Decoding Long Covid: করোনাকালে উপেক্ষা নয় অ্যাসিডিটি ও ক্ষুধা মন্দের বিষয়টি, কারণ জানালেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

করোনাকালে উপেক্ষা নয় অ্যাসিডিটি ও ক্ষুধা মন্দের বিষয়টি, কারণ জানালেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক

লং কোভিড-এর বেশ কয়েকটি লক্ষণ থাকতে পারে, এর মধ্যে একটি অন্যতম হ'ল গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সিকোয়েলি (Gastrointestinal Sequelae) যার ফলে ক্ষুধা হ্রাস, ব

  • Share this:

#মনিপাল: ভারতে করোনা মহামরীর প্রাণঘাতী দ্বিতীয় তরঙ্গ প্রায় শেষ হওয়ার মুখে। এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে রেহাই না মিললেও বহু মানুষ এই ভাইরাসের সঙ্গে লড়াই করে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। সুস্থ হয়ে ওঠার পরে বেশিরভাগ রোগী দীর্ঘস্থায়ী লক্ষণগুলির সঙ্গে মোকাবিলা করার দিকে ঝুঁকছেন- চিকিৎসকরা এটিকে “Long Covid” বলে আখ্যা দিয়েছেন।

এই করোনা মহামারীর পরিস্থিতির আলোকে, নিউজ 18 (News 18) ১৫ দিনের জন্য একটি সিরিজ ‘Decoding Long Covid’ পরিবেশন করবে। যেখানে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা সাধারণ মানুষের মনের উদ্বেগগুলির সমাধান করবেন এবং পোস্ট কোভিড পরিস্থিতিতে কীভাবে বিভিন্ন সমস্যাগুলি মোকাবিলা করা যায়, সেবিষয়ে পরামর্শ দেবেন।

আজকের মনিপালের HCMCT-এর ডাঃ কুনাল দাস (Dr Kunal Das), HOD এবং কনসালটেন্ট- Gastroenterology মূলত অ্যাসিড রিফ্ল্যাক্স এবং ক্ষুধা হ্রাসের ইন্যতম কারণ গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল (Gastrointestinal) সম্পর্কে আলোচনা করেছেন।

লং কোভিড-এর বেশ কয়েকটি লক্ষণ থাকতে পারে, এর মধ্যে একটি অন্যতম হ'ল গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সিকোয়েলি (Gastrointestinal Sequelae) যার ফলে ক্ষুধা হ্রাস, বমি বমি ভাব, অ্যাসিড রিফ্ল্যাক্স এবং ডায়রিয়ার মতো সমস্যাগুলি দেখা যেতে পারে।

নিউজ 18-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ডঃ দাস বলেন, “কোভিড-১৯ প্রাথমিকভাবে শ্বসনতন্ত্রের মাধ্যমে শরীরের সমস্ত অঙ্গকে প্রভাবিত করে। গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল লক্ষণগুলি প্রায় ৬০ শতাংশ রোগীর মধ্যে উপস্থিত থাকে। দ্বিতীয় তরঙ্গে আমরা লক্ষ্য করেছি যে বেশিরভাগ কোভিড রোগীর মধ্যে পেটে সমস্যা দেখা গিয়েছে যার মধ্যে বমিভাব, পেটে ব্যথা এবং ডায়রিয়ার লক্ষণ রয়েছে।”

দাস উল্লেখ করেছিলেন যে, ২০২১ সালের মে মাসে ল্যানসেট গ্যাস্ট্রো হেপাটল (Lancet Gastro Hepatol) নামে এক জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা অনুসারে, অব্যাহতিপ্রাপ্ত ৮৮ শতাংশ রোগীর জিআই সিকোয়েলি (GI sequelae) ছিল।

ল্যানসেট রিপোর্ট বলছে, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল অবস্থা hypoxia কারণে হতে পারে- এই অবস্থায় অক্সিজেন সরবরাহ কম হওয়ার কারণে শরীরের একটি অংশ ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে। রক্তের অক্সিজেনের স্যাচুরেশন হ'ল গুরুতর নিউমোনিয়ার সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কযুক্ত এবং গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল সিকোয়েলির সঙ্গেও সম্পর্কযুক্ত। সমীক্ষায় বলা হয়েছে যে, hypoxia শুধুমাত্র dyspnea-তে আক্রান্ত কোভিড রোগীদেরই হয়না, dyspnea ছাড়াও অনেক রোগীর মধ্যে hypoxia দেখা যেতে পারে।

ডাঃ দাস আরও বলেন যে, কিছু কম সাধারণ লক্ষণগুলিও GI sequelae লক্ষণ হতে পারে যেমন, পেটের ব্যাধি, শ্বাসকষ্ট, বমিভাব এবং পেটে ব্যথা। কিছু ক্ষেত্রে, লোকেদের রক্ত মল হতেও দেখা গিয়েছে। সুস্থ হয়ে ওঠার পর যদি এই জাতীয় লক্ষণগুলি দেখা যায়, তবে কোনওরকম দেরি না করেই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাঁদের চিকিৎসকদের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

ল্যানসেট রিপোর্টের দেখা গেছে যে, কোভিড নেগেটিভ হওয়ার তিন মাসের মধ্যে যে কোনও সময় GI sequelae রোগীদের মধ্যে উপস্থিত হতে পারে।

Published by:Raima Chakraborty
First published: