হোম /খবর /পশ্চিম বর্ধমান /
মৃত কনস্টেবলকে শেষ শ্রদ্ধা, কফিনবন্দী দেহ গেল উত্তরপ্রদেশের বাড়ি

Paschim Bardhaman News: মৃত কনস্টেবলকে শেষ শ্রদ্ধা, কফিনবন্দী দেহ গেল উত্তরপ্রদেশের বাড়ি

X
title=

সহকর্মীকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানানো। শ্রদ্ধা জানানো হল সহকর্মীর কফিনবন্দি দেহে। তারপর মৃত পুলিশকর্মী বাবাকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরপ্রদেশের বাড়ির দিকে রওনা দিলেন ছেলে। অ্যাম্বুলেন্সে করে কফিনবন্দী মৃত কনস্টেবল সময়লাল কুর্মির দেহ গেল উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড়ের বাড়িতে।

আরও পড়ুন...
  • Hyperlocal
  • Last Updated :
  • Share this:

#কুলটি : সহকর্মীকে শেষবারের মতো শ্রদ্ধা জানানো। শ্রদ্ধা জানানো হল সহকর্মীর কফিনবন্দি দেহে। তারপর মৃত পুলিশকর্মী বাবাকে সঙ্গে নিয়ে উত্তরপ্রদেশের বাড়ির দিকে রওনা দিলেন ছেলে। অ্যাম্বুলেন্সে করে কফিনবন্দী মৃত কনস্টেবল সময়লাল কুর্মির দেহ গেল উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড়ের বাড়িতে। তার আগে চৌরঙ্গী ফাঁড়িতে কর্তব্যরত অবস্থায় মৃত্যু হওয়া পুলিশ কনস্টেবল সময়লাল কূর্মিকে শ্রদ্ধা জানালেন থানার আধিকারিক সহ অন্যান্য সহকর্মীরা। দেহ যখন অ্যাম্বুলেন্সে করে উত্তরপ্রদেশের বাড়ির দিকে রওনা দিচ্ছে, তখন থানার সকলের মন ভার। কোনও কোনও সহকর্মীর চোখের কোনে জল।

প্রসঙ্গত, চৌরঙ্গি ফাঁড়ির কনস্টেবল সময়লাল কূর্মি কর্তব্যরত অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেছেন। জানা গিয়েছে, যখন রাস্তার ধারে চৌরঙ্গী ফাঁড়ির এই কনস্টেবল ডিউটি করছিলেন, তখন বেপরোয়া দ্রুতগামী একটি চার চাকা গাড়ি এসে তাকে ধাক্কা মারে। ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন তিনি। অন্যান্য সহকর্মীরা সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে দুর্গাপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসা চলাকালীন মৃত্যু হয় কনস্টেবল সময়লাল কুর্মীর। তারপর এদিন চৌরঙ্গী ফাঁড়িতে এসে শেষ শ্রদ্ধা জানিয়ে মৃত কনস্টেবল এর পরিবারের লোকজন কফিন বন্দি দেহটি অ্যাম্বুলেন্সে করে উত্তরপ্রদেশের বাড়ির দিকে নিয়ে রওনা দিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ মর্মান্তিক! ফাঁকা অক্সিজেন সিলিন্ডারে রোগীর মৃত্যু দুর্গাপুরে

জানা গিয়েছে, মৃত কনস্টেবল সময়লাল কুর্মি উত্তর প্রদেশের প্রতাপগড়ের বাসিন্দা। বছর বয়স ৪৭ এর ওই পুলিশ কর্মীকে নিয়ামতপুর রেড লাইট এরিয়ার দিক থেকে একটি দ্রুতগামী গাড়ি এসে থাকে ধাক্কা মারে। গাড়িটি কর্ণাটকের নম্বরে রেজিস্টার রয়েছে। ঘাতক গাড়িটিকে আটক করা হলেও, এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি। তবে চালকের খোঁজে তল্লাশি চলছে। অন্যদিকে দীর্ঘ সহকর্মীকে এদিন চৌরঙ্গী ফাঁড়ির আধিকারিকরা চোখের জলে বিদায় জানিয়েছেন।

Nayan Ghosh
Published by:Soumabrata Ghosh
First published:

Tags: Asansol, Kulti, Paschim bardhaman