Home /News /business /
EXCLUSIVE: দ্বিগুণ বিমানবন্দর ও জাতীয় সড়ক, গ্রামে গ্রামে ইন্টারনেট, ১১টি শিল্প করিডোর সহ উন্নয়নের জোয়ার প্রধানমন্ত্রীর ‘গতিশক্তি প্রকল্প’ ঝুলিতে!

EXCLUSIVE: দ্বিগুণ বিমানবন্দর ও জাতীয় সড়ক, গ্রামে গ্রামে ইন্টারনেট, ১১টি শিল্প করিডোর সহ উন্নয়নের জোয়ার প্রধানমন্ত্রীর ‘গতিশক্তি প্রকল্প’ ঝুলিতে!

(REUTERS/Adnan Abidi)

(REUTERS/Adnan Abidi)

Pradhan Mantri GatiShakti Project: জাতীয় মাস্টার প্ল্যান আগামী ১৩ অক্টোবর উন্মোচন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)।

  • Share this:

AMAN SHARMA

#নয়াদিল্লি: প্রধানমন্ত্রী গতিশক্তি প্রকল্পের (Pradhan Mantri GatiShakti Project) জাতীয় মাস্টার প্ল্যান ১৩ অক্টোবর উন্মোচন করবেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। এই প্রকল্পের আওতায় ২০২৪-২৫-এর মধ্যে দেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং পরিকাঠামোকে আরও উন্নত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ২০২৪ সালে মসনদে ফিরে আসার জন্য নির্বাচনী প্রচারে গতিশক্তি প্রকল্প অন্যতম মূল প্রচার অভিযান হতে পারে। এটিকে শো-পিসের মতো প্রদর্শন করা যেতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে।

কী কী রয়েছে এই প্রকল্পের ঝুলিতে?

২ লক্ষ কিমি হাইওয়ে, ১,৬০০ মিলিয়ন টন পণ্যবাহী ট্রেন, গ্যাস পাইপ লাইনকে দ্বিগুণ বাড়িয়ে ৩৫,০০০ কিমি পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া, দেশের বিমানবন্দরের সংখ্যা মোট ২২০ পর্যন্ত পৌঁছানো, নতুন এয়ার স্ট্রিপ এবং এয়ারডোম, ১১টি করিডোর-সহ শিল্পের জন্য ২৫,০০০ একর জমি, প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদনে ১.৭ লক্ষ কোটি টাকার মোট আয়, ৩৮টি ইলেকট্রনিক্স উৎপাদন ক্লাস্টার এবং ১০৯টি ফার্মা ক্লাস্টার।

নিউজ১৮-এর (News18) পাওয়া একটি এক্সক্লুসিভ অফিসিয়াল বিবৃতি অনুযায়ী, "প্রস্তাবিত জাতীয় মাস্টার প্ল্যানে তিনটি ভাগে বিভক্ত সমস্ত বিদ্যমান এবং প্রস্তাবিত অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলিকে মাল্টিমোডাল কানেক্টিভিটি দ্বারা একটি প্ল্যাটফর্মে আনা হয়েছে। এই ভাগগুলি হল ২০১৪-১৫-এর অবস্থা, ২০২০-২১ পর্যন্ত সাফল্য এবং ২০২৪-২৫ পর্যন্ত প্রস্তুতি। মানুষ এবং পণ্য পরিষেবায় যোগাযোগ ব্যবস্থাকে উন্নত করতে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। এই একক বিস্তৃত মানচিত্র দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পরিকাঠামো উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলিতে সম্পূর্ণ হয়ে যাওয়া কাজের সময়সীমার তালিকাকে পাখির চোখে আমাদের সামনে তুলে ধরেছে।"

দফতর এবং দায়িত্ব

১৬টি কেন্দ্রীয় দফতরকে এই মাস্টার প্ল্যানের দায়িত্বে নেওয়া হয়েছে। ২০২৪-২৫ পর্যন্ত এই প্রকল্পে কোনও পরিবর্তন বা জরুরি উদীয়মান সমস্যা মেটাতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবের (Cabinet Secretary) সভাপতিত্বে প্রকল্পে যুক্ত সমস্ত বিভাগের একটি এমপাওয়ারড গ্রুপ অফ সেক্রেটারিজ (Empowered Group of Secretaries) বা EGoS তৈরি করা হবে।

প্রকল্পের প্রস্তাব এবং পরিকল্পনাকে একক ভাবে পরিচালনা করতে সিনিয়র কর্মকর্তাদের একটি মাল্টিমোডাল নেটওয়ার্ক প্ল্যানিং গ্রুপ (NPG) থাকবে। এই গ্রুপ পর্যবেক্ষণ করে দেখবে প্রধানমন্ত্রীর নতুন প্রকল্পের বাইরে ৫০০ কোটি টাকার পরিকাঠামো উন্নয়নের যে কাজ চলছে তার ডিপিআরগুলি (DPR) সম্পন্ন হয়েছে কি না!

গতিশক্তি প্রকল্পের মাস্টার প্ল্যান পরিকাঠামো মন্ত্রকের জন্য ২০২৪-২৫ পর্যন্ত লক্ষ্য স্থির করে দিয়েছে। যেমন সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক মন্ত্রণালয়ের লক্ষ্য ২ লক্ষ কিমি জাতীয় সড়ক বানানো, উপকূলীয় অঞ্চলে ৫,৫৯০ কিমি চার বা ছয় লেনের জাতীয় সড়ক নির্মাণ এবং উত্তর-পূর্বের সবকটি রাজ্যের রাজধানীকে চার-লেন বা দুই-লেন জাতীয় সড়ক দ্বারা সংযুক্ত করা।

রেল মন্ত্রকের দায়িত্ব হল, ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ১২১০ মিলিয়ন টন থেকে ১৬০০ মিলিয়ন টন পণ্য পরিবহণ করার পরিকাঠামো প্রস্তুত করা। দু'টি নতুন ডেডিকেটেড ফেরি করিডোর (DFCs) এবং অতিরিক্ত লাইন যোগ করে রেলে নেটওয়ার্কে চাপ ৫১% পর্যন্ত কমিয়ে আনা।

সরকারি এবং প্রাইভেট পার্টনারশিপকে আরও মজবুত করতে ৪,০০০ কিমির পূর্ব-পশ্চিম, উত্তর-দক্ষিণ এবং পূর্ব উপকূলীয় DFCs নির্মাণের বিস্তারিত প্রকল্প রিপোর্ট বানানো হবে।

বেসামরিক বিমানের ক্ষেত্রে, বর্তমানে বিদ্যমান বিমানবন্দরের সংখ্যাকে দ্বিগুণ করে ২০২৫ সালের মধ্যে ২২০ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ, লক্ষ হল ১০৯টি নতুন বিমানবন্দর।

শিপিং-এর ক্ষেত্রে মাস্টার প্ল্যানের টার্গেট হল ২০২৪-২৫ এর মধ্যে বন্দরগুলিতে পণ্য সামগ্রী পরিবহণ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি করা। ২০২০ সালের বর্তমান পরিবহন ক্ষমতা ১,২৮২ MMTPA থেকে ১,৭৫৯ MMTPA পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া। জলপথের ৭৪ মিলিয়ন টন থেলে ৯৫ মিলিয়ন টন পৌঁছানো এবং গঙ্গা নদীতে পণ্য পরিচালন ক্ষমতা ৯ মিলিয়ন টন থেকে এক লাফে বাড়িয়ে ২৯ মিলিয়ন টন অবধি নিয়ে যাওয়া।

অতিরিক্ত ১৭,০০০ কিমি লম্বা গ্যাস পাইপলাইন বানিয়ে দেশের পাইপলাইন নেটওয়ার্ককে দ্বিগুণ করে ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ৩৪,৫০০ কিমি অবধি তৈরি করা হবে। ২০২৭-এর মধ্যে দেশের সমস্ত রাজ্যকে ন্যাচরাল গ্যাস পাইপ লাইন নেটওয়ার্কের (Natural Gas Pipeline Network) সঙ্গে যুক্ত করা এই মাস্টার প্ল্যানের অন্যতম লক্ষ্য।

বৈদ্যুতিক ক্ষেত্রে ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্ককে বাড়িয়ে ৪.৫৫ লক্ষ সার্কিট কিমি পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া হবে। পুনর্নবীকরণযোগ্য শক্তি ক্ষমতা বর্তমানের ৮৭.৭ GW থেকে বাড়িয়ে ২২৫ GW করা হবে। ২০২৪ সালের মধ্যে দেশের ৩৫% বিদ্যুৎ এই চ্যানেল থেকেই উৎপন্ন করা হবে।

টেলিকমিউনিকেশন বিভাগের ক্ষেত্রে, ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ৫ লক্ষ কিমি অপটিক্যাল ফাইবার নেটওয়ার্ক (OFC) বসানো হবে। যা ২০২৩ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি গ্রামকে একটি নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত করবে এবং ২০২২ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি মানুষ 4G সুবিধা পাবে।

লক্ষ্যমাত্রা এবং বিনিয়োগ

প্রধানমন্ত্রী গতিশক্তি জাতীয় মাস্টার প্ল্যানের অর্থনৈতিক ক্ষেত্রের মন্ত্রণালয়গুলির জন্য ২০২৪-২৫ সাল অবধি লক্ষ্য নির্ধারণ করে দিয়েছে। প্রতিরক্ষা সামগ্রী উৎপাদন বৃদ্ধি করে উত্তরপ্রদেশে, তামিলনাড়ুতে দু'টি প্রতিরক্ষা করিডোর নির্মাণ করা হবে। এই দু'টিতে মোট ১০,০০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হবে। ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে মোট আয় ১,৭০,০০০ কোটি পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে যার মধ্যে ২০২৫ সালের মধ্যে ৩৫,০০০ কোটি টাকা মূল্যের মহাকাশ এবং প্রতিরক্ষা সামগ্রী রপ্তানিও রয়েছে।

সরকার মোট ২৫,০০০ একর জমি এবং ১১টি শিল্প করিডোর উন্নয়ন করার লক্ষ্য স্থির করেছে।

“উদ্দেশ্য হল শিল্পের জন্য মানসম্মত, নির্ভরযোগ্য এবং স্থিতিস্থাপক পরিকাঠামো নির্মাণ করা করা,” নিউজ ১৮-এর পাওয়া জাতীয় মাস্টার প্ল্যানের বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

গতিশক্তি প্রকল্পের অন্যতম লক্ষ্য হল, ২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ৩৮টি ইলেকট্রনিক্স উৎপাদন ক্লাস্টার তৈরি করা। এই ক্লাস্টারগুলিতে মোট ১৫ লক্ষ উৎপাদন কোটির উৎপাদন করা হবে। ৩৮-এর লক্ষ্যে পৌঁছতে প্লাগ অ্যান্ড প্লে সুবিধাসহ মোট ২৮টি নতুন ক্লাস্টার তৈরি করা হবে।

২০২৪-২৫ সালের মধ্যে ফার্মা এবং মেডিকেল ডিভাইজ ক্লাস্টারের সংখ্যা ১০৯ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। প্রতিটিতে ২০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করে ১০টি ফার্মা ক্লাস্টার তৈরি করা হবে। তিনটি বাল্ক ড্রাগ পার্ক এবং চারটি মেডিকেল ডিভাইজ পার্ক স্থাপন করা হবে যা বিদেশ থেকে আমদানি করা চিকিৎসা সামগ্রীর ওপর নির্ভরশীলতা কমিয়ে আনবে।

২০১৫ সালের মধ্যে দেশে দেশে মোট ৯০টি টেক্সটাইল ক্লাস্টার বা পার্ক থাকবে বলে পরিকল্পনা করা হয়েছে।

Published by:Siddhartha Sarkar
First published:

Tags: PM Modi

পরবর্তী খবর