corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বদলে যাচ্ছে পরীক্ষার ধরন, ইঞ্জিনিয়ারিং ও ম্যানেজমেন্ট কলেজে এবার পরীক্ষা শুধু অনলাইনে

করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় বদলে যাচ্ছে পরীক্ষার ধরন, ইঞ্জিনিয়ারিং ও ম্যানেজমেন্ট কলেজে এবার পরীক্ষা শুধু অনলাইনে

তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে একই দিনে সব পড়ুয়াদের পরীক্ষা হবে না। তার বদলে সামাজিক দূরত্বকে নিশ্চিত করার জন্য প্রত্যেক দিনে ন্যূনতম পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে আসবেন।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় পেপার পেন দিয়ে পরীক্ষা নয়, কলেজে এসে কম্পিউটারকে ব্যবহার করে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়া হবে। রাজ্যের ইঞ্জিনিয়ারিং ও ম্যানেজমেন্ট এর ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র ছাত্রীদের জন্য এমন সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বা মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে একই দিনে সব পড়ুয়াদের পরীক্ষা হবে না। তার বদলে সামাজিক দূরত্বকে নিশ্চিত করার জন্য প্রত্যেক দিনে ন্যূনতম পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে আসবেন।

রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ইঞ্জিনিয়ারিং ও ম্যানেজমেন্ট কলেজ মিলিয়ে প্রায় ২০০ টি কলেজ রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় হিসাব বলছে প্রায় ৩০ হাজারের কাছাকাছি পড়ুয়া পরীক্ষা দেবে এই ফাইনাল ইয়ারের। সে ক্ষেত্রে পরীক্ষা নেওয়ার ও নির্দিষ্ট পরিকল্পনা নিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়। এ প্রসঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সৈকত মৈত্র জানান " পরিকল্পনা হিসেবে রাখা হয়েছে জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে পরীক্ষা নেওয়ার। ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে তার জন্য অনেকদিন ধরেই এই ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা নেওয়া হবে।"

প্রত্যেক বছরই রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় পেপার পেনেই পরীক্ষা নেয়। কিন্তু এবছর ছবিটা আলাদা। দেশজুড়ে ক্রমশই বাড়ছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। এ রাজ্যেও পাল্লা দিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত সংখ্যা। অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যে ঘোষণা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়গুলির ছাত্র-ছাত্রীদের ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা নেওয়া হবে। কিন্তু সেই পরীক্ষা কিভাবে নেওয়া হবে তা নিয়ে ইতিমধ্যেই আলোচনা শুরু করেছেন উপাচার্যরা।

তারই মধ্যে রাজ্য প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বা মৌলানা আবুল কালাম আজাদ প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা কিভাবে নেবে তা নিয়ে রূপরেখা চূড়ান্ত করে ফেলল। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের আশঙ্কাতে পেপার-পেনের বদলে কম্পিউটারের মাধ্যমে অনলাইনে পরীক্ষা নেবে বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ছাত্র-ছাত্রীদের কলেজে এসে কম্পিউটারের মাধ্যমে অনলাইনে পরীক্ষা দিতে হবে। এ প্রসঙ্গে উপাচার্য সৈকত মৈত্র জানান " পেপার পেনে সংক্রমণের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। অন্যদিকে ও পেপার পেনের পরীক্ষা নিলে ফলাফল বের করতে অনেকটাই সময় লাগবে ফাইনাল ইয়ারের ছাত্র ছাত্রীদের। তাই এই দুই কারণের জন্যই পেপার পেনের বদলে আমরা কম্পিউটারের মাধ্যমে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।"

অন্যদিকে, এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে একাধিক ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ, ম্যানেজমেন্ট কলেজ রয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেই ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পড়ুয়ারা পড়তে যান। শুধু তাই নয় প্রত্যেকটি সরকারি বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের হোস্টেলে রয়েছে। এক্ষেত্রে হোস্টেলে থেকে কিভাবে ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দেবেন তা নিয়েও নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেছে বিশ্ববিদ্যালয়। উপাচার্য জানিয়েছেন " স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য যে দিন পরীক্ষা হবে তার আগেরদিন ছাত্রছাত্রীরা হোস্টেলে থাকতে পারবেন। পরীক্ষা দেওয়া হয়ে গেলে তারপর তারা বাড়ি ফিরে যাবেন। আবার পরবর্তী ছাত্ররা যারা আসবেন তারা এই ভাবেই হোস্টেলে থাকবেন, পরীক্ষা দেবেন ও বাড়ি যাবেন। এই পদ্ধতিতেই পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।"

ইতিমধ্যেই শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন, লকডাউন ওঠার এক মাসের মধ্যেই রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষা নেওয়ার প্রস্তুতি নিতে হবে। সেই মোতাবেক রাজ্যের একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। শুক্রবার উপাচার্য পরিষদ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করে কিভাবে আগামী দিনে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হবে তার রূপরেখা ঠিক করছে। যদিও ট্রেন বা বাস পরিষেবা পর্যাপ্ত না চললে কিভাবে জেলাগুলি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা পৌছাতে পারবেন তা নিয়ে অবশ্য সংশয় থাকছে। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গিয়েছে পরীক্ষার যাবতীয় গাইডলাইন ইঞ্জিনিয়ারিং ম্যানেজমেন্ট কলেজ গুলিকে দেবে বিশ্ববিদ্যালয়। তবে হোম সেন্টারে পরীক্ষা নেওয়ার জন্য অনেকটাই সুবিধা হবে বলে মনে করছে বিশ্ববিদ্যালয়ের আধিকারিকরা।

Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: May 29, 2020, 7:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर