কলকাতায় মাস্ক অমিল, কালোবাজারিতে দাম উঠল তিন গুণ! EB-র হানা দোকানে

পুলিশের অভিযান চলছে, দাম তাও কমছে না মাস্কের। করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্যবাসী। করোনা ঠেকাতে অনেকেই মুখের মাস্ক ব্যবহার করছেন।

পুলিশের অভিযান চলছে, দাম তাও কমছে না মাস্কের। করোনা ভাইরাস নিয়ে উদ্বিগ্ন রাজ্যবাসী। করোনা ঠেকাতে অনেকেই মুখের মাস্ক ব্যবহার করছেন।

  • Share this:

Susovan Bhattacharjee

#কলকাতা: শহরে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস ৷ মুখ ঢাকতে মাস্ক কিনতে গিয়ে মাথায় হাত শহরবাসীর। করোনা ঠেকাতে মাস্ক ব্যবহারের পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। দোকানে চিকিৎসকদের পরামর্শ শুনে পৌঁছলেই বিপদ। মাস্ক না পাবার সম্ভাবনা বেশি, পেলেও দাম দিতে হতে পারে দ্বিগুণ বা তিনগুণ।

সেই দামের আঁচ আগাম জানা ছিল কলকাতা পুলিশের ইনফোসমেন্ট ব্রঞ্চের। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশের পর অনেকটাই কালোবাজারি রুখতে পেরেছে কলকাতা পুলিশ। শুক্রবার ও শনিবার শহরের বিভিন্ন জায়গায় হানা দেয় ইবি। রবিবারও ইবি-র হানায় ধরা পড়ল কালোবাজারি। এদিন দুপুরে ইবি-র অফিসারা এসএসকেএম চত্বরের বিভিন্ন ওষুধের দোকান ঘুরে দেখেন। উদ্দেশ্য মাস্কের দাম কত? দোকানে ক্রেতা সেজে দাম শুনে প্রথমে অবাক হলেন খোদ অফিসাররা। পরে নিজের পরিচয় দিতেই দাম গেল কমে। তখন যেন দেড়শো টাকার মাস্ক বিক্রি হল পঞ্চাশ টাকায়।

বেশকিছু দোকানে মিলল না মাস্ক। আবার যেখানে দাম কম মনে হল, জিনিস দেখে তার দাম বোঝা গেল আরও কম। হাজরার এক দোকানদার জানালেন, তার মাস্কের দাম মাত্র ১৫০ টাকা। লেখা আছে ওটাই। কিনেছেন ১০০ টাকায়।  লাভ করবেন মাত্র ৫০ টাকা। শুনে অনেকটাই অবাক হরেন ইবি-র অফিসারা। এদিনের অভিযানে স্পষ্ট হল এখনও মাস্ক নিয়ে চলছে কালোবাজারি।

Published by:Simli Raha
First published: