কোভিড জয়ী হোম আবাসিক ও দিব্যাঙ্গদের সম্বর্ধনা জানাল নিমতৌড়ী হোম কর্তৃপক্ষ

Bangla Digital Desk | News18 Bangla | 09:37:47 AM IST May 29, 2021

একদিকে ৮০ থেকে ১০০ শতাংশ প্রতিবন্ধকতা, অন্যদিকে শরীরে নানান রোগে আক্রান্ত এই সব নিয়ে নিমতৌড়ী হোমে এদের আশ্রয়, আস্তে আস্তে করে প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে লেখাপড়া, খেলাধূলা, গানবাজনা, হাতের কাজ শেখার সাথে সাথে শরীরে অনান্য রোগ গুলো চিকিৎসার মাধ্যমে কমতে থাকলেও একেবারে সম্পূর্ন সেরে উঠেনি কেউই তবে সব মিলিয়ে ওরা হোমে বেশ ভালই ছিল, জেলা প্রশাসনের তদারকি রাজ্য সমাজ কল্যান দপ্তরের আর্থিক সহায়তায় এই ভাবে হোমে সুরক্ষা, সামাজিক অগ্রগতি হচ্ছিল ওদের।

হঠাৎ করে কোন ভাবেই ওরা কোভিডে আক্রান্ত হয়। নাই নাই করে প্রায় ২৮ জন হোম আবাসিক ও দিব্যাঙ্গরা আক্রান্ত। মালেখা, সুমি, শ্রীমা, শম্পা, পার্বতী, কাকলি, প্রিয়াংকা, বর্ষা ওদের মধ্যে কেউ দেখতে পায় না, কেউ কথা বলতে পারে না কেউ আবার মানসিক প্রতিবন্ধী আবার কারোর বা হাত নাই পা দিয়ে সব করতে হয়। ওদের পজিটিভ হওয়ায় ভীষণ সমস্যার সম্মুখিন হয় হোম পরিচালন কর্তৃপক্ষকে। উপস্বর্গ দেখা দেওয়া মাত্র পরীক্ষায় দু-এক জন পজিটিভ হতেই জেলার সমাজ কল্যান আধিকারীক মহাশয়ের সঙ্গে আলোচনা করে ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের ব্যবস্থাপনায় হোম ক্যাম্পাসে ১১৭ জন আাবসিক ও কর্মীর করোনা পরীক্ষা করা হয়। আর তাতেই ধরা পড়ে পজিটিভের সংখ্যা।

নিজেদের গড়ে তোলা সেফ হোমে ওদের স্থানান্তরিত করা হয়, শুরু হয় করোনা স্বাস্থ্য বিধি মতো চিকিৎসা, সেবা করে হোমের নার্স শ্যামলী পাল, মৌমিতা সামন্ত, বন্দনা দিন্ডা, রুপশ্রী, সুমৌ, সুস্মিতা, সুমিতারা সাহসের সঙ্গে সাহায্য করল। হোমের সকল কর্মীর প্রচেষ্ঠায় ১০ দিনের ঔষধ, খাওয়ার দেওয়া সবটাই হোমের কর্মীরা সাবধান সর্তকতার সঙ্গে করে করোনাকে পরাজিত করে জয়ী হল ওরা।

হোমের সাধারন সম্পাদক যোগেশ সামন্ত জানান, "ভীষণ ভয় পেয়ে গিয়ে ছিলাম আমরা কিন্তু মনে জোর আর সাহসের সঙ্গে হোমের কর্মীদের মনো বল বাড়ানোর চেষ্টা করি, তাদের সেবার মন্ত্রে দিক্ষিত করে সাহস জোগিয়ে পজিটিভ কেশ গুলোর সেবা করার পরামর্শে ও অনান্যদের লক্ষ নজর রেখে আমরা সফল হলাম আর করোনা স্বাস্থ্যবিধি এবং চিকিৎসা ব্যাবস্থাপনাকে তাচ্ছিল্ল না করো ১০০% কাজে লাগিয়ে কোভিড জয়ের ফল পেলাম। আবাসিকরা শুধু প্রতিবন্ধী নয় শারিরীক ভাবেও ভীষণ দুর্বল ছিল ভয় থাকলেও বিশ্বাস ছিল চিকিৎসা শাস্ত্রে এবং ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারীকের উপর ভরসা রেখে সবাই এখন করোনা মুক্ত এদের এই জয়ে আমারা খুশি তাই আজ কোভিড জয়ীদের সাথে সাথে স্বাস্থ্য সেবীকা ও নার্সদের ফুল মিষ্টির প্যাকেট দিয়ে সম্বর্ধনা জানানো হল হোম পরিচালন কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে। হোমের অনান্যদেও আবাসেকদের মিষ্টি মুখ করানো হয়।

আমাদের বিশ্বাস ভয় না করে উপসর্গ থাকলে সময় মতো পরীক্ষা এবং সাবধান সর্তকতার সঙ্গে চিকিৎসা করলে করোনা শুধু সারবে তা নয়, করোনার প্রকোপ কমবে তাই করোনার স্বাস্থ্য বিধি মানাটা আমাদের সকলের একান্ত জরুরী। মাস্ক, স্যানিটাইজার ও শারীরিক দুরত্ব বজায় রাখা একান্ত আবশ্যক।  স্বাস্থ্য বিভাগ ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারীক, স্বাস্থ্য কর্মী ও জেলা সমাজ কল্যান আধিকারীক মহাশয়কে ধন্যবাদ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি এভাবেই সচেতনতার মধ্যদিয়ে আগামীদিনে যে কোন মহামারিকে শুধু নয় যেকোন বিপর্যয়কে জয় করতে পারবে এবিশ্বাস আমাদের মধ্যে তৈরী হয়েছে।"

সেই সঙ্গে সঙ্গে বিশ্বে কোভিড যুদ্ধে সকল ডাক্তার, নার্স, পরিবহন কর্মী, এ্যাম্বুলেন্স কর্মীদের সম্মান জানানো হয় এবং কোভিডে মৃতদের আত্মার শান্তি কামনা করে ১মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

লেটেস্ট ভিডিও