মাটি খুঁড়লেই মিলবে কাঠকয়লা, তাতেই সারবে করোনা! গুজবে অবাক ডাক্তাররা

মাটি খুঁড়লেই মিলবে কাঠকয়লা, তাতেই সারবে করোনা! গুজবে অবাক ডাক্তাররা
কুসংস্কার

সকাল থেকেই দক্ষিণ বঙ্গের বিভিন্ন জেলা করোনা ঠেকাতে দৈব ওষুধের গুজবে তোলপাড়। তাতেই চোখ কপালে তুলছেন শিক্ষিত সমাজ ও চিকিৎসকরা।

  • Share this:

#বর্ধমান: তুলসি তলায় মাটি খুঁড়লেই বের হবে পোড়া কাঠ। ঘরের ঈশাণ কোণে মাটি খুঁড়লেও মিলবে সেই কাঠ কয়লা। তা গঙ্গা জলে গুলে মাখলেই মিলবে করোনা থেকে মুক্তি। দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলার সঙ্গে এখন এই গুজবে তোলপাড় পূর্ব বর্ধমানের দক্ষিণ দামোদর এলাকা। পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর, রায়না, খন্ডঘোষের ঘরে ঘরে ছড়িয়ে পড়েছে এই গুজব। এর সঙ্গে বাস্তবের কোনও ভিত্তি নেই জেনেও অনেকেই সেই কয়লা জলে গুলে গায়ে মাখছেন। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, গুজবে কান না দিয়ে এখন করোনা ঠেকাতে বাসিন্দাদের সতর্ক থাকা জরুরি।

সকাল থেকেই দক্ষিণ বঙ্গের বিভিন্ন জেলা করোনা ঠেকাতে দৈব ওষুধের গুজবে তোলপাড়। তাতেই চোখ কপালে তুলছেন শিক্ষিত সমাজ ও চিকিৎসকরা। তাঁরা বলছেন, আজ উন্নত বিজ্ঞানের যুগেও বাসিন্দারা এই সব গুজবে কান দিচ্ছে ভেবেই অবাক হতে হচ্ছে। গুজবের বিরুদ্ধে সরব নেটিজেনরাও।  তারা সকলেই বলছেন, এখন মাটির তলার কয়লা না খুঁজে বাড়িতে দূরত্ব বজায় রেখে থাকা জরুরি। সেই সঙ্গে নির্দিষ্ট সময় অন্তর ভালোভাবে হাত ধোয়া ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা  দরকার।

বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসকরা বলছেন, বিশ্বের প্রথিতযশা বিজ্ঞানীরা এখন দিন রাত এক করে করোনার ওষুধ আবিষ্কারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কোথাও কোথাও মানব দেহে তার পরীক্ষাও চলছে। সেই জায়গায় মানুষ এইসব গুজবে প্রভাবিত হচ্ছেন এটা ভাবতেও খারাপ লাগছে। এই সব গুজবে  কান না দিয়ে এখন প্রত্যেকের উচিত সরকারের পরামর্শ মেনে চলা ও পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখা। আতঙ্কিত না হয়ে সকলকে সাবধানতা অবলম্বন করে করোনা সংক্রমণ ঠেকানোর চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, গুজব রটনাকারীদের চিহ্নিত করার চেষ্টা চলছে। সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ ও পঞ্চায়েত সদস্যদের এ ব্যাপারে বাড়তি নজর রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে এলাকায় মাইকিং, বাড়ি বাড়ি সচেতন করার কাজ চলবে।

SARADINDU GHOSH

First published: March 21, 2020, 6:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर