প্রযুক্তি

?>
corona virus btn
corona virus btn
Loading

YouTube মিউজিককে অগ্রাধিকার দিতে এ বার Google Play Music বন্ধ করার পথে সংস্থা

YouTube মিউজিককে অগ্রাধিকার দিতে এ বার Google Play Music বন্ধ করার পথে সংস্থা

এবার Google-এর প্রাইমারি মিউজিক স্ট্রিমিং সার্ভিস হতে চলেছে YouTube মিউজিক।

  • Share this:

এবার Google-এর প্রাইমারি মিউজিক স্ট্রিমিং সার্ভিস হতে চলেছে YouTube মিউজিক। আর সেই জন্যই সংস্থা তার Google Play Music স্ট্রিমিং অ্যাপ বন্ধ করতে চলেছে। বিগত কয়েক মাস ধরেই Google Play Music Store বন্ধ করা নিয়ে ব্যবহারকারীদের সতর্ক করে চলেছে সংস্থা। সেই পথেই আজ একটি পদক্ষেপ করল Google। Play Store থেকে গান কেনার সুবিধা ও পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হল Google-এর তরফে।

সাধারণত, Google Play Music Store একজন ব্যবহারকারীকে গান কেনা, তা শোনা এবং পছন্দের সেই গান MP3 ফাইল ফরম্যাটে ডাউনলোড করার সুবিধা দেয়। কিন্তু এ বার এই সবক'টি সুবিধাই বন্ধ হতে চলেছে। গান কেনা ও ডাউনলোডের সুবিধার পাশাপাশি Google Play Music Store থেকে ব্রাউজ মিউজিকের ট্যাবও সরিয়ে দিয়েছে সংস্থা। ইতিমধ্যেই Google Play Music Store-এর  ওয়েব ভার্সনে একটি বিজ্ঞপ্তি দেখানো শুরু হয়েছে। যেখানে স্পষ্ট লেখা, Google Play-তে আর Music Store পাওয়া যাবে না। ধীরে ধীরে Google Play Music-এর ফিচারগুলিও বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। Google-এর তরফে জানা গিয়েছে যে, এই মাসের পর থেকে বিশ্ব জুড়ে নানা কনটেন্ট দেখানো বা স্ট্রিম করার ক্ষমতাও হারাবে ওই অ্যাপ।

তবে এখনও যে অল্পসংখ্যক মানুষজন Google Play Music ব্যবহার করছেন, তাঁদের জন্য তিনটি বিকল্প রয়েছে। এ ক্ষেত্রে Google Play ব্যবহারকারীদের মিউজিক লাইব্রেরি সরাসরি YouTube মিউজিকে এক্সপোর্ট করতে পারে। যদি ব্যবহারকারীরা YouTube মিউজিকে না যেতে চান, তা হলে তাঁরা তাঁদের টাকা দিয়ে কেনা গানগুলি Google Takeout-এর মাধ্যমে রাখতে পারেন। উল্লেখ্য, এই Google Takeout হল এক ধরনের পরিষেবা, যেখানে ব্যবহারকারীরা তাঁদের তথ্য একটা ডাউনলোডেবল আর্কাইভ ফাইলে এক্সপোর্ট করতে পারেন। এ ছাড়াও আরও একটি বিকল্প রয়েছে। এ ক্ষেত্রে ব্যবহারকারীরা সরাসরি তাদের সমস্ত তথ্য নষ্ট করে দিতে পারেন। অর্থাৎ Google Play Music লাইব্রেরি ও রেকমেনডেশনে গিয়ে সব কিছু ডিলিট করে দিতে পারেন গ্রাহকরা।

এ বছরের শেষের দিকে Google Play Music পুরোপুরি ভাবে বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছে সংস্থা।

Published by: Piya Banerjee
First published: October 14, 2020, 1:13 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर