Gym Vaccination: টিকাকরণ কর্মসূচি জিম ওনার ফোরামের, চাওয়া হল জিম খোলার অনুমতি

জিমে কখন কে আসছেন বা তাঁদের শরীরের অবস্থা কেমন, তা নজরবন্দি করা হয়৷ প্রয়োজনে কোনও ব্যবস্থাও নেওয়া সম্ভব৷ যা রেস্তোরাঁ, মল বা সিনেমা হলে সম্ভব নয়, দাবি জিম মালিক শুভ্রজ্যোতির৷

জিমে কখন কে আসছেন বা তাঁদের শরীরের অবস্থা কেমন, তা নজরবন্দি করা হয়৷ প্রয়োজনে কোনও ব্যবস্থাও নেওয়া সম্ভব৷ যা রেস্তোরাঁ, মল বা সিনেমা হলে সম্ভব নয়, দাবি জিম মালিক শুভ্রজ্যোতির৷

  • Share this:

    #কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গের জিম ওনার ফোরাম অ্যাসোসিয়েশেনর (Gym Owner Forum Association of West Bengal ) পক্ষে থেকে ২৫০জন সদস্যকে টিকাকরণ করা হল মঙ্গলবার৷ ২৫০ জনের মধ্যে ছিলেন বিভিন্ন জিমের মালিক, ট্রেনার ও স্টাফ (Gym owner, trainer, staff)৷ এছাড়াও ছিলেন তাঁদের পরিবারের সদস্যরা৷ টিকাকরণের মাধ্যমে সচেতনতার বার্তা দিলেন এই গোষ্ঠীর সদস্যরা৷ তাঁদের একটাই দাবি যে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জিমগুলিকে (Kolkata Gym) বন্ধ না করে, নিয়মমাফিক খোলার অনুমতি দেওয়া হোক৷ কারণ জিমে শারীরিক সুস্থতার সঙ্গে মানসিক সুস্থতার উপরও জোর দেওয়া হয়, করোনার সঙ্গে লড়তে যা খুবই প্রয়োজন৷ এই যুক্তি তুলে ধরছেন বিভিন্ন জিমের মালিকারা৷

    করোনার কোপে বন্ধ জিম (Gym closed COVID19)৷ ধীরে ধীরে বেশ কিছু ক্ষত্রকে ছাড় দেওয়া হলেও জিম খোলার কোনও বার্তা নেই এই মুহূর্তে৷ করোনার সুপার স্প্রেডারের (Super Spreader) তালিকাও জিমকেও রাখা হচ্ছে৷ আর এখানেই আপত্তি জিম মালিকদের৷ কারণ তাঁদের যুক্তি যে, জিমে শারীরিক কসরতের ফলে মানুষ আরও বেশি করোনা মোকাবিলায় সক্ষম হবেন৷ জিম শুধু নিখুঁত শরীর ধরে রাখার কারখানা নয়, এখানে মনেরও যত্ন নেওয়া, দাবি জিম মালিক ও ট্রেনারদের৷ করোনা সঙ্গে লড়াইয়ে শারীরিক রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার কথা বারবার উঠে আসছে৷ তার সঙ্গে চিকিৎসকরা পরামর্শ দিচ্ছেন শরীরের বাড়তি মেদ ঝাড়াতে৷ কারণ অনেক ক্ষেত্রে তথ্য উঠে আসছে যে Obese বা স্থূলতার ফলে শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যায়৷ জিম ওনার ফোরাম অ্যাসোসিয়েশানের পক্ষ থেকে শুভ্রজ্যোতি পাল চৌধুরি (Subhrajyoti Paul Chowdhury) দাবি করছেন যে নিয়মিত জিমে পা রাখলে এধরণের সমস্যায় কখনই পড়তে হবে না কাউকে৷ পাশাপাশি তিনি আরও বলছেন যে জিমকে সিনেমা হল বা মলের সঙ্গে তুলনা করা কোনও ভাবেই উচিৎ নয়৷ কারণ জিমে কখন কে আসছেন বা তাঁদের শরীরের অবস্থা কেমন, তা নজরবন্দি করা হয়৷ প্রয়োজনে কোনও ব্যবস্থাও নেওয়া সম্ভব৷ যা রেস্তোরাঁ, মল বা সিনেমা হলে সম্ভব নয়, দাবি শুভ্রজ্যোতির (রাইভ্যাল ফিটনেসের মালিক)৷ তাই জিমকে সুপারস্প্রেডারের তকমামুক্ত করার দাবি রাখছেন শুভ্রজ্যোতি সহ জিম ওনার ফোরামের একাধিক সদস্য৷ এই মর্মে সরকারের কাছে তাঁদের আর্জি অবিলম্বে জিম খোলোর অনুমতি দেওয়া হোক৷

    তার আগে নিজেদের মতো করে সমস্ত ব্যবস্থা নিচ্ছেন তাঁরা৷ মঙ্গলবার দক্ষিণ কলকাতায় একটি টিকাকরণ কর্মসূচি নেওয়া হয় Gym Owner Forum Association-এর পক্ষে থেকে৷ তাঁদের মতে জিম খোলার আগে থেকেই যদি ট্রেনার ও স্টাফেরা টিকা নিয়ে নেন, তাহলে সংক্রমণের ঝুঁকি অনেকটা কমবে৷ ফলে নিশ্চিন্তে জিমে গিয়ে শরীরচর্চায় ভরসা পাবেন অনেকে৷ এমনটাই জানাচ্ছেন গগন সচদেব (বডিলাইন স্পোর্টস), রূপম সিনহারা(ফিজিওম্যাক্স জিম)৷ এই কর্মসূচিতে সামিল ছিলেন বহু তারকাও৷ এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন দেবপর্ণা পাল চৌধুরি (Deboparna Paul Chowdhury)৷ যিনি নিয়মিত জিমে যেতে পছন্দ করেন এবং পারিবারিক সূত্রে এই ব্যবসার সঙ্গে জড়িতে৷ তাঁর মতে জিমে শুধু মানুষ রোগা বা মোটা হতে আসেন না৷ শরীরকে সুস্থ রাখতে জিমে যাওয়া প্রয়োজন৷ এর পাশাপাশি ছিলেন অভিনেতা ওম সাহানি ও তাঁর স্ত্রী মিমি৷ রাইভল ফিটনেসের সঙ্গে তাঁদের দীর্ঘ সম্পর্ক৷ মিমি খুব স্পষ্ট করে বলেন যে, বাড়িতে কোনও ভিডিও দেখা শরীর চর্চা করা আদতে অনলাইন ক্লাসের মতো৷ স্কুলে না গেলে যেমন ঠিক মতো পড়াশুনা হয় না পড়ুয়াদের, তেমনই জিমে না গিয়ে অনলাইন ভিডিও দেখে এক্সারসাইজ করলেও তেমন উপকার হয় না বলে মত অভিনেত্রীর৷ এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী সায়ন্তনী৷

    Published by:Pooja Basu
    First published: