কেন কমছে না পেট্রোল-ডিজেলের দাম ? জানালেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন

অয়েল বন্ডের জেরে দাম কমানো সম্ভব হচ্ছে না পেট্রোল ও ডিজেলের ৷ কিন্তু কী এই অয়েল বন্ড ৷

অয়েল বন্ডের জেরে দাম কমানো সম্ভব হচ্ছে না পেট্রোল ও ডিজেলের ৷ কিন্তু কী এই অয়েল বন্ড ৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: গত কয়েকদিনে আকাশছোঁয়া দাম বেড়েছে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম ৷ এর জেরে প্রায় সমস্ত জিনিসের দাম বেড়েই চলেছে ৷ আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেলের দাম কমলেও দেশের বাজারে তার সেরকম কোনও প্রভাবই পড়েনি ৷ একাধিক শহরে লিটার প্রতি ১০০ টাকা পেরিয়ে গিয়েছে পেট্রোলের দাম ৷ তা সত্ত্বেও কেন কেন্দ্র সরকারের তরফে পেট্রোল ও ডিজেলের দাম কমানো হচ্ছে না তা নিয়ে সকলের মনেই প্রশ্ন উঠেছে ৷ এই বিষয়ে সম্প্রতি অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন, পেট্রোল ও ডিজেলের এরকম দাম বৃদ্ধির জেরে প্রাক্তন ইউপিএ সরকার দায়ি ৷ সোমবার অর্থমন্ত্রী জানিয়েছেন, প্রাক্তন ইউপিএ সরকার অয়েল বন্ড জারি করেছিল, যার জেরে তেলের দাম কমানো সম্ভব হচ্ছে না ৷

    অর্থমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, সরকারকে এই বন্ডের জেরে টাকা দিতে হয় ৷ ২০০৫-২০১০ সালের মধ্যে তৎকালীন ইউপিএ সরকার তেল সংস্থাগুলিকে অয়েল বন্ড জারি করেছিল ৷ এর জেরে সেই সময় তৎকালীন সরকারকে সংস্থাগুলি নগদ সাবসিডি দিতে হয়নি এবং আগামী কয়েক বছরে কিস্তিতে দেওয়ার কথা ছিল ৷

    অয়েল বন্ড এক ধরনের স্পেশ্যাল সিকিউরিটিজ যা সরকারের তরফে তেল সংস্থাগুলি যেমন হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়াম, ইন্ডিয়ান অয়েল, ভারত পেট্রোলিয়ামকে ক্যাশ সাবসিডি হিসেবে দেওয়া হয় যাতে সাধারণের উপর তেলের দামের চাপ না পড়ে ৷ অয়েল বন্ড ১৫-২০ বছরের জন্য হয় ৷ তেল সংস্থাগুলিকে এই বন্ডের উপরে সুদও দেওয়া হয় ৷

    নির্মলা সীতারমন জানিয়েছেন, ইউপিএ সরকার প্রায় ১.৪৪ লক্ষ কোটি টাকার অয়েল বন্ড ইস্যু করেছিল ৷ ২০১৪-১৫ সালে অয়েল বন্ডের ১.৩৪ লক্ষ কোটি টাকা বকেয়া ছিল ৷ মোদি সরকার ৭০,১৯৫ কোটি টাকার সুদ দিয়েছে ৷ পাশাপাশি মোদি সরকাররে ৩৫০০ কোটি টাকা দিয়ে হয়েছে অয়েল বন্ডের জন্য ৷ ২০২৬ পর্যন্ত সরকারকে ৩৭০০০ কোটি টাকা সুদ দিতে হবে ৷ ২০২৬ পর্যন্ত সরকারকে ১.৩০ লক্ষ কোটি টাকা দিতে হবে ৷

    Published by:Dolon Chattopadhyay
    First published: