corona virus btn
corona virus btn
Loading

সুখবর! পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্যে রেশন চালু হল রাজ্যে

সুখবর! পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্যে রেশন চালু হল রাজ্যে
রেশন পাবেন আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরাও। ফাইল চিত্র

রাজ্যের দেওয়া রেশন পাবেন এই রাজ্যে এসে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরাও।

  • Share this:

#কলকাতা: পরিযায়ী শ্রমিকদের সংস্থান নিয়ে নানা বিতর্ক চলার মাঝেই তাদের রেশন দেওয়ার কাজ শুরু করল রাজ্য সরকার। শুধু আমাদের রাজ্যে ফেরত আসা পরিযায়ী শ্রমিকরাই নয়। রাজ্যের দেওয়া রেশন পাবেন এই রাজ্যে এসে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকরাও। সব মিলিয়ে প্রায় ৬০ লক্ষ মানুষকে এই রেশন দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে খাদ্য দফতর। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ইতিমধ্যেই রাজ্য খাদ্য দফতর জেলাশাসকদের সাথে কথা বলে স্পেশাল কুপন তৈরি করেছে। সেই কুপন জেলাশাসকরা পরিযায়ী শ্রমিকদের দিয়েছেন। এই কুপন দেখালেই রেশন দোকান থেকে মিলবে রেশন। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য থাকছে মাথাপিছু ৫ কেজি চাল ও ১ কেজি গোটা ছোলা।

খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, "অন্য রাজ্যের মতো আমরা ভিন রাজ্যের শ্রমিকদের জোর করে ফেরত পাঠাইনি। আমরা সবাইকে এই রেশন দিচ্ছি। এই কঠিন পরিস্থিতিতে সবাই খেয়ে বাঁচুক। জুন ও জুলাই মাস জুড়ে এই রেশন দেওয়া হবে।" খাদ্য দফতরের হিসেব অনুযায়ী প্রথম দিনেই ২ লক্ষ গ্রাহক এই রেশন তুলেছেন।

রেশন ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু জানিয়েছেন," সকলকে রেশন সুষ্ট ভাবে দেওয়া হচ্ছে। কারও থেকে কোনও অভিযোগ এখনও আসেনি। অন্যদিকে রেশনের ডাল নিয়ে বিতর্ক যা চলছিল তা অবশেষে অবসান হল। গতকাল থেকে রাজ্যের সমস্ত রেশন দোকানে শুরু হল ডাল দেওয়া। তবে ডাল তারাই পাবেন যারা অন্ত্যোদয় অন্ন যোজনা, পি এইচ এইচ ও এস পি এইচ এইচ গ্রাহক। এপ্রিল মাসে যে ডাল দেওয়ার কথা ছিল, সেই ডাল এখন দেওয়া শুরু হল জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি থেকে। এখন দেওয়া হচ্ছে মসুর ডাল।"

মে মাসের জন্য বরাদ্দ মুগ ডাল দেওয়া হবে জুলাই মাসে, জুন মাসের জন্য বরাদ্দ মুগ ডাল দেওয়া হবে আগস্ট মাসে বলে জানিয়েছেন রেশন ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের নেতা বিশ্বম্ভর বসু। আপাতত কেন্দ্রের গরীব কল্যাণ যোজনায় দেড় কোটি লোক এই ডাল পাবেন। কেন্দ্র প্রথমে রাজ্যে ছোলার ডাল পাঠাতে চেয়েছিল। রাজ্য তাতে বাধা দেয়। রাজ্য তা নিতে রাজি ছিল না। কেন্দ্র-রাজ্য টানাপোড়েন চলতে থাকে। শেষমেষ রাজ্য জানায় মুগ বা মসুর নেবে কিন্তু কোনওমতেই ছোলার ডাল নেবে না। এরই মধ্যে দু'মাসের টানাটানির শেষে ১৪ হাজার ৫৩০ মেট্রিক টন মসুর ডাল এল রাজ্যে।

Published by: Arka Deb
First published: June 17, 2020, 10:23 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर