Home /News /business /
তিন দিনে বিনিয়োগকারীদের মূলধন বাড়ল ১০.৮৩ লক্ষ কোটি টাকা! কোন ম্যাজিকে?

তিন দিনে বিনিয়োগকারীদের মূলধন বাড়ল ১০.৮৩ লক্ষ কোটি টাকা! কোন ম্যাজিকে?

বিএসই ৩০ শেয়ার সেনসেক্স ৮১৭.০৬ পয়েন্ট বা ১,৫০ শতাংশ বেড়ে ৬৬,৪৬৪.৩৯ পয়েন্টে পৌঁছেছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের জেরে ধাক্কা লেগেছিল ভারতীয় শেয়ার বাজারে। হু-হু করে পড়ছিল সূচক। কিন্তু ফের ঘুরে দাঁড়াচ্ছে দালাল স্ট্রিট। মাত্র তিন দিনে বিনিয়োগকারীদের পুঁজি বেড়েছে ১০.৮৩ লাখ কোটি টাকা। কোন অঙ্কে হল এমন অসাধ্য সাধন?

বিএসই ৩০ শেয়ার সেনসেক্স ৮১৭.০৬ পয়েন্ট বা ১,৫০ শতাংশ বেড়ে ৬৬,৪৬৪.৩৯ পয়েন্টে পৌঁছেছে। গত তিন দিনে সেনসেক্স ২,৬২১.৬৪ পয়েন্ট বেড়েছে। বিএসই তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলির বাজার মূলধন তিনটি ট্রেডিং সেশনে ১০,৮৩,১০৩.২৭ কোটি টাকা থেকে বেড়ে ২,৫১,৯৩ ৯৩৪.৩১ কোটি টাকা হয়েছে।

আরও পড়ুন: গাড়ি কিনবেন? বাম্পার ছাড় দিচ্ছে হোন্ডা, দেখে নিন কোন মডেলে কত ডিসকাউন্ট!

বাজার ফের উর্ধ্বমুখী: দিনের শেষে ৮১৭.০৬ পয়েন্ট বা ১.৫০ শতাংশ বৃদ্ধি নিয়ে ৫৫, ৪৬৪.৩৯-এ বন্ধ হয় সেনসেক্স। অন্যদিকে ২৯৪.৫৫ পয়েন্ট বা ১.৫৩ শতাংশ বৃদ্ধি নিয়ে ১৬,৫৯৪.৯০-এ বন্ধ হয়েছে নিফটি। এদিকে রাশিয়া ও ইউক্রেনের বিদেশমন্ত্রী তুর্কিতে বৈঠকে বসতে চলেছেন বলে খবর মিলেছে। এর মধ্যেই বাজারের এহেন উত্থান।

জিওজিৎ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস-এর বিনোদ নায়ার বলছেন, ইউক্রেন ও রাশিয়ার মধ্যে আলোচনার সম্ভাবনা তৈরি হওয়ায় আশার আলো দেখছে বাজার। বিনিয়োগকারীদের মধ্যে প্রত্যাশা বাড়ছে। যদিও যুদ্ধ থামবে কি না তা এখনই বলা যাচ্ছে না। তবে এশিয়ার বাজারে ফের ইতিবাচক লক্ষণ দেখা যাচ্ছে। ভারতীয় বাজারেও তার প্রতিফলন পড়েছে। তবে পশ্চিমের বাজার এখনও দুর্বল। অপরিশোধিত তেলের দাম প্রায় আকাশ ছুঁয়েছে। তার ফলে ভারতীয় বাজারে এখনও কিছুটা অস্থিরতা রয়েছে।

আরও পড়ুন: মহাধামাকায় মধ্যবিত্তের বড়দিন! কলকাতায় সোনার দামে ফের কাঁপানো পতন

প্রায় ২০ শতাংশ বেড়েছে অপরিশোধিত তেলের দাম। যার জেরে আগামী সপ্তাহ থেকেই দেশে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়তে শুরু করবে। এমনই আশঙ্কার কথা শুনিয়েছেন অর্থনীতিবিদরা। পেট্রোল-ডিজেলের দাম বাড়তে শুরু করলেই হু হু করে বাড়বে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম। এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। দেশের মুদ্রাস্ফীতি চরম আকার নেবে বলে মনে করছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুন: স্টেট ব্যাঙ্কের বিশাল স্কিমে ব্যাপক সুযোগ! প্রতি মাসে মোটা টাকা সুদ, বাম্পার আয়

তবে এলকেপি সিকিউরিটিজের রূপক দে বলছেন, শেয়ার বাজার ফের ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। অধিকাংশ শেয়ারই গ্রিন জোনে থাকাটা শুভ লক্ষণ। তাঁর মতে, অদূর ভবিষ্যতে নিফটি যদি ১৬৭৫০-এর নিচে থাকে, তাহলে বাজারকে সাইডওয়ে লেনদেন করতে দেখা যাবে। অন্যদিকে, যদি এটি ১৬৭৫০-এর উপরে ওঠে তবে এই তা ১৭,০০০ পর্যন্ত যেতে পারে। এখন ওই সূচক নিয়ে যদি বন্ধ হয় শেয়ার বাজার, তাতে প্রযুক্তিগত ল্যান্ডস্কেপ যথেষ্ট উন্নতি করবে বলেই ধারণা বিশেষজ্ঞদের। তবে বেঞ্চমার্ক সূচকে উত্থানের সঙ্গে সঙ্গতি রেখে বিস্তৃত বাজারগুলিও মুনাফা বাড়িয়েছে। বিএসই মিডক্যাপ এবং স্মলক্যাপ সূচকগুলি ২ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Investment, Share Market

পরবর্তী খবর