• Home
  • »
  • News
  • »
  • business
  • »
  • Investment Tips: ২০২২ হোক সুরক্ষিত, এক নজরে দেখে নিন নতুন বছরে কোথায় কোথায় বিনিয়োগ করা দরকার!

Investment Tips: ২০২২ হোক সুরক্ষিত, এক নজরে দেখে নিন নতুন বছরে কোথায় কোথায় বিনিয়োগ করা দরকার!

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই সকল গুরুত্বপূর্ণ বিমা প্ল্যানের বিষয়ে।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই সকল গুরুত্বপূর্ণ বিমা প্ল্যানের বিষয়ে।

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই সকল গুরুত্বপূর্ণ বিমা প্ল্যানের বিষয়ে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আসতে চলেছে নতুন বছর ২০২২ সাল। প্রায় সকলেরই নতুন বছরের কিছু না কিছু প্ল্যান থাকে। কিন্তু নতুন বছরের জন্য সবার আগে যে প্ল্যানটি করা দরকার, সেটি হল ফিনান্সিয়াল প্ল্যান। কোথায় টাকা বিনিয়োগ করলে ভবিষ্যতে ভালো রিটার্ন পাওয়া সম্ভব, তার প্ল্যান করার সঙ্গে সঙ্গে কয়েকটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিমা প্ল্যানেও বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। এক নজরে দেখে নেওয়া যাক সেই সকল গুরুত্বপূর্ণ বিমা প্ল্যানের বিষয়ে।

আরও পড়ুন: সঞ্চয়ের বিশ্বস্ত মাধ্যম, পোস্ট অফিসের এই স্কিমে ৬০ মাসে ১০ লাখ টাকা হয়েছে ১৪ লাখ টাকা!

দুর্ঘটনার জন্য বিমা

বর্তমানে যে কোনও সময় ঘটে যেতে পারে যে কোনও ধরনের দুর্ঘটনা। সেই সকল দুর্ঘটনায় অল্প আহত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটতে পারে বড় ধরনের সমস্যা। অঙ্গহানি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অনেক সময় মৃত্যু পর্যন্ত ঘটে যেতে পারে। সুতরাং আচমকা ঘটে যাওয়া এই সকল দুর্ঘটনা থেকে বাঁচার জন্য যেমন সতর্ক হওয়ার প্রয়োজন রয়েছে, তেমনই এই সকল দুর্ঘটনা ঘটে গেলে তার থেকে বাঁচার জন্য বিমা করার প্রয়োজন রয়েছে। দুর্ঘটনার ফলে নিজেদের কিছু হয়ে গেলে পরিবারকে বাঁচাতে সাহায্য করবে সেই বিমা। তাই ২০২২ সালের শুরুতেই এই ধরনের বিমায় বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। এই ধরনের ৬০ লাখ টাকার বিমা করার জন্য প্রতি বছরে প্রায় ৯,০০০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে হবে।

আরও পড়ুন: সোনায় বিনিয়োগ করার এটাই সেরা সময়, কেন এখন বিনিয়োগ করা উচিত

স্বাস্থ্যবিমা

করোনা মহামারী আমাদের সকলকে দেখিয়ে দিয়েছে যে রোগের সামনে আমরা কতটা অসহায়। এর ফলে সবার শুরুতেই করা দরকার স্বাস্থ্যবিমা। এটি একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিমা। চিকিৎসার খরচ যখন দিন দিন বেড়ে চলেছে তখন এই ধরনের জীবন বিমা সকলকে কিছুটা সাহায্য করতে পারে। তাই ২০২২ সালের শুরুতেই এই ধরনের বিমায় বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। এই ধরনের ৫ লাখ টাকার বিমা করার জন্য প্রতি বছরে প্রায় ৭,৫০০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে হবে।

জীবন বিমা

যাদের আয়ের ওপরে তার পরিবার নির্ভর করে রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হল জীবন বিমা। নিজেদের পরিবারের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করার জন্য এই ধরনের জীবন বিমায় বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। তাই ২০২২ সালের শুরুতেই এই ধরনের বিমায় বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। এই ধরনের ৭৫ লাখ টাকার বিমা করার জন্য প্রতি বছরে প্রায় ১০,০০০ টাকা থেকে ১২,০০০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে হবে।

কন্টিজেন্সি ফান্ড

করোনা মহামারীর সময় প্রায় অনেকেই তাদের চাকরি হারিয়েছে। এরকম সময়ে নিজেদের জীবন বাঁচানোর জন্য দরকার পড়ে টাকার। এক্ষেত্রে খুবই গুরুত্বপূর্ণ হল এই ধরনের কন্টিজেন্সি ফান্ড। নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী এই ধরনের ফান্ডে বিনিয়োগ করা দরকার। বিপদের সময় কাজে লাগবে এই ধরনের ফান্ড। তাই ২০২২ সালের শুরুতেই এই ধরনের ফান্ডে বিনিয়োগ শুরু করা দরকার।

আরও পড়ুন: Bank Holidays in January 2022: ২০২২ জানুয়ারিতে ১০ দিন বন্ধ ব্যাঙ্ক! জেনে নিন কোন কোন দিন ছুটি থাকছে ব্যাঙ্ক

হোম লোনের বদলে বিনিয়োগ

নিজেদের স্বপ্নের বাড়ি তৈরি করার জন্য অনেকেই হোম লোন নিয়ে থাকে। কিন্তু সেই সকল হোম লোনের সুদের পরিমাণ অনেক বেশি হয়। কিন্তু হোম লোন না নিয়ে আগে থেকেই যদি প্ল্যান করে প্রতি মাসে বিনিয়োগ করা শুরু করা যায়, তাহলে নিজেদের জমানো টাকাতেই বাড়ি তৈরি করা যাবে। এক্ষেত্রে সবথেকে ভালো হল সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যানে (SIP) বিনিয়োগ শুরু করা। তাই নিজেদের স্বপ্নের বাড়ির জন্য ২০২২ সালের শুরুতেই এই ধরনের বিনিয়োগ শুরু করা দরকার। এছাড়াও ২০২২ সালের শুরু থেকেই নিজেদের বিয়ের খরচের জন্য এবং অবসরের জন্য বিনিয়োগ শুরু করা দরকার।

Published by:Dolon Chattopadhyay
First published: