• Home
  • »
  • News
  • »
  • uncategorized
  • »
  • ‘গবেষণা হচ্ছে না, মেধাবী ছাত্ররা এমএনসিতে কাজ খুঁজছে’, প্রেসিডেন্সি-র ২০০ বছর পূর্তিতে রাষ্ট্রপতির ক্ষোভ প্রকাশ

‘গবেষণা হচ্ছে না, মেধাবী ছাত্ররা এমএনসিতে কাজ খুঁজছে’, প্রেসিডেন্সি-র ২০০ বছর পূর্তিতে রাষ্ট্রপতির ক্ষোভ প্রকাশ

২০১৭ সালে তাজপুর মহেন্দ্রনাথ রায় ইনস্টিটিউশনের ১২৫তম বর্ষপূর্তিতে যোগ দিতে এসেছিলেন প্রণব। তখন তিনি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। যখনই আমতা এসেছেন, বলেছেন, আমি তো তোমাদেরই লোক। File Photo

২০১৭ সালে তাজপুর মহেন্দ্রনাথ রায় ইনস্টিটিউশনের ১২৫তম বর্ষপূর্তিতে যোগ দিতে এসেছিলেন প্রণব। তখন তিনি প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি। যখনই আমতা এসেছেন, বলেছেন, আমি তো তোমাদেরই লোক। File Photo

প্রেসিডেন্সি কলেজের ২০০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শুক্রবার শহরে এসেছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ সেখানে

  • Share this:

    #কলকাতা: প্রেসিডেন্সি কলেজের ২০০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শুক্রবার শহরে এসেছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়৷ সেখানে প্রেসিডেন্সির উজ্জ্বল ইতিহাস নিয়ে বলার মাঝেই রাজ্যের মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করলেন ৷ অর্মত্য সেন ও হরগোবিন্দ সিং খুরানার প্রসঙ্গ তুলে, বর্তমানে মৌলিক গবেষণার দিক থেকে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলি যে পিছিয়ে পড়ছে, তা নিয়েই নিজের ক্ষোভপ ঢেলে দিলেন এদিন প্রেসিডেন্সির অনুষ্ঠানে ৷

    এদিন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে জানালেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে মেধাবী ছাত্রের অভাব নেই ৷ কিন্তু বর্তমানে মেধাবীরা নতুন কোনও দিশা দেখাচ্ছে না ৷ এটাই খারাপ লাগে ৷ আমি লক্ষ্য করে দেখেছি, বেশিরভাগ মেধাবী ছাত্ররাই গবেষণায় না গিয়ে বেশি টাকার চাকরি খুঁজছেন ৷ মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানিতে চাকরি করছেন ৷ আর যার ফল হিসেবে, বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে মৌলিক গবেষণার সংখ্যা দিন দিন কমে যাচ্ছে ৷’

    রাষ্ট্রপতির কথায়, ‘২০১৪-তে আমাদের দেশ থেকে কোনও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিশ্ব তালিকায় ছিল না ৷ এমনকী, এর দু’বছর পর বিশ্ব তালিকায় মাত্র দেশের মাত্র দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নাম ছিল ৷ সিভি রমনের পর আমাদের দেশ থেকে আর কেউ নোবেল পাননি ৷ খারাপ লাগে বিদেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজ করে অর্মত্য সেন, হরগোবিন্দ সিং খুরানা নোবেল পেয়েছেন ৷ এটা সত্যিই দুঃখের ৷ আমার মনে হয় বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার প্রতি দৃষ্টি দেওয়া উচিত ৷’

    বক্তব্যের শেষে প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় করার জন্য রাজ্য সরকারের প্রশংসাও করেন রাষ্ট্রপতি ৷

    টানা এক বছর ধরে প্রেসিডেন্সির দু’শো বছর পূর্তি অনুষ্ঠান চলবে ৷ সারা বছর ধরেই নানা ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে৷ এজন্য রাজ্য সরকারের তরফে ১০ কোটি টাকা মঞ্জুর করা হয়েছে৷ এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নের খাতে ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছিল সরকার৷ আগামী বছর ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই ক্যাম্পাসের পরিকাঠামোগত উন্নয়ন শেষ করার লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে৷

    First published: