corona virus btn
corona virus btn
Loading

পেট্রোল- ডিজেলের শুল্ক বাবদ দু' মাসেই সরকারের ঘরে ৪০ হাজার কোটি টাকা!

পেট্রোল- ডিজেলের শুল্ক বাবদ দু' মাসেই সরকারের ঘরে ৪০ হাজার কোটি টাকা!
প্রতীকী চিত্র৷

প্রসঙ্গত, গত ৫ মে প্রতি লিটার পেট্রোলে ১০ টাকা এবং ডিজেলে ১৩ টাকা করে শুল্ক বৃদ্ধি করে সরকার৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: নতুন আর্থিক বর্ষের প্রথম দু' মাসের মধ্যেই পেট্রোল এবং ডিজেলের থেকে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকা শুল্ক আদায় করেছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ পেট্রোল এবং ডিজেল থেকে সারা বছর শুল্ক আদায়ের যে লক্ষ্যমাত্রা সরকারের থাকে, তার ১৬ শতাংশই আর্থিক বর্ষের প্রথম দু' মাসে উঠে এসেছে৷ যার একটা বড় সময়ই গোটা দেশ কড়া লকডাউনের মধ্যে ছিল৷

জানা গিয়েছে, এপ্রিলের তুলনায় মে মাসে পেট্রোল এবং ডিজেল বিক্রির শুল্ক থেকে সরকারের আয় তিন গুণ হয়েছে৷ এপ্রিল মাসে যেখানে ১০,৫৬০ কোটি টাকা সরকারের ঘরে এসেছিল, সেখানে মে মাসে পেট্রোল এবং ডিজেলের রাজস্ব বাবদ ২৯,৩৯৬ কোটি টাকা সরকারি কোষাগারে এসেছে৷ একদিকে চড়া হারে এক্সাইজ ডিউটি চাপানো এবং অন্যদিকে লকডাউন শিথিল হওয়ার পর মে মাসে জ্বালানির চাহিদা বৃদ্ধি পাওয়াতেই পেট্রোল ডিজেল থেকে রাজস্ব বাবদ সরকারের আয় তিন গুণ হয়েছে৷

প্রসঙ্গত, গত ৫ মে প্রতি লিটার পেট্রোলে ১০ টাকা এবং ডিজেলে ১৩ টাকা করে শুল্ক বৃদ্ধি করে সরকার৷ পেট্রোয়ালিয়াম জাত পণ্যের উপর চাপানো শুল্ক থেকে চলতি আর্থিক বর্ষে ২ লক্ষ ৪৮ হাজার কোটি টাকা আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷

লকডাউন শিথিল হওয়ার পরই মে মাসে ডিজেলের চাহিদা ১৬৯ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ৫৪.৯৫ লক্ষ মেট্রিক টন হয়েছে৷ এপ্রিল মাসে এই চাহিদা ছিল ৩২.৫০ লক্ষ মেট্রিক টন৷

অন্যদিকে মে মাসে পেট্রোলের চাহিদা ১৮২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়ে ১৭.৬৯ লক্ষ মেট্রিক টন হয়েছে৷ এপ্রিলে যা ছিল ৯.৭ লক্ষ মেট্রিক টন৷

করোনা পূর্ববর্তী সময়ে দেশে পেট্রোল ডিজেলের যে চাহিদা ছিল, লকডাউন শিথিল হওয়ার পর তার ৯০ শতাংশই স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 24, 2020, 8:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर