corona virus btn
corona virus btn
Loading

BREAKING: ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যেই উচ্চমাধ্যমিকের খাতা দেখা শেষ করতে হবে শিক্ষকদের, নির্দেশ সংসদের

BREAKING: ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যেই উচ্চমাধ্যমিকের খাতা দেখা শেষ করতে হবে শিক্ষকদের, নির্দেশ সংসদের

পরীক্ষা বাকি থাকলেও যে বিষয়গুলির ইতিমধ্যেই পরীক্ষা নেওয়া হয়ে গিয়েছে সেগুলির মূল্যায়ন প্রক্রিয়া দ্রুত করতে চায় উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

  • Share this:

#কলকাতা: পরীক্ষা এখনও বাকি রয়েছে। কিন্তু যে বিষয়গুলির পরীক্ষা ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে সেগুলির মূল্যায়নে গতি আনতে চায় উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। আর তাই ২০ বা ২৫ দিন নয়, উত্তরপত্র পাওয়ার ১০ থেকে ১২ দিনের মধ্যেই খাতা দেখে মূল্যায়ন প্রক্রিয়া শেষ করতে হবে মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের।বুধবার এমনই নির্দেশ প্রধান পরীক্ষক ও মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের দিল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

শুধু তাই নয় উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে প্রধান পরীক্ষকদের বাড়িতে বাড়িতে উত্তরপত্র পৌঁছে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। নির্দেশিকাতে বলা হয়েছে, প্রধান পরীক্ষকদের কাছ থেকে মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের উত্তরপত্র দ্রুত সংগ্রহ করতে হবে।উত্তর পত্র সংগ্রহ করার জন্য গণপরিবহন বা নিজেদের গাড়ি ব্যবহার করেই নিতে হবে বলে নির্দেশিকায় জানিয়েছে সংসদ। সংসদের তরফের নির্দেশিকায় এও বলা হয়েছে খুবই কম সময়ের মধ্যে খাতা মূল্যায়ন করার পাশাপাশি স্ক্রুটিনি প্রক্রিয়া শেষ করে নম্বর পাঠাতে হবে।

তবে প্রধান পরীক্ষকদের কাছ থেকে উত্তর পত্র সংগ্রহ করতে আসলেও নম্বর জমা দিতে সশরীরে প্রধান পরীক্ষকদের কাছে আসতে হবে না মূল্যায়নকারী শিক্ষকদের। সংসদের তরফে দেওয়া নির্দেশে জানানো হয়েছে, প্রধান পরীক্ষকদের কাছে ই-মেল বা কুরিয়ার মারফত খাতা পিছু নম্বর পাঠাতে হবে । এ বিষয়ে সংসদ সভাপতি মহুয়া দাস জানিয়েছেন " শিক্ষকদের যাতে কোন অসুবিধা না হয় তার জন্য এই পদক্ষেপ গুলি নেওয়া হয়েছে। আমরা আশা রাখছি, রাজ্যের শিক্ষকরা বিশেষত যারা উচ্চ মাধ্যমিকের খাতা মূল্যায়ন এর সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন তারা আমাদের সহযোগিতা করবেন।"

সাধারণত প্রত্যেক বছর জুন মাসের প্রথম বা দ্বিতীয় সপ্তাহে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ ফল প্রকাশ করে। কিন্তু এবার করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এবং তার জেরে চলা লকডাউনের ফলে অনেকটাই পিছিয়ে গেছে উচ্চ মাধ্যমিক ফল প্রকাশের প্রক্রিয়া। এখনও পর্যন্ত তিন দিনের উচ্চমাধ্যমিকের পরীক্ষা বাকি রয়েছে। সেই পরীক্ষাগুলি জুন মাসে নেওয়া হবে বলে ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু পরীক্ষা বাকি থাকলেও যে বিষয়গুলির ইতিমধ্যেই পরীক্ষা নেওয়া হয়ে গিয়েছে সেগুলির মূল্যায়ন প্রক্রিয়া দ্রুত করতে চায় উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।লকডাউনের জেরে সংসদের তরফে উত্তর পত্র সংগ্রহ করা সম্ভব হয়নি। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন ট্রেজারি,পোস্ট অফিস, থানা থেকে সংসদের আধিকারিকরা উত্তরপত্র সংগ্রহ করার প্রক্রিয়া শুরু করেছে। এবার সংগ্রহ করে উত্তরপত্র প্রধান পরীক্ষকদের বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দিচ্ছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ।

প্রধান পরীক্ষকদের বাড়িতে উত্তরপত্র পৌঁছে যাওয়া মাত্রই যাতে মূল্যায়নকারী শিক্ষকরা উত্তরপত্র গুলি সংগ্রহ করেন তার জন্য প্রধান পরীক্ষকদের কাছে প্রয়োজনীয় নির্দেশ দিল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সংসদ সূত্রে খবর, পরবর্তী পরীক্ষা হয়ে গেলে যাতে সেই পরীক্ষা নেওয়ার পর খুব কম সময়ের মধ্যে যাতে ফল প্রকাশ করা সম্ভব হয় তার জন্যই খাতা দেখার সময়সীমা নিয়ে তৎপরতা শুরু করল উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সংসদের তরফে খুব কম সময়ের মধ্যে উত্তরপত্র মূল্যায়ন এবং তার সঙ্গে স্ক্রুটিনীর প্রক্রিয়া করার কথা বলা হলেও জানা গেছে উত্তরপত্র এবং স্ক্রুটিনীর জন্য বেশি হলে ১২ দিন সময়সীমা দেওয়া হবে শিক্ষকদের। সেক্ষেত্রেও বাস বা গণপরিবহন ও নিজেদের ব্যক্তিগত গাড়ি কে ব্যবহার করে শিক্ষকদের উত্তর পত্র সংগ্রহ করার কথা বলেছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। সংসদের আধিকারিকরা মনে করছেন যেহেতু ইতিমধ্যেই বেশ কিছু জায়গায় বাস চলাচল শুরু হয়েছে বা উত্তরপত্র সংগ্রহের জন্য সংসদের তবে নির্দিষ্ট দেওয়া হবে সে ক্ষেত্রে শিক্ষকদের খুব একটা সমস্যা হবেনা খাতা নিতে। তবে উত্তর পত্র সংগ্রহ বা যদি কোন প্রধান পরীক্ষকের বাড়ি জনের মধ্যে থাকে সেক্ষেত্রে প্রয়োজনে শিক্ষকরা পুলিশের সঙ্গে কথা বলে যাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয় সেই বিষয়ক  নির্দেশ দিয়েছে সংসদ।

Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: May 13, 2020, 8:24 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर