Home /News /uncategorized /

আজকের কাগজের সেরা খবর

আজকের কাগজের সেরা খবর

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    প্রতিদিনের ব্যস্ততায় খবর কাগজ খুঁটিয়ে পড়া সম্ভব হয় না ৷ অনেক সময় গুরুত্বপূর্ণ খবর চোখ এড়িয়ে যায় ৷ তাছাড়া একাধিক কাগজও পড়ার মতো সময় কারোর হাতেই নেই ৷ তাই আসুন এক নজরে, একজায়গায় দেখে নিন কলকাতার বিভিন্ন কাগজের সেরা খবর গুলি ৷ মঙ্গলবারের গুরুত্বপূর্ণ খবরগুলি হল-

    anandabazar11

    ১) ধাক্কা দিল্লির, চিনের চোখে পাকিস্তান সন্ত্রাসের শিকার ব্রিকস সম্মেলন শেষ হওয়ার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই পাকিস্তানের সমর্থনে সরাসরি নেমে পড়ল চিন। নরেন্দ্র মোদী পাকিস্তানকে সন্ত্রাসের জন্মদাত্রী হিসেবে তুলে ধরলেও বেজিং আজ সরকারি ভাবে বুঝিয়ে দিয়েছে, তারা সে কথা বলতে রাজি নয়। চিনা বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র হুয়া চুনইংয়ের মন্তব্য, ‘‘সন্ত্রাসবাদকে কোনও একটা বিশেষ দেশ, ধর্ম বা জাতির সঙ্গে জুড়ে দেখতে চায় না বেজিং। সবাই জানে, ভারত আর পাকিস্তান— দু’টো দেশই সন্ত্রাসের শিকার। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়তে পাকিস্তান অনেক পদক্ষেপ করছে, অনেক মূল্য দিতে হচ্ছে তাদের।’’ পাকিস্তানের এই ভূমিকাকে ‘আন্তর্জাতিক মহলের সম্মান জানানো উচিত’ বলেই মন্তব্য করেছেন তিনি। বিশদে পড়ুন..............

    ২) পরিবারকে আর্থিক সাহায্যেরও আশ্বাস,মিতার মৃত্যুর সিআইডি তদন্তের নির্দেশ মমতার দিন সাতেক আগে অস্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছিল উলুবেড়িয়ার কুশবেড়িয়ার বধূ মিতা মণ্ডলের। খুনের অভিযোগ দায়ের হওয়ায় তাঁর স্বামী ও শ্বশুরকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। পলাতক ছিলেন শাশুড়ি ও দেওর। সোমবার ঘটনার তদন্তভার সিআইডিকে দেওয়ার নির্দেশ দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিনই রাতে কোলাঘাটে এক আত্মীয়ের বাড়ি থেকে দেওর রাহুল মণ্ডল গ্রেফতার হয়। বিশদে পড়ুন..............

    ৩) নাটকীয় দিনে মুক্তি নয়, শর্তসাপেক্ষ জীবন পেল বোর্ড একটা টেস্ট ম্যাচ যে ভাবে তার রং পাল্টায়, যে ভাবে সে চতুর্থ দিনে শেষ হয়ে যাওয়ার প্রভূত ইঙ্গিত দিয়ে অপ্রত্যাশিত চমকে চলে যায় পঞ্চম দিনের অন্তিম সেশনে, সুপ্রিম কোর্টে ভারতীয় বোর্ড বনাম লোঢা কমিশন যুদ্ধকে ঠিক যেন তেমনই দেখাচ্ছে। সোমবার দুপুর দু’টোর আগে পর্যন্ত বোর্ডের যে পর্যদুস্ত দশা ছিল, তা বোধহয় ভারত সফররত কেন উইলিয়ামসনের টিমের চেয়েও খারাপ। ফলো অন খেয়ে আট উইকেট চলে গিয়েছে। হার এবং হারই একমাত্র ভবিতব্য। এবং শেষ দু’টো উইকেটও যাবে, পড়বে যে কোনও সময়। বিশদে পড়ুন..............

    ৪) ভোট ১৯ নভেম্বর, উপনির্বাচনে তমলুকে অধিকারী-রাজই উৎসবের মরসুম শেষ হলেই রাজ্যে দুই লোকসভা ও একটি বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনে যাচ্ছে নির্বাচন কমিশন। তমলুক ও কোচবিহার লোকসভা এবং বর্ধমানের মন্তেশ্বর বিধানসভা আসনে আগামী ১৯ নভেম্বর উপনির্বাচনের ঘোষণা হয়ে গেল সোমবার। ভোট গণনা হবে ২২ নভেম্বর। কমিশন দিনক্ষণ জানানো মাত্রই তৃণমূল দুই কেন্দ্রে তাদের প্রার্থীর নাম জানিয়ে দিয়েছে। বিরোধীরা অবশ্য এখনও নাম ঠিক করে উঠতে পারেনি। উপনির্বাচনে এমনিতেই শাসক দলের পক্ষে পরিস্থিতি সুবিধাজনক থাকে। দ্রুত প্রার্থী ঘোষণা করে শাসক দল প্রস্তুতি পর্বেও বিরোধীদের চেয়ে প্রাথমিক ভাবে এগিয়ে গেল। বিশদে পড়ুন..............

    bartaman_big11

    ১) ২০ তারিখে সিঙ্গুরে জমি বিলি ও চাষের সূচনা করবেন মমতা চাষিদের হাতে জমি ফিরিয়ে দিতে আগামী ২০ অক্টোবর, বৃহস্পতিবার দুপুরে ফের সিঙ্গুর যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত ১৪ সেপ্টেম্বর সিঙ্গুরে গিয়ে অনুষ্ঠান মঞ্চে উঠেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। চাষের সূচনায় বৃহস্পতিবার তিনি চাষিদের সঙ্গে সিঙ্গুরের জমিতে নামবেন। ওইদিনও অবশ্য সিঙ্গুরে পাঁচটি মঞ্চ তৈরি হচ্ছে। ওই মঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। নামী শিল্পীরা ওই অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন। সিঙ্গুরের দ্বিতীয় বিজয়োৎসব পালিত হবে ওইদিন। বিশদে পড়ুন..............

    ২) তমলুক, কোচবিহার, মন্তেশ্বর কেন্দ্রে ১৯ নভেম্বর উপনির্বাচন দিল্লির নির্বাচন সদন থেকে দিনক্ষণ ঘোষণার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে লোকসভা ও বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে দিল তৃণমূল। তমলুক ও কোচবিহার লোকসভা এবং মন্তেশ্বর বিধানসভার উপনির্বাচন হবে আগামী ১৯ নভেম্বর। সোমবার দলের তরফে তমলুকের প্রার্থী হিসাবে দিব্যেন্দু অধিকারি ও মন্তেশ্বরে সৈকত পাঁজার নাম ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে, একইসঙ্গে ভোট হলেও ‘জেলা নেতৃত্বের মতানৈক্যের’ জেরে কোচবিহারের প্রার্থীর নাম এদিন ঘোষণা করেনি তৃণমূল। শাসকদল চটজলদি প্রার্থীর নাম ঘোষণা করে নির্বাচনী প্রস্তুতির পথে একধাপ এগিয়ে গেলেও বিরোধী শিবির ততটাই অপ্রস্তুত। গত বিধানসভা ভোটে জোটসঙ্গী কংগ্রেসকে ছেড়ে এবার এককভাবে বামফ্রন্ট উপনির্বাচনে লড়বে বলে ঘোষণা করেছে। দুটি লোকসভাতেই তাঁরা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আদৌ আগ্রহী কি না, তা নিয়ে সংশয় তৈরি করেছেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরি। উপনির্বাচন নিয়ে এদিন পর্যন্ত কোনও উচ্চবাচ্য করেনি রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। বিশদে পড়ুন..............

    ৩) মিতার মৃত্যুর তদন্তে নামল সিআইডি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নির্দেশে গৃহবধূ মিতা মণ্ডলের রহস্যজনক মৃত্যুর তদন্তের দায়িত্ব নিল সিআইডি। নবান্নের নির্দেশ আসার সঙ্গে সঙ্গেই সিআইডি আধিকারিকরা সোমবার হাওড়ার উলুবেড়িয়ায় মিতাদেবীর শ্বশুরবাড়িতে তদন্তে যান। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরের বাসিন্দা মিতাদেবীর বাবা সহদেব দাসসহ পরিবারের চার সদস্য এদিন নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেন। নবান্ন থেকে তাঁদের ডেকে পাঠানো হয়েছিল। সিআইডি তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি দাস পরিবারের একজনকে চাকরি দেওয়া হবে বলে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন। মেয়ের বিয়ে দিতে গিয়ে ওই গরিব পরিবারের প্রায় ৬৫ হাজার টাকা দেনা এখনও শোধ হয়নি। ওই টাকা মুখ্যমন্ত্রী তাঁর ত্রাণ তহবিল থেকে দেবেন বলে জানিয়ে দেন। এর সঙ্গে অসুস্থ সহদেববাবুকে এসএসকেএম হাসপাতালে চিকিৎসারও ব্যবস্থা করা হচ্ছে। বিশদে পড়ুন..............

    ৪) দত্তপুকুরে বাইরে থেকে তালাবন্ধ বেআইনি বাজি ,কারখানায় আগুনে জীবন্ত পুড়ে ছাই কিশোর সোমবার দত্তপুকুর থানার নারায়ণপুরে বেআইনি বাজি কারখানায় আগুন লেগে ভস্মীভূত হয়ে যায় একটি বাড়ির একাংশ। কারখানার বাইরে দরজায় তালা দেওয়া থাকায় আগুনে ঝলসে প্রাণ গেল বছর পনেরোর এক কিশোরের। দমকলের দুটি ইঞ্জিন গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এই ঘটনার জেরে এলাকার লোকজন ক্ষোভে ফেটে পড়েন। ঘটনার পর পরই বাড়ির মালিক জুলফিকার মন্ডল গা ঢাকা দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু, শেষ রক্ষা হয়নি। এলাকার লোকজন তাকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। জেলা পুলিশের এক আধিকারিক বলেন, এদিন ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৩০০ কেজি মতো বাজি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ওই এলাকায় যত বেআইনি বাজি কারখানা রয়েছে তা অবিলম্বে বন্ধ করে দেওয়া হবে। বিশদে পড়ুন..............

    First published:

    Tags: Morning Headline, Morning Newspaper, Newspaper Headline, খবরের কাগজ

    পরবর্তী খবর