ভারতীয় ক্রিকেটের অন্দরমহলে ফের করোনা কাড়ল প্রাণ, প্রয়াত পীযূষ চাওলার বাবা

Indian spinner Piyush Chawla's father pramod kumar passed away due to coronavirus- Photo Courtesy- Instagram

বাবা-র আকস্মিক প্রয়াণে শোকস্তব্ধ পীযূষ চাওলা৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ভারতীয় ক্রিকেটের লেগ স্পিনার পীযূষ চাওলা-র বাবা প্রমোদ কুমার আজ সকালে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন৷ তাঁর আইপিএল দল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ট্যুইট করে এই খবর জানিয়েছেন৷ মুম্বই ইন্ডিয়ান্স নিজেদের ট্যুইট বার্তায় বলেছে, এই দুঃসময়ে আমরা আপনাদের পাশে রয়েছি৷ আপনি শক্ত থাকুন ৷

    পীযূষ চাওলা নিজেও নিজের সোশ্যাল হ্যান্ডেলে বাবা-র প্রয়ানের সংবাদ দিয়েছেন৷ তিনি ট্যাগলাইনে তিনি জানিয়েছেন, “life won’t be same without him anymore, lost my pillar of strength today,” অর্থাৎ আপনার প্রয়াণের পর জীবন আর আগের মতো থাকবে না৷ আজ আমি আপনার শক্তিহারা হলাম৷

    এর আগে রাজস্থান রয়্যালসের পেসার চেতন সকারিয়া-র বাবাও কোভিড ১৯- এ মারা গিয়েছিলেন৷ পীযূষ চাওলার বাবা এই মারণ ভাইরাস এবং তার পরবর্তী শারীরিক জটিলতার সঙ্গে লড়াই করতে করতে শেষ অবধি হেরে গেলেন৷

    পীযূষ চাওলা কলকাতা নাইট রাইডার্সের (Kolkata Knight Riders) আইপিএল জয়ী দলের সদস্য ছিলেন৷ ২০১৪ সালে কেকেআর আইপিএল জিতেছিল৷ ২০২১ -র আইপিএল নিলামে তাঁকে কিনেছিল মুম্বই ইন্ডিয়ান্স (Mumbai Indians)৷  তবে মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের জার্সিতে তিনি একটি ম্যাচেও প্রথম একাদশে জায়গা করে নিতে পারেননি৷ রাহুল চাহার বল হাতে এত দুরন্ত পারফরম্যান্স দিচ্ছিলেন যে তাঁর আর প্লেয়িং ইলেভেনে সুযোগ হয়নি৷ এবারের আইপিএল মাঝপথেই স্থগিত হয়ে যায় কারণ চারটি ফ্রাঞ্চাইজিতে করোনা ভাইরাসের (covid-19) সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায়৷ ৩২ বছরের পীযূষ চাওলা ২০১১ সালে বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন৷ তবে ২০১২ থেকে আর কোনও আন্তর্জাতিক ম্যাচে তাঁর খেলার সুযোগ হয়নি৷ পীযূষ চাওলা উত্তর প্রদেশ থেকে গুজরাতে সরে গিয়েছিলেন৷ এদিকে এর আগে রাজস্থান রয়্যালসে চেতন সাকারিয়ার বাবা কাঞ্জিভাই  সাকারিয়া রবিবার  গুজরাতের ভাবনগরে মারা যান৷ চেতন যখন আইপিএল খেলছিলেন তখন তাঁর বাবা করোনা পজিটিভ হন৷ ২০২১ এ রাজস্থান রয়্যালসে তাঁকে ১.২ কোটি টাকায় কিনে নেন৷ আইপিএল স্থগিত হয়ে যাওয়ায় বাড়ি ফিরতে পেরেছিলেন তিনি৷ আর তার জন্য তিনি মৃত্যুর আগে বাবা-র সঙ্গে কিছু সময় কাটাতে পেরেছিলেন৷
    Published by:Debalina Datta
    First published: