Home /News /business /
গয়নার দোকানে তৃতীয় লিঙ্গের কর্মসংস্থান, প্রাইড মান্থ-এ কলকাতার রুপুর জীবন এবার এল ছবির পর্দায়

গয়নার দোকানে তৃতীয় লিঙ্গের কর্মসংস্থান, প্রাইড মান্থ-এ কলকাতার রুপুর জীবন এবার এল ছবির পর্দায়

রূপান্তরকামী মহিলা কর্মী রুপুর জীবনের গল্পই শোনা গিয়েছে। সংস্থার ক্যামাক স্ট্রিট শো-রুমের সেলস বিভাগে গত পাঁচ বছর ধরে কাজ করছেন রুপু।

  • Share this:

কলকাতা: একটি গয়না বিপণীর ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর হয়েছেন ভারতীয় স্প্রিন্টার এবং বর্তমানে মহিলাদের ১০০ মিটার ইভেন্টের জাতীয় চ্যাম্পিয়ন দ্যুতি চাঁদ। সংস্থার প্রকাশ করা একটি ফিল্মে সমকামী দ্যুতির সঙ্গে দেখা গিয়েছে তাঁর প্রেমিকাকে। সেখানে তাঁদের জীবনের লড়াইয়ের গল্প উঠে এসেছে। সমাজ যাতে সমকামী সম্পর্ককে স্বাভাবিক চোখেই দেখে, সেই বিষয়ে বার্তা দিয়েছেন দ্যুতি ও তাঁর প্রেমিকা। শুধু তা-ই নয়, এলজিবিটি কমিউনিটির মানুষদের প্রেরণাও জোগাচ্ছেন দ্যুতি। রূপান্তরকামী মানুষেরা যাতে নিজেদের মনের অনুভূতির কথা সমাজে দাঁড়িয়ে নির্ভয়ে মাথা উঁচু করে প্রকাশ করতে পারেন এবং যাতে তাঁরা নিজেদের সত্তা নিয়েও গর্ববোধ করতে পারেন- সেই বিষয়েও জোর দিয়েছেন এই মহিলা অ্যাথলিট। সেনকো গোল্ডের এই ফিল্মের মাধ্যমে দ্যুতির বার্তা, গোপনে নয়, বরং মাথা উঁচু করে বাঁচতে হবে। আর গর্বের অলঙ্কারেই ফুটে উঠবে সৌন্দর্য।

অন্য ফিল্মটিতে আবার সেনকো গোল্ডের রূপান্তরকামী মহিলা কর্মী রুপুর জীবনের গল্পই শোনা গিয়েছে। সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস-এর ক্যামাক স্ট্রিট শো-রুমের সেলস বিভাগে গত পাঁচ বছর ধরে কাজ করছেন রুপু। তিনি যাতে নিজের প্রকৃত সত্তাকে খুঁজে পান, তার জন্যই তাঁকে এই মঞ্চ দিয়েছে সেনকো গোল্ড। সেই সঙ্গে সমাজে অন্যদেরও মাথা তুলে বাঁচার অনুপ্রেরণা জোগাচ্ছেন গয়নার বিপণির এই রূপান্তরকামী মহিলা কর্মী। সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে ছড়িয়ে পড়েছে সেনকোর তৈরি এই দু’টি ছবি।

আরও পড়ুন- অভিনয় দেবীর চরিত্রে, আর তাঁকেই কি না ইন্ডাস্ট্রির কুপ্রস্তাব! শিব্যা পাঠানিয়ার প্রতিটি কথা কাঁপিয়ে দেবে

এই নতুন উদ্যোগের প্রসঙ্গে সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডের ডিরেক্টর জয়িতা সেন বলেন, “আমরা সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস-এ এলজিবিটি কমিউনিটির অধিকারকে সমর্থন জানাচ্ছি। আসলে এই কমিউনিটির যেসব মানুষ সমস্ত প্রতিকূলতাকে পিছনে ফেলে নিত্য লড়াই করে সমাজে নিজেদের জায়গা করে নিচ্ছেন, তাঁদের আমরা শ্রদ্ধা জানাচ্ছি আমাদের নতুন এই থিম #WearYourPride-এর মাধ্যমে। আমরা তাঁদের এবং তাঁদের সাহসকে কুর্নিশ জানাই। আর আমাদের কর্মী রুপুর স্বপ্নকে সত্যি করতে তাঁর লিঙ্গ রূপান্তরের প্রক্রিয়ায় আমরা তাঁকে সাহায্য করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। রুপু সবার জন্যই একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। আমাদের আশা, এভাবে আরও অনেক রুপু-কে আমরা দেখতে পাব, যাঁরা আমাদের রুপুর পথ অনুসরণ করবেন।”

এই উদ্যোগ প্রসঙ্গে সংস্থার ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও শুভঙ্কর সেন আবার বলেন, “সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস সর্বব্যাপী বিকাশের বিষয়ে প্রচার করছে। দ্যুতি চাঁদকে ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর করার মাধ্যমেই আমরা সেই উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা বিশ্বাস করি, দ্যুতি শুধুমাত্র এলজিবিটি কমিউনিটির জন্য নয়, সমস্ত খেলোয়াড়দের জন্যই অনুপ্রেরণা জোগাতে পারবেন। আমি আনন্দের সঙ্গে জানাই যে, এখন আমাদের সেনকো গোল্ড পরিবারেও রয়েছেন এলজিবিটি কমিউনিটির সদস্য। ওই কমিউনিটির আরও সদস্যদের স্বাগত জানিয়ে সানন্দে গ্রহণ করব আমরা। সেনকো গোল্ড-এ রুপুর মতো সকলকে নানা বিষয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার করেছি আমরা।”

আরও পড়ুন- ঘরে-বাইরে ব্যস্ততার মাঝেই ঝরবে ওজন! মহিলাদের অব্যর্থ কাজে আসে এই ১৪ নিয়ম

সংস্থার চিফ হিউম্যান রিসোর্স অফিসার শুভশ্রী সেনগুপ্তের বক্তব্য, “সেনকো গোল্ড অ্যান্ড ডায়মন্ডস-এ আমরা সকলকে সমান সুযোগ-সুবিধা দেওয়ায় বিশ্বাসী। সেই সঙ্গে লিঙ্গ, জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সমস্ত ক্ষেত্রের মানুষকে এখানে কাজ করার জন্য উৎসাহ দিয়ে থাকি। সেনকো-তে আমরা এমন একটা প্ল্যাটফর্ম দেওয়ার চেষ্টা করি, যেখানে এলজিবিটি কমিউনিটির মানুষও নিজেদের মেলে ধরতে পারেন এবং প্রতিভা বিকাশের সুযোগ পান। সেই সঙ্গে এলজিবিটি কমিউনিটির যোগ্য মানুষদের আমরা আন্তরিক ভাবে স্বাগত জানাই এবং তাঁরা যাতে নিজেদের পেশাগত জীবনে মাইলফলক গড়তে পারেন, সেই দিকটাও আমরা নিশ্চিত করছি।”

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

পরবর্তী খবর