corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আতঙ্কের জের, এবার বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অনলাইনে ক্লাস! উপাচার্যদের পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রীর

করোনা আতঙ্কের জের, এবার বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে অনলাইনে ক্লাস! উপাচার্যদের পরামর্শ শিক্ষামন্ত্রীর

যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের পঠন-পাঠনের ক্ষতি না হয় তার জন্য অনলাইনে ক্লাস নেওয়া যায় নাকি সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ভাবনাচিন্তা উপাচার্যদের করতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আতঙ্কের জেরে আগামী ১৫ই এপ্রিল পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ থাকবে। তার জেরে যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের পঠন-পাঠনের ক্ষতি না হয় তার জন্য অনলাইনে ক্লাস নেওয়া যায় নাকি সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ভাবনাচিন্তা উপাচার্যদের করতে বললেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্য়ায়।

মঙ্গলবার রাজ্যের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যদের নিয়ে বৈঠকে বসেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। বৈঠকের গোড়াতেই করোনার জেরে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ থাকলেও পড়ুয়াদের পড়াশোনা নিয়ে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা হয়। আলোচনাতে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বন্ধ থাকলে সেমিস্টার পদ্ধতিতে পরীক্ষা ব্যবস্থা অনেকটাই পিছিয়ে যাবে বলেও উপাচার্যরা জানান শিক্ষামন্ত্রীকে। ইতিমধ্যেই রাজ্যের বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা পিছিয়েছে। সেক্ষেত্রে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির নতুন পরীক্ষাসূচি তৈরি হলে অনেকটাই পিছিয়ে যাচ্ছে পরীক্ষা বলেও এদিনের বৈঠকে শিক্ষামন্ত্রীকে জানান উপাচার্যরা। মূলত পড়ুয়াদের পঠন-পাঠনের ঘাটতি মেটাতে কিভাবে বিশ্ববিদ্যালয়গুলি অনলাইনে ক্লাস নিতে পারে বা পড়ুয়াদের অনলাইন মারফত কোনো নথি দেওয়া যায় নাকি সে বিষয়ে উপাচার্যদের জানাতে বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে জরুরি বিভাগ গুলি ছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় গুলি বন্ধ থাকবে বলেও এ দিনের বৈঠকে উপাচার্যদের স্পষ্ট করে দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

করোনা আতঙ্কে শনিবার মুখ্যমন্ত্রীর  দফতর থেকে ৩১শে মার্চ পর্যন্ত স্কুল,কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কিন্তু সোমবার ফের পর্যালোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী ছুটি বাড়িয়ে ১৫ই এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেওয়ার ঘোষণা করেন।এর জেরে ইতিমধ্যেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলির একাধিক পরীক্ষা পিছিয়ে দিতে হয়েছে। মূলত বেশিরভাগ বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সেমিস্টার সিস্টেমে পরীক্ষা নেওয়া হয়। প্রায় এক মাস ছুটি থাকার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়গুলির নতুন পরীক্ষাসূচি প্রায় এক মাসেরও বেশি সময় সীমা পিছিয়ে যাচ্ছে।

মূলত পরীক্ষা ব্যবস্থা পিছিয়ে যাওয়া এবং এবং টানা ছুটির জেরে ছাত্র-ছাত্রীদের সিলেবাস শেষ করা নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে সম্ভব নয়। মঙ্গলবার এর বৈঠকে উপাচার্য শিক্ষামন্ত্রীকে এমনটাই জানান। তাই বিশ্ববিদ্যালয়গুলি যাতে অনলাইনে ক্লাস নিতে পারেন তার প্রয়োজনীয় ভাবনা-চিন্তা  করার পরামর্শ উপাচার্যদের দেন শিক্ষামন্ত্রী। পড়ুয়াদের সিলেবাস যাতে সময়সীমার মধ্যেই শেষ করা যায় সে বিষয়ে যাতে ইতিবাচক চিন্তাভাবনা করে দ্রুত উচ্চ শিক্ষা দফতরের রিপোর্ট দেয় সে বিষয়েও উপাচার্যদের জানান শিক্ষা মন্ত্রী।

Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: March 17, 2020, 9:28 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर