংসদ

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অসংসদীয় আচরণের জন্য একসঙ্গে সাত কংগ্রেস সাংসদকে সাসপেন্ড করলেন লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লা। করোনা ভাইরাস নিয়ে আলোচনা চলাকালীন সনিয়া গাঁধী, রাহুল গাঁধীদের জড়িয়ে রাজস্থানের সাংসদ হনুমান বেনিওয়াল আপত্তিকর মন্তব্য করেন। এর পরেই ওয়েলে নেমে তুমুল বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস সাংসদরা। বার বার তাঁদের সংযত হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন অধ্যক্ষ। কিন্তু তাঁরা শান্ত না হওয়ায় সাত কংগ্রেস সাংসদকে বাজেট অধিবেশনের অবশিষ্ট সময়ের জন্য সাসপেন্ড করেন তিনি।

    যে সাত কংগ্রেস সাংসদকে সাসপেন্ড করা হয়েছে তাঁরা হলেন, গৌরব গগৈ, টি এন প্রতাপন, ডিন কুরিয়াকোস, আর উন্নিথান, মানিক ঠাকুর, বেনি বেহনান এবং গুরজিৎ ঔজলা।

    করোনা ভাইরাস নিয়ে আলোচনা চলাকালীন রাষ্ট্রীয় লোকতান্ত্রিক দলের সাংসদ বেনিওয়াল বলেন, যেহেতু সনিয়া, রাহুল এবং প্রিয়ঙ্কা গাঁধী সম্প্রতি ইতালি থেকে ফিরেছেন, তাই তাঁদেরও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে কি না, তা পরীক্ষা করে দেখা হোক। বেনিওয়ালের এই বক্তব্যের পরই তীব্র প্রতিবাদ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস সাংসদরা। তার পরেই সাত কংগ্রেস সাংসদকে সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নেন অধ্যক্ষ।

    এমনিতেই দিল্লির হিংসার বিরোধিতায় গত কয়েকদিন ধরেই সংসদে দুই কক্ষেই তুমুল হইহট্টগোল করছেন কংগ্রেস সহ বিরোধী দলের সাংসদরা। তার সঙ্গে এ দিন যোগ হয় করোনা ভাইরাস বিতর্ক। তার মধ্যেই বেনিওয়ালের মন্তব্যে যেন আগুনে ঘি পড়ে!

     
    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: