Home /News /business /
জ্বালানি আকাশছোঁওয়া; তবে কম দামে সেরা মাইলেজ দেবে এই ৫ গাড়ি!

জ্বালানি আকাশছোঁওয়া; তবে কম দামে সেরা মাইলেজ দেবে এই ৫ গাড়ি!

সমস্ত গাড়ির মাইলেজ পরিসংখ্যান ARAI প্রমাণিত। তবে তাদের প্রকৃত মাইলেজ কিছুটা কম হতে পারে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পেট্রোল ও ডিজেলের দাম বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে দেশে বৈদ্যুতিক ও সিএনজি গাড়ি তৈরি করতে শুরু করেছে গাড়ি নির্মাতারা। এছাড়া কোম্পানিগুলো জ্বালানি দক্ষতা বাড়াতে পেট্রোল ইঞ্জিনেও পরিবর্তন এনেছে। ২০২২ সালে দেশে পাওয়া যায় এমন ৫টি গাড়ির বিষয়ে জানব যা পেট্রোল ইঞ্জিনে সর্বোচ্চ মাইলেজ দেয়। সমস্ত গাড়ির মাইলেজ পরিসংখ্যান ARAI প্রমাণিত। তবে তাদের প্রকৃত মাইলেজ কিছুটা কম হতে পারে।

আরও পড়ুন: ট্যাক্স কমানোর পর পেট্রোল ও ডিজেলের নতুন রেট জারি, আপনার শহরে কত টাকা দাম কমল

১। মারুতি সুজুকি সেলেরিও (MARUTI SUZUKI CELERIO)

মারুতি সুজুকি দ্বিতীয় প্রজন্মের Celerio হ্যাচব্যাককে নতুন ডুয়ালজেট পেট্রোল ইঞ্জিনের সঙ্গে লঞ্চ করেছে। হ্যাচব্যাক দেশে বিক্রির জন্য সর্বোচ্চ মাইলেজের গাড়ি হয়ে উঠেছে। Celerio AMT ২৬.৬৮ kmpl-এর একটি ARAI প্রমাণিত মাইলেজ প্রদান করার দাবি করে, যেখানে ম্যানুয়াল মডেলে ২৫.২৪ kmpl-এর মাইলেজ পাওয়া যায়। Celerio-তে একটি ১.০ লিটার ডুয়ালজেট K১০ পেট্রোল ইঞ্জিন পাওয়া যায়, যা ৬৭ bhp শক্তি এবং ৮৯ Nm টর্ক জেনারেট করে।

২। হোন্ডা সিটি ই : এইচইভি (HONDA CITY E: HEV)

Honda সম্প্রতি তাদের নতুন City e: HEV লঞ্চ করেছে। এর প্রারম্ভিক মূল্য ১৯৪৯৯০০ টাকা। এই নতুন City e: HEV হল মেনস্ট্রিম সেগমেন্টের প্রথম গাড়ি যা শক্তিশালী হাইব্রিড বৈদ্যুতিক প্রযুক্তিতে তৈরি। City e: HEV হোন্ডার অনন্য সেল্ফ-চার্জিং এবং দুটি মোটর বৈদ্যুতিক হাইব্রিড সিস্টেমের সঙ্গে তৈরি। এই গাড়িতে ১.৫ লিটার অ্যাটকিনসন – সাইকেলযুক্ত DOHC i-VTEC পেট্রোল ইঞ্জিন রয়েছে। এই গাড়িটির মাইলেজ ২৬.৫ kmpl এবং অত্যন্ত কম দূষণের সঙ্গে বিশ্বের সেরা বৈদ্যুতিক-হাইব্রিড পারফরম্যান্স প্রদান করে এই গাড়িটি।

আরও পড়ুন: স্টিল স্টক নিয়ে শেয়ারবাজারে তোলপাড়, এই তীব্র পতনের কারণ কী?

৩। মারুতি ওয়াগন আর (MARUTI WAGON R)

মারুতি সুজুকি ওয়াগন আর-এ দেওয়া হয়েছে দুটি পেট্রোল ইঞ্জিন। একটি ১.০L NA পেট্রোল এবং একটি ১.২ L NA পেট্রোল ইঞ্জিন রয়েছে। গাড়িটি সিএনজি বিকল্পের সঙ্গে উপলব্ধ, যা ৩৪.০৫ কিমি মাইলেজ দেয় বলে দাবি করা হয়। AMT গিয়ারবক্স সহ Wagon R ১.০L-এ ২৫.১৯ kmpl-এর ARAI প্রমাণিত মাইলেজ প্রদান করে এবং ম্যানুয়াল সংস্করণ ২৪.৩৫ kmpl মাইলেজ দেয়।

৪। মারুতি ডিজায়ার (MARUTI DZIRE)

মারুতি সুজুকি গত বছর আপডেটেড ডিজায়ার চালু করেছিল। স্টার্ট-স্টপ ফাংশন সহ একটি নতুন ১.২L ডুয়ালজেট K১২N পেট্রোল ইঞ্জিন সহ এই মডেলটি এসেছে। এই মডেলটি ৯০ bhp এবং ১১৩ Nm টর্ক উৎপাদন করতে সক্ষম। ম্যানুয়াল এবং AMT গিয়ারবক্স উভয়ের সঙ্গেই পাওয়া যায়। AMT ভ্যারিয়েন্ট ম্যানুয়াল থেকে বেশি মাইলেজ দেয়। Dzire AMT ২৪.১২ kmpl মাইলেজ দেয় এবং ম্যানুয়াল ২৩.২৬ kmpl মাইলেজ দেয়।

আরও পড়ুন: মিউচুয়াল ফান্ড আর শেয়ার কি এক না আলাদা ?

৫। মারুতি সুইফট (MARUTI SWIFT)

ডিজায়ারের মতো, নতুন সুইফটেও একটি নতুন ৯০ bhp, ১.২ L ডুয়ালজেট পেট্রোল ইঞ্জিন আইডল স্টার্ট স্টপ প্রযুক্তি রয়েছে। AMT ভ্যারিয়েন্ট ২৩.৭৬ kmpl এর ARAI প্রমাণিত মাইলেজ দেয় এবং ম্যানুয়াল ভ্যারিয়েন্ট ২৩.২ kmpl মাইলেজ দেয়।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published:

Tags: Cars, Maruti Suzuki

পরবর্তী খবর