Home /News /west-bardhaman /
Maitri Utsab : নানান নৃত্যের আঙ্গিকে দুর্গাপুরে আয়োজিত মৈত্রী উৎসব

Maitri Utsab : নানান নৃত্যের আঙ্গিকে দুর্গাপুরে আয়োজিত মৈত্রী উৎসব

সৃজনী

সৃজনী প্রেক্ষাগৃহে মৈত্রী উৎসবের নাচের একটি দৃশ্য।

শহরের নৃত্য সংস্কৃতিকে এক ছাতার তলায় তুলে আনতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। দুর্গাপুর টাউন নাগরিক ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে মৈত্রী উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল।

  • Share this:

    দুর্গাপুর, পশ্চিম বর্ধমান : শহরের সংস্কৃতির মিলন ঘটাতে দুর্গাপুরে আয়োজিত হয়েছিল মৈত্রী উৎসব। শহরে প্রথমবারের জন্য এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে অংশগ্রহণ করেছিলেন দুর্গাপুর পুরসভার অধীনে থাকা ৪৩ টি ওয়ার্ডের সমস্ত নৃত্য শিল্পীরা। মৈত্রী উৎসবের মঞ্চে ক্লাসিক্যাল থেকে রবীন্দ্র, নজরুল নৃত্য, ফোক ড্যান্স এবং আধুনিক নৃত্য প্রদর্শন করানো হয়েছে। শহরের নৃত্য সংস্কৃতিকে এক ছাতার তলায় তুলে আনতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল।

    দুর্গাপুর টাউন নাগরিক ওয়েলফেয়ার সোসাইটির উদ্যোগে মৈত্রী উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল। দুদিনের জন্য আয়োজিত হয়েছিল এই অনুষ্ঠান। প্রথমবারের জন্য আয়োজিত এই মৈত্রী উৎসব ২০২২ কে কেন্দ্র করে শিল্পীদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী নৃত্যশিল্পীদের সংখ্যাও ছিল চোখে পড়ার মতো। দুদিনের এই অনুষ্ঠানে ১৪০ টি নাচের গ্রুপ অংশগ্রহণ করেছিল। যার মধ্যে প্রথম দিন অংশগ্রহণ করেছিল ৮০ টি নাচের গ্রুপ। অনুষ্ঠানের প্রথম দিনে সৃজনী প্রেক্ষাগৃহে তারা তাদের নৃত্য প্রদর্শন করেছেন।

    আরও পড়ুন- ম্যানুফ্যাকচারিং টেকনোলজিতে ভবিষ্যৎ গড়তে চান? রয়েছে দারুণ সুযোগ!

    আরও পড়ুন- অপরাধীদের যম যিনি, তিনি অর্ণবের ভগবান! মানবিকতার এ এক অনন্য নজির দুর্গাপুরে!

    দ্বিতীয় দিনের মৈত্রী উৎসবে অংশগ্রহণ করেছিল ৬০ টি নাচের গ্রুপ। তারাও সৃজনী প্রেক্ষাগৃহে তাদের নৃত্যের মাধ্যমে দর্শকদের মনোরঞ্জন করেছেন। মৈত্রী উৎসবের মঞ্চে এক ছাতার তলায় এই দুদিনে ফুটে উঠেছে নৃত্যের নানারকম কালচার। মৈত্রী উৎসব সম্পর্কে দুর্গাপুরের মেয়র অনিন্দিতা মুখার্জি বলেছেন, শহর দুর্গাপুর আস্তে আস্তে সংস্কৃতির শহর হয়ে উঠছে। শহরের সাংস্কৃতিক মনোভাবকে আরও জাগিয়ে তুলতে, শহরের নানা প্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বিভিন্ন প্রতিভাকে তুলে আনতে, বিভিন্ন জায়গার কালচারকে এক জায়গায় তুলে আনতে এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল। যা সত্যিই প্রশংসনীয়।

    Nayan Ghosh

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Durgapur, West Bardhaman

    পরবর্তী খবর