• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • NEW RULE IMPLEMENTED IN AXIS BANK FROM 1 SEPTEMBER IF NOT FOLLOWED CHEQUE WILL BOUNCE PBD

Bank Rule: এই ব্যাঙ্কে আজ থেকে শুরু হল চেক পেমেন্টের নতুন নিয়ম, না জানলে বিপদে পড়বেন...

Positive Pay System

চেকের মাধ্যমে ব্যাঙ্ক থেকে টাকা লেনদেন করেন, তো জেনে নিন এই নতুন নিয়ম৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: বহু ব্যাঙ্কে এখন পজিটিভ পে সিস্টেম (Positive Pay System) চালু হয়েছে। অনেক ব্যাঙ্ক ১ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ আজ থেকে PPS পরিষেবা বাস্তবায়ন করছে। ১ জানুয়ারি, ২০২১ থেকে এই সুবিধা শুরু করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (RBI)। ব্যাঙ্কগুলো বিভিন্ন পর্যায়ে এটি বাস্তবায়ন করছে। অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক আজ থেকে এই ব্যবস্থা বাধ্যতামূলক করতে চলেছে।

    কিসের জন্য এই পজিটিভ পে সিস্টেম সুবিধাজনক (Why PPS)? মূলত চেক থেকে জালিয়াতি রোধ করার জন্য ব্যাঙ্কগুলিতে (Stop Cheating) এই সুবিধা বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে।

    এর আগে, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া, ব্যাঙ্ক অফ বরোদা, এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্কের মতো বড় ব্যাঙ্কগুলি এই পদ্ধতি বাস্তবায়ন করেছে।

    জেনে নিন পজিটিভ পে সিস্টেম (What is PPS) কী- পজিটিভ পে সিস্টেমে ব্যাঙ্কে ৫০ হাজার টাকার বেশি মূল্যে চেক দিলে আগে থেকে জানাতে হবে। পেমেন্ট করার আগে ব্যাঙ্ক খতিয়ে দেখে। এটি একটি স্বয়ংক্রিয় জালিয়াতি সনাক্তকরণ পদ্ধতি। আরবিআইয়ের এই নিয়ম বাস্তবায়নের উদ্দেশ্য হল চেকের অপব্যবহার রোধ করা।

    আরও পড়ুন Bank Holidays: এ মাসে ১২ দিন কাজ হবে না ব্যাঙ্কে, কবে কবে ব্যাঙ্ক ছুটি জেনে নিন...

    পজিটিভ পে সিস্টেমের অধীনে এসএমএস, ইন্টারনেট ব্যাঙ্কিং, এটিএম বা মোবাইল ব্যাঙ্কিং-এর মাধ্যমে চেক প্রদানকারীকে চেকের তারিখ, গ্রাহকের নাম, অ্যাকাউন্ট নম্বর, মোট পরিমাণ, লেনদেনের কোড এবং ব্যাঙ্কে চেক নম্বর নিশ্চিত করতে হবে। চেক পেমেন্ট করার আগে ব্যাঙ্ক এই তথ্যগুলি আরও একবার দেখে নেবে। যদি কোন অসঙ্গতি পাওয়া যায়, তাহলে ব্যাঙ্ক সেই চেক প্রত্যাখ্যান করবে।

    অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক ৫ লক্ষ টাকার সীমা নির্ধারণ করেছে- অ্যাক্সিস ব্যাঙ্কের (Axis bank starts PPS from 1 September) গ্রাহকদের পজিটিভ পে সিস্টেমের অধীনে চেকের বিবরণ নিশ্চিত করতে হবে যখন এটি ৫ লক্ষ বা তার বেশি অঙ্কের চেক ইস্যু করা হবে। এই নতুন নির্দেশিকা ১ সেপ্টেম্বর থেকে সম্পূর্ণ কার্যকর হবে।

    Published by:Pooja Basu
    First published: