Home /News /business /
Voluntary Provident Fund: চাকরিজীবীরা এই সরকারি স্কিমে বিনিয়োগ করলে পাবেন সবচেয়ে বেশি রিটার্ন! জানুন কীভাবে!

Voluntary Provident Fund: চাকরিজীবীরা এই সরকারি স্কিমে বিনিয়োগ করলে পাবেন সবচেয়ে বেশি রিটার্ন! জানুন কীভাবে!

সরকারি কর্মীদের জন্য দারুণ বিরল্প ভিপিএফ৷

সরকারি কর্মীদের জন্য দারুণ বিরল্প ভিপিএফ৷

কোম্পানিকে ভোলান্টারি প্রভিডেন্ট ফান্ডের (Voluntary Provident Fund) বা VPF-এর জন্য বলা যেতে পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (RBI) করোনা অতিমারী চলাকালীন গ্রাহকদের বোঝা কমাতে সুদের হার কমিয়ে দেয়। এর ফলে লোন সস্তা হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ফিক্সড ডিপোজিট এবং অন্যান্য সরকারি যোজনার সুদের হারেও হ্রাস লক্ষ্য করা গিয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ড (EPF) সর্বোচ্চ হারে সুদ প্রদান করছে।

পিপিএফ (PPF), সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা (SSY), কিষাণ বিকাশ পত্র (KVP) সহ প্রায় সমস্ত ছোট সরকারি সঞ্চয় প্রকল্পে সুদের হার ৮ শতাংশের নিচে নেমে এসেছে। সেখানে, EPF স্কিমে ৮.৫ শতাংশ সুদ প্রদান করা হচ্ছে। যদি কোনও বিনিয়োগকারী এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ডে নিজের লগ্নি বৃদ্ধি করতে চান তবে কোম্পানিকে ভলিউন্টারি প্রভিডেন্ট ফান্ডের (Voluntary Provident Fund) বা VPF-এর জন্য বলা যেতে পারে। ভলিউন্টারি  প্রভিডেন্ট ফান্ডে ৮.৫ শতাংশ হারে সুদের পাশাপাশি ট্যাক্স ছাড়ের সুবিধাও পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন: চাকরিজীবীদের জন্য বিশাল খবর! পেনশন স্কিমে বড়সড় বদলের ব্যাপক প্রস্তুতি

VPF কী? কত টাকা লগ্নি করা যেতে পারে?

প্রত্যেক কোম্পানিতে নিয়োগকর্তা তার কর্মচারীর বেসিক এবং ডিএ (Basic & DA) হিসেবে ১২ শতাংশ এমপ্লয়ি প্রভিডেন্ট ফান্ডে জমা করে। পাশাপাশি কর্মচারী নিজেও ১২ শতাংশ ওই তহবিলে জমা করে। কর্মচারী যদি আরও বেশি জমা রাখতে আগ্রহী হয় তবে তার ডেইলি অ্যালাওয়েন্স-এর ১০০ শতাংশ অর্থরাশি EPF অ্যাকাউন্টে জমা রাখতে পারে। এই অতিরিক্ত জমার প্রক্রিয়াকেই বলা হয় ভলিউন্টারি  প্রভিডেন্ট ফান্ড। এই অতিরিক্ত অর্থের ওপরও ইপিএফ-এর মতোই ৮.৫ শতাংশ হারে সুদ প্রদান করা হবে।

আরও পড়ুন: ডিজিটাল মুদ্রায় ইউপিআই পেমেন্ট করবেন কীভাবে? বিশেষজ্ঞরা যা জানালেন

VPF তহবিলে কীভাবে জমা করা যাবে?

ভলিউন্টারি  প্রভিডেন্ট ফান্ডে টাকা জমা করার প্রক্রিয়া খুবই সহজ। এর জন্য কর্মচারীকে শুধুমাত্র তার নিয়োগকর্তাকে জানাতে হবে যে তার মাসিক বেতন থেকে নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা সরিয়ে যেন ভিপিএফ তহবিলে জমা করা হয়। অনেক VPF-এর জন্য কর্মচারীকে একটি ফর্ম প্রদান করা হয়। এই ফর্ম পূরণ করে ভিপিএফ অ্যাকাউন্টে বিনিয়োগ শুরু করা যায়। প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হলে কোম্পানি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা বেতন থেকে কেটে ভিপিএফ খাতে জমা করবে।

কীভাবে কর ছাড় পাওয়া যাবে?

EPF-এর মতোই VPF-এর ক্ষেত্রেও কর ছাড়ের একই নিয়ম প্রযোজ্য। ইনকাম ট্যাক্স আইনের সেকশন ৮০সি-এর অধীনে ভোলান্টারি প্রভিডেন্ট ফান্ডেও কর ছাড় পাওয়া যায়। এই কর ছাড়ের সীমা হল ১.৫ লক্ষ টাকা এবং এর বেশি পরিমাণ অর্থরাশির ক্ষেত্রে ট্যাক্স ধার্য করা হবে।

First published:

Tags: EPF, Provident Fund

পরবর্তী খবর