Corona Nasal Vaccine:নাকে মাত্র ৪ ফোঁটা ভ্যাকসিন! তাতেই বদলে যাবে পরিস্থিতি, দাবি গবেষকের

প্রতীকী ছবি

ভারতের তৈরি এই ন্যাসাল ভ্যাকসিনের (Nasal Vaccine) খুবই উপকার মিলতে পারে এবং শিশুদের করোনার হাত থেকে মুক্তি মিলতে পারে, মত ডাঃ সৌম্য স্বামীনাথনের (Dr Soumya Swaminathan)৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশে সর্বত্র করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ছে (Corona Second Wave)। এরই মধ্যে চোখ রাঙাচ্ছে তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা (Corona third wave)। দাবি করা হচ্ছে যে করোনার পরবর্তী ঢেউয়ে শিশুদের বেশি সংখ্যায় আক্রান্ত হতে পারে (COVID19 third wave children)। ১২ বছরের কম বয়সী শিশুদের এই মুহুর্তে করোনার ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে না (no vaccine for children under 12 years)। শুধু এটিই নয়, ভারতে ১৮ বছরের কম বয়সীদের জন্য কোনও ভ্যাকসিন অনুমোদিত হয়নি। এদিকে, ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (WHO) এর প্রধান বিজ্ঞানী সৌম্য স্বামীনাথন (Dr Soumya Swaminathan) জানাচ্ছেন যে, ন্যাসাল ভ্যাকসিন (Nasal Vaccine) বা নাকের মাধ্যমে যে ভ্যাকসিন নেওয়া যাবে তা শিশুদের জন্য খুবই ভাল কাজ করবে৷ এবং এটি একটি গেম চেঞ্জার (Game changer) হিসাবে কাজ করতে পারে। এ জাতীয় টিকা নাক দিয়ে দেওয়া হয়। বলা হয় যে এটি সাধারণ ভ্যাকসিন, যা ইঞ্জেকশনের মাধ্যমে নেওয়া হচ্ছে, তার থেকে বেশি কার্যকর। এমনটাই দাবি করা হয়েছে৷

    আরও পড়ুন করোনা আবহে অসুস্থ শিশুদের সম্পূর্ণ বিনামূল্য পরিষেবা দিচ্ছেন বীরভূমের ডাক্তারবাবু, ফোন নম্বর থাকছে ফেসবুকে

    সৌম্য স্বামীনাথন জানিয়েছেন যে, আরও বেশি করে স্কুল শিক্ষকদের টিকা দেওয়ার দরকার। কারণ তাঁরা সরাসরি শিশুদের (Children Vaccination) সংস্পর্ষে আসতে চলেছেন স্কুল খুললে৷ তিনি আরও জানান যে করোনায় গোষ্ঠী সংক্রমণের ঝুঁকি কমতে থাকলেই শিশুদের স্কুলে পাঠানো যেতে পারে। নাকের মাধ্যমে যে ভ্যাকসিন তা শিশুদের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা সহজ হবে। এছাড়াও, এটি শ্বাসনালীতে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলবে৷

    কেন্দ্রীয় সরকার শনিবার জানায় যে, শিশুরা সংক্রমণ থেকে নিরাপদ নয়৷ তবে এই মুহুর্তে শিশুদের মধ্যে ভাইরাসের প্রভাব হ্রাস পাচ্ছে। বিশ্ব ও দেশের পরিসংখ্যানের দিকে খেয়াল করলে দেখা যাবে, কেবলমাত্র ৩-৪ শতাংশ শিশু হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। নিতি আইয়োগের সদস্য ডাঃ ভি কে পল বলেছেন, 'বাচ্চারা যদি কোভিড আক্রান্ত হয় তবে কোনও লক্ষণও দেখা যায়, তাদের সাধারণত হাসপাতালে ভর্তি করার প্রয়োজন হয় না। তবে ১০ থেকে ১২ বছর বয়সীদের দিকে আরও মনোযোগ দেওয়া দরকার প্রয়োজন বলেও তিনি জানান।

    আরও পড়ুন COVID19 Vaccine: দু’বার দুরকম ভ্যাকসিনের ডোজ নেওয়া সম্ভব? যা জানানো হচ্ছে...

    ইতিমধ্যেই মার্কিন ফুড অ্যাড ড্রাগ অ্যাডমিনিসট্রেশন শিশুদের উপর ভ্যাকসিনের পরীক্ষার ছাড়পত্র দিয়েছে৷ মনে করা হচ্ছে ১২ থেকে ১৭ বছরের শিশুদের জন্য ভ্যাকসিনও মিলবে কিছুদিনের অপেক্ষায়৷ ফাইজার-বায়নটেক, মোডার্না, জনসন অ্যান্ড জনসন, সব সংস্থাই ট্রায়াল শুরু করেছে৷

    হায়দরাবাদের ভারত বায়োটেক সংস্থা ন্যাজাল ভ্যাকসিনের ট্রায়াল শুরু করেছে৷ এই ভ্যাকসিনের নাকের মাধ্যমে নিতে হবে৷ সংস্থাটির মতে, মাত্র ৪ ফোঁটা নেস্যাল স্প্রে লাগবে। দুটি করে ড্রপ দুটি নাকে দেওয়া হবে। ক্লিনিকাল ট্রায়ালের রেজিস্ট্রি অনুসারে, তিনটি দলে বিভক্ত ১৭৫ জনকে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছিল। প্রথম ও দ্বিতীয় গ্রুপে ৭০ জন এবং তৃতীয় গ্রুপে ৩৫ জন রয়েছেন। এর রিপোর্ট যদিও এখনও আসেনি৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: