corona virus btn
corona virus btn
Loading

মেনুকার্ডে সবার আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, করোনার দিনে এটাই বিয়েবাড়ির ট্রেন্ড

মেনুকার্ডে সবার আগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার, করোনার দিনে এটাই বিয়েবাড়ির ট্রেন্ড
বিয়েবাড়িতে এখন স্যানেটাইজার অত্যাবশ্যকীয় হয়ে উঠেছে।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। তাই এখন যাতে কেউ বিষয়টিকে হালকা ভাবে না নেন তা নিশ্চিত করতেই এই স্যানিটাইজার দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়।

  • Share this:

#পূর্ব বর্ধমান: বিয়ের মেনু লিস্টে ঢুকে পড়ল স্যানিটাইজার! লকডাউনের আগে মেনু লিস্টের প্রথম একাদশের ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে নামতো নুন লেবু। মিডিল অর্ডারে এরপর আসতো স্যালাড, কাসুন্দি, ভেজিটেবল চপ কিংবা ফিস ফ্রাই। এরপর দেখেশুনে রাধাবল্লভি, চানা, পনির, রাইস, মটন আসতো স্লগ ওভারে। কিন্তু লক ডাউন পর্ব কাটিয়ে ফের পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতেই সবাইকে পেছনে ফেলে ওপেনিংয়ে নেমে পড়ল হ্যান্ড স্যানিটাইজার। আপাতত সে যে বেশ কিছুদিন সেই ভূমিকায় আসর মাতাবে তা এখনই বলে রাখা যায়।

লক ডাউন শিথিল হতেই বিয়ে বাড়িতে শর্তসাপেক্ষে  ছাড় মিলেছে। বিয়ে মালাবদল প্রীতিভোজ সবই হবে। তবে তা সীমাবদ্ধ রাখতে হবে পঞ্চাশ জনের মধ্যে। সেই সঙ্গে সকলের স্বার্থেই সাবধানতা অবলম্বন জরুরি। খাওয়ার সময়টুকু ছাড়া মাস্ক পরা উচিত। তেমনই এক বিয়ের মেনু লিস্টে ঢুকে পড়ল হ্যান্ড স্যানিটাইজার। বর্ধমানের বাবুরবাগের বাসিন্দা অঙ্কন সাঁইয়ের সঙ্গে বিয়ে হল বাঁকুড়ার ইন্দাস থানার আকুই গ্রামের এনাক্ষীর। এই করোনা আবহে দুজনের বিয়ের রিসেপশন হল এক  সঙ্গে। সেই বিয়ের মেনুতে সচেতনতার প্রথম ধাপ হিসাবে রইল স্যানিটাইজার।

আমন্ত্রিত অতিথি অভ্যাগতদের প্রত্যেকের হাতে একটি করে স্যানেটাইজারের বোতল তুলে দেওয়া হল। বর্ধমানের পাল্লা রোডের পল্লিমঙ্গল সমিতি পাত্র পাত্রীর ছবি দিয়ে এই স্যানিটাইজারের বোতল তৈরি করে দিয়েছিল।

বিয়ের নিমন্ত্রণ রক্ষা করতে এসে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের বোতল পেয়ে খুশি আমন্ত্রিতরা। বাড়িতে নিয়ে গিয়ে কিছুদিন ব্যবহার করা যাবে বলে জানিয়েছেন তাঁরা। বর কনে জানালেন, বিয়েটা আর পিছতে চাইনি। আবার এই পরিস্থিতিতে সাবধানতা মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান করা হয়েছে।

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। তাই এখন যাতে কেউ বিষয়টিকে হালকা ভাবে না নেন তা নিশ্চিত করতেই এই  স্যানিটাইজার দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়। বাইরে বেরোলে সকলকেই মাস্ক বা ফেসকভারে মুখ ঢাকতে বলছি আমরা।

Published by: Arka Deb
First published: July 5, 2020, 8:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर