Covid 19 Vaccine: লাইনে দাঁড়িয়ে হয়রানি নয়, কলকাতা পুরসভার দেখানো পথেই ভ্যাকসিন গোটা রাজ্যে

প্রতীকী ছবি৷

টিকাকরনের (Coronavirus Vaccine) জন্য শহরবাসীর হয়রানি কমাতে একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর চালু করেছে কলকাতা পুরসভা (Kolkata Municipal Corporation)৷

  • Share this:

#কলকাতা: কলকাতা পুরসভার আদলেই এবার গোটা রাজ্যে করোনার টিকাকরণের পরিষেবা চালু করতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার৷ ইতিমধ্যেই স্বাস্থ্য দফতরের মাধ্যমে এই নির্দেশ গিয়েছে প্রত্যেক জেলাশাসকের কাছে৷ এর ফলে ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য মানুষকে আর দীর্ঘ লাইনে ভিড় করতে হবে না৷ ঘরে বসেই আগে থেকে জানা যাবে, কবে কোথায় ভ্যাকসিন পাওয়া যাবে৷

টিকাকরনের জন্য শহরবাসীর হয়রানি কমাতে একটি হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর চালু করেছে কলকাতা পুরসভা৷ সেই নম্বরে যোগাযোগ করে নির্দিষ্ট কয়েকটি তথ্য জমা দিলেই কবে, কোথায় এবং কখন ভ্যাকসিন দেওয়া হবে, তা আবেদনকারীকে জানিয়ে দেওয়া হচ্ছে৷ ফলে একদিকে মানুষের হয়রানি যেমন কমছে, সেরকমই টিকাকরণ কেন্দ্রেও ভিড় এড়ানো সম্ভব হচ্ছে৷

এই পদ্ধতিতেই গোটা রাজ্যে টিকাকরণ শুরু করার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার৷ স্বাস্থ্য দফতরের তরফে সব জেলারশাসকদের বলা হয়েছে এই বিষয়টি নিয়ে প্রস্তুতি নিতে। বিশেষত প্রত্যেকটি জেলার সাব ডিভিশন অন্তত যাতে একটি সেন্টার করে এই পদ্ধতিতে ভ্যাকসিন দেওয়া যায়। গত শনিবার স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফে এই বিষয়ে জেলাশাসকদের সঙ্গে একটি ভিডিও কনফারেন্সও করা হয় বলে নবান্ন সূত্রে খবর৷

আগে থেকে সময় নিয়ে টিকা পাওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে কো- উইন অ্যাপ এবং পোর্টাল চালু করেছিল৷ কিন্তু অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছিল, ওই পোর্টালে নাম নথিভুক্ত করলেও কবে টিকা পাওয়া যাবে সেই আবেদন করেও সময় মিলছে না৷ ফলে প্রায় সর্বত্রই টিকাকরণ কেন্দ্রে গিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করে ভ্যাকসিন নিতে হচ্ছিল৷ অনেক ক্ষেত্রে তৈরি হচ্ছিল বিশৃঙ্খলা৷ সেই হয়রানি এড়াতেই গোটা রাজ্যে কলকাতা পুরসভার মডেল চালু করতে উদ্যোগী রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর৷

Somraj Bandopadhyay
Published by:Debamoy Ghosh
First published: