Home /News /alipurduar /
Alipurduar: হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস বিষয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কর্মশালা কালচিনিতে

Alipurduar: হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস বিষয়ে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কর্মশালা কালচিনিতে

title=

হাইপারটেনশন, ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এই রোগের চিকিৎসার আগে জনমানসের মধ্যে রোগ সম্পর্কে জানার প্রয়োজনীয়তা সবচেয়ে বেশি।

  • Share this:

    #আলিপুরদুয়ার : হাইপারটেনশনডায়াবেটিস রোগে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রতিনিয়ত। এই রোগের চিকিৎসার আগে জনমানসের মধ্যে রোগ সম্পর্কে জানার প্রয়োজনীয়তা সবচেয়ে বেশি। তাদের সচেতন করার কাজ স্বাস্থ্যকর্মীদের। এই লক্ষ্যে কালচিনি ব্লক স্বাস্থ্য দফতরের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে কর্মশালা শুরু হয়েছে।কালচিনি লতাবাড়ি গ্ৰামীণ হাসপাতালের সভা কক্ষে স্বাস্থ্যকর্মীদের নিয়ে তিনদিনের কর্মশালা আয়োজিত হয়েছে। আগামী তিন দিন স্ব‍াস্থ‍্যকর্মীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে বলে জানান বিএমওএইচ ডাঃ সুভাষ কুমার কর্মকার। এদিনের কর্মশালায় ডেপুটি মুখ‍্য স্ব‍্যস্থ আধিকারিক,ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। এই বিষয়ে বিএমওএইচ ডাঃ সুভাষ কুমার কর্মকার জানান, বেশি লবণ গ্রহণ, অতিরিক্ত মেদ, কাজের চাপ, মদ্যপান, পরিবারের আকার, অতিরিক্ত আওয়াজ এবং ঘিঞ্জি পরিবেশে থাকা হাইপারটেনশনের কারণ।

     

     

    উচ্চমাত্রার লবণের ব্যবহার এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি মনোযোগ আকর্ষণ করেছে। ধারণা করা হয় প্রায় শতকরা ৬০ ভাগ রোগী লবণের ব্যবহার দ্বারা প্রভাবিত হন।উচ্চ রক্তচাপ আলাদাভাবে কোন অসুস্থতা নয়, কিন্তু প্রায়ই এর চিকিৎসা প্রয়োজন হয় কারণ শরীরের অন্যান্য অঙ্গের ওপর এর স্বল্প থেকে দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব পড়ে। বিশেষত স্ট্রোক, হার্ট ফেইলিউর, হৃদক্রিয়া বন্ধ, চোখের ক্ষতি এবং বৃক্কের বিকলতা ইত্যাদি রোগের ঝুঁকি অনেক বেড়ে যায়।

    আরও পড়ুনঃ কালচিনিতে শীঘ্রই চালু হতে চলেছে আইটিআই কলেজ

     

     

    নানা ধরনের ফাস্ট ফুড ক্যান ফুড এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন বিএমওএইচ।ঝাপসা দৃষ্টি, ছানি, গ্লুকোমা, দুর্বল ক্ষত নিরাময়ে দেরি, ক্লান্তি, ঘন ঘন মাথাব্যথা, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা হ্রাস, দ্রুত হৃদস্পন্দন, ঘন ঘন প্রস্রাব ডায়াবেটিসের লক্ষণ হতে পারে। এসব সমস্যা দেখা দিলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে হবে।

    আরও পড়ুনঃ আলিপুরদুয়ারে স্বাধীনতা দিবসের আগে বর্ণাঢ্য র‍্যালি

     

     

    বিএমওএইচ ডাঃ সুভাষ কর্মকার জানান,\"ব্লকে 262 জন হাইপারটেনশন সমস্যায় ভুগছেন।একটা সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে ৩০ বছরের ঊর্ধ্বে অনেকে হাইপারটেনশন ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত।এই রোগ নিরাময়ে কি কি করণীয় এই নিয়ে তিনদিনের কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে।তিনি আশা রাখছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা জনসাধারণকে বোঝাতে অগ্রণী ভূমিকা নেবে।

     

     

     

    Annanya Dey

    Published by:Soumabrata Ghosh
    First published:

    Tags: Alipurduar, Kalchini

    পরবর্তী খবর