corona virus btn
corona virus btn
Loading

আর্থিক মন্দাতেও ভারতের অবস্থা ভাল!‌ একগুচ্ছ ঘোষণা করলেন RBI ‌গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

আর্থিক মন্দাতেও ভারতের অবস্থা ভাল!‌ একগুচ্ছ ঘোষণা করলেন RBI ‌গভর্নর শক্তিকান্ত দাস

তিনি বলেছেন, ভারত জিডিপির ৩.‌২ শতাংশ করোনা মোকাবিলার জন্য খরচ করছে। যা অন্য অনেক দেশের তুলনায় বেশি।

  • Share this:

#‌নয়া দিল্লি:‌ লকডাউনে দেশের আর্থিক ক্ষতির মধ্যে দাঁড়িয়ে দ্বিতীয়বার সাংবাদিক বৈঠক করলেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। তিনি এদিন প্রথমেই বলেন, আইএমএফ যে আর্থিক বিষয়ক ঘোষণা করেছে, তাঁতে বলা হয়েছে, জি২০ দেশগুলির মধ্যে ভারতের আর্থিক বৃদ্ধির হার এই বছর থাকতে পারে ১.‌৯ শতাংশ। যা বাকি দেশগুলির তুলনায় অনেকটাই বেশি। তাই দেশের আর্থিক অবস্থা ততটাও খারাপ হবে না, যতটা বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের হতে চলেছে। তিনি জানান, আইএমএফের ঘোষণা করা মহামন্দার মাঝেও ভারত ঘুরে দাঁড়াবেই। খুব দ্রুতই ঘুরে দাঁড়াবে।

আর সেই কারণেই দেশের বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। প্রথমত ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে ৫০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। উল্লেখ্য, ভারতের মতো দেশে এই ধরনের শিল্পক্ষেত্রগুলিরই সংখ্যা বেশি। বিপুল সংখ্যক ভারতীয়ের এখানে কর্মসংস্থান হয়। তাই এই ক্ষেত্রকে বিশেষ সাহায্য করতে চাইছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। অন্যদিকে আবাসন শিল্পে সরাসরি ১০ হাজার কোটির প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন রিজার্ভ ব্যাঙ্কের গভর্নর শক্তিকান্ত দাস। এছাড়া স্বল্প সঞ্চয়ের ক্ষেত্রে নতুন করে আরও ৫০ হাজার কোটির প্যাকেজ এবং নাবার্ডের জন্য ২৫ হাজার কোটির প্যাকেজের ঘোষণা করেছেন তিনি।

আর্থিক বৃদ্ধির হার এই আর্থিক বর্ষে কম থাকলেও আগামী আর্থিক বর্ষে সেটা বেড়ে হতে পারে ৭.‌৪ শতাংশ, আইএমএফের ভবিষ্যদ্বানী উল্লেখ করেই বলেছেন শক্তিকান্ত দাস। তবে বিশ্বজুড়ে যে এক মহাআর্থিক মন্দার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে, সে কথাও এদিন উল্লেখ করেছেন তিনি। বলেছেন, এই আর্থিক মন্দায় ভুগছে গোটা দেশ। তবে ভারতের আবহাওয়ার কারণে সেই মন্দার প্রভাব কিছুটা রোধ করা যাবে। দিল্লির মৌসম ভবন জানিয়েছে, এই বছর স্বাভাবিক বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। তাই শস্যের কোনও সমস্যা হবে না। তিনি সম্ভবত বোঝাতে চাইছেন, গ্রামীন শক্তিশালী অর্থনীতির কারণেই এবারে বৈতরণী পার করে দিতে পারে ভারত।

এছাড়াও এদিন রিজার্ভ রেপো রেট আরও ২৫ বেসিস পয়েন্ট কমিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। যার ফলে রেপোরেট গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৩.‌৭৫ পয়েন্টে। তিনি বলেছেন, ভারত জিডিপির ৩.‌২ শতাংশ করোনা মোকাবিলার জন্য খরচ করছে। যা অন্য অনেক দেশের তুলনায় বেশি।

First published: April 17, 2020, 12:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर