Home /News /technology /
স্মার্টওয়াচ কি সত্যিই স্মার্ট? না কি বোকা বানিয়ে বিক্রি বাড়াচ্ছে নির্মাতারা? জেনে নিন সত্যিটা

স্মার্টওয়াচ কি সত্যিই স্মার্ট? না কি বোকা বানিয়ে বিক্রি বাড়াচ্ছে নির্মাতারা? জেনে নিন সত্যিটা

স্মার্ট ওয়াচ (Smart Watch) - ফিটনেস ব্যান্ড এক হাতে আর অন্য হাতে ঘড়ি মানায় না। অনেকেই পুরনো মডেলের কাঁটা দেওয়া ঘড়ি আর পছন্দ করেন না। তাঁদের জন্য সব চেয়ে ভালো ও উপযোগী গ্যাজেট স্মার্টওয়াচ। বড় স্ক্রিনের সঙ্গে ঘড়ি ও ফিটনেস ব্যান্ডের সুবিধে দেয় প্রায় প্রত্যেকটি স্মার্টওয়াচ। অ্যাপলের স্মার্টওয়াচের ক্ষেত্রে আরেকটু অ্যাডভান্সড ফিচার থাকে। যেমন, এমারজেন্সি সার্ভিসে কল করার সুবিধে, মেসেজ করার সুবিধে বা হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ পড়া, কল রিসিভ করার সুবিধে। অ্য়াপলের এই স্মার্ট ওয়াচ (Smart Watch)-এ ইসিম (eSim) ব্যবহারেরও সুবিধে পাওয়া যায়। যার ফলে হাতে স্মার্টওয়াচটি থাকলে সব সময়ে ফোনের দরকার পড়বে না। সাধারণত ফিটনেস ব্যান্ডগুলির থেকে অনেক বেশি দামি হয় এই স্মার্টওয়াচ (Smart Watch)।

স্মার্ট ওয়াচ (Smart Watch) - ফিটনেস ব্যান্ড এক হাতে আর অন্য হাতে ঘড়ি মানায় না। অনেকেই পুরনো মডেলের কাঁটা দেওয়া ঘড়ি আর পছন্দ করেন না। তাঁদের জন্য সব চেয়ে ভালো ও উপযোগী গ্যাজেট স্মার্টওয়াচ। বড় স্ক্রিনের সঙ্গে ঘড়ি ও ফিটনেস ব্যান্ডের সুবিধে দেয় প্রায় প্রত্যেকটি স্মার্টওয়াচ। অ্যাপলের স্মার্টওয়াচের ক্ষেত্রে আরেকটু অ্যাডভান্সড ফিচার থাকে। যেমন, এমারজেন্সি সার্ভিসে কল করার সুবিধে, মেসেজ করার সুবিধে বা হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ পড়া, কল রিসিভ করার সুবিধে। অ্য়াপলের এই স্মার্ট ওয়াচ (Smart Watch)-এ ইসিম (eSim) ব্যবহারেরও সুবিধে পাওয়া যায়। যার ফলে হাতে স্মার্টওয়াচটি থাকলে সব সময়ে ফোনের দরকার পড়বে না। সাধারণত ফিটনেস ব্যান্ডগুলির থেকে অনেক বেশি দামি হয় এই স্মার্টওয়াচ (Smart Watch)।

নামের আগে যতই স্মার্ট শব্দটা জুড়ে দেওয়া হোক না কেন, আদতে কি তা আমাদের দারুণ কিছু সুবিধে দেয়? না কি বিজ্ঞাপনের ফাঁদে পড়ি আমরা আর আখেরে সুবিধে দেয় তা নির্মাতাদেরই? জেনে নিন সত্যিটা

  • Last Updated :
  • Share this:

সন্দেহ নেই, আজকের দুনিয়ায় স্মার্টফোন ছাড়া টিঁকে থাকাটা বেশ মুশকিলের। কিন্তু স্মার্টওয়াচ? নামের আগে যতই স্মার্ট শব্দটা জুড়ে দেওয়া হোক না কেন, আদতে কি তা আমাদের দারুণ কিছু সুবিধে দেয়? না কি বিজ্ঞাপনের ফাঁদে পড়ি আমরা আর আখেরে সুবিধে দেয় তা নির্মাতাদেরই? আসুন, একটু খতিয়ে দেওয়া যাক!

১. স্মার্টফোনের বিকল্প স্মার্টওয়াচ?বলা যায় বটে কথাটা! তবে ওই- শর্তাবলী প্রযোজ্য! মানে, আমরা যখন বাড়িতে নেই, ফোনটা রয়েছে, তখন কবজিতে স্মার্টওয়াচ বাঁধা থাকলে কিছু সুবিধে পাওয়া যায় ঠিকই। যেমন ধরুন, মর্নিংওয়াক বা জগিংয়ের সময়ে। তখন কষ্ট করে পকেটে ফোনটা না রাখলেও দিব্যি কাজ চলে যায়। WhatsApp মেসেজ চেক করা যায়, ফোন ধরা যায়, কথা বলে নেওয়া যায় টুক করে!কিন্তু মর্নিং ওয়াক বা জগিংয়ের সময়ে এই কাজগুলো করা কি সত্যি খুব দরকার?তা ছাড়া শুধুমাত্র এ রকম দু'-একটা জায়গা বাদ দিলে যখন হাতের কাছে ফোন থাকছে, তখন স্মার্টওয়াচ কোনওই কাজে আসে না। এটা আপনিও জানেন। তা হলে কেন নির্মাতাদের পকেট ভারি করতে যাবেন?

২. স্টাইল স্টেটমেন্টের অঙ্গ?কিছুটা হলেও তো বটেই! যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কবজিতে একটা স্মার্টওয়াচ বাঁধা থাকলে বেশ আপডেটেড থাকা যায়- নিজের কাছেও, অন্যদের কাছেও।কিন্তু একটা ঠিকঠাক স্মার্টওয়াচ হাজার তিরিশ টাকার কমে হয় না। এখন স্মার্টফোন দিয়েই যদি অনেকগুলো দরকার মিটে যায় আর আপনার যদি সত্যিই এই টাকাটা খরচ করার ইচ্ছে থাকে, দুনিয়াখ্যাত কোনও ফ্যাশন ব্র্যান্ডের হাতঘড়ি কিনলেই কি ভালো হয় না? যেমন ধরুন, হুগো বস, টিসো বা ভিক্তোরিনক্স অ্যালায়েন্স? সে ক্ষেত্রে কিন্তু অন্যের নজর কেড়ে নেওয়াটা আরও সহজ হয়ে যায়!

৩. আর ফিটনেসের কী হবে?ঠিক, এই কথা তুললে কিছু বলার থাকে না! হার্ট বিট মাপা, ব্লাড প্রেশার মাপার মতো এমন অনেক খুঁটিনাটি বিষয়ের কাজ স্মার্টওয়াচ করে দেয়। একমাত্র এ দিক থেকেই বিকল্পহীন পরিষেবা দেয় এই প্রযুক্তি।কিন্তু ভেবে দেখুন তো, এটা কি আপনার কাছে স্মার্টফোনের মতোই অপরিহার্য? এটা ব্যবহারের অভ্যেস না থাকায় আপনার কোনও দিকেই কি কোনও অসুবিধা হচ্ছে? আপনার উত্তরই আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে!

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Smart watch