corona virus btn
corona virus btn
Loading

চিনা TikTok-এর ভারতীয় বিকল্প অ্যাপ Chingari, অল্প সময়ে ২৫ লক্ষের বেশি ডাউনলোড

চিনা TikTok-এর ভারতীয় বিকল্প অ্যাপ Chingari, অল্প সময়ে ২৫ লক্ষের বেশি ডাউনলোড

আনন্দ মাহিন্দ্রাও ডাউনলোড করেছেন এই অ্যাপটি

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে চিনের বিরুদ্ধে দেশে ক্ষোভ বাড়ছিল৷ লাদাখ সীমান্তে চিনা হামলা যেন আগুনে ঘি ঢেলেছে। দুইয়ে মিলে দেশজুড়ে চিনকে বয়কটের ডাক ক্রমেই জোরাল হচ্ছে। ১৫ জুন লাদাখে গালওয়ান অঞ্চলে চিনা বাহিনীর অতর্কিত হামলায় কর্নেল-সহ ২০ জন ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়। তারপর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ড করতে শুরু করে বয়কট চিনা পণ্য। ইতিমধ্যেই কয়েক কোটি ভারতীয়রা খুঁজছেন কোন কোন অ্যাপ চিনা আর সেই সব অ্যাপ ফোন থেকে ডিলিট বা আনইন্সটল করে দিচ্ছেন।

টিকটকে (Tiktok) টেক্কা দিতে নতুন ভারতীয় একটি অ্যাপ বাজারে এসেছে। টিকটক ভিডিও বানানো এবং শেয়ার করা আজকাল ইয়ং জেনারেশনের কাছে নতুন ফ্যাশন। তারকা থেকে সাধারণ মানুষ, সকলেই মজে ছিলেন TikTok ভিডিও বানাতে৷ তাই কিছুদিনের মধ্যেই জনপ্রিয়তায় অনেক অ্যাপকে পিছনে ফেলে দিয়েছিল এই অ্যাপটি৷ আর এই চিনা অ্যাপ টিকটক-কে টক্কর দিতে ছত্তিশগড়, ওড়িশা এবং কর্ণাটকের আইআইটি প্রফেশনালরা এই চিংগারি (Chingari) অ্যাপটি তৈরি করেছেন। ইতিমধ্যেই প্রায় ২৫ লক্ষ নেটিজেন এই অ্যাপ মোবাইলে ডাউনলোড করে ফেলেছেন।

টাইমস অফ ইন্ডিয়া-র রিপোর্ত অনুযায়ী, সুমিত ঘোষ, চিফ অফ প্রোডাক্ট, জানয়েছেন যে এই চিংগারি অ্যাপটি তৈরি করতে ২ বছর সময় লেগেছে। এই অ্যাপটি ভারতীয় ব্যবহারকারীদের প্রয়োজন আর চাহিদার কথা মাথায় রেখে ডিজাইন করা হয়েছে। এই অ্যাপটিকে ২০১৮ সালের নভেম্বর মাসে গুগল প্লে স্টোরে লঞ্চ করা হয়েছিল। সুমিত ঘোষ ভিলাই-এর বাশিন্দা।

বয়কট চিন-এর জোয়ারে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে এই Chingari অ্যাপ। এই প্লাটফর্মটি অনেকটা চিনের টিকটক অ্যাপের মতো। সুমিত ঘোষ এও জানয়েছে যে, নম্বর দেখে বোঝা যাচ্ছে যে ভারতীয় ব্যবহারকারীদের থেকে ভাল রেসপন্স পেয়ে আমাদের এই অ্যাপটি। এখনও পর্যন্ত এই অ্যাপটিকে ২৫ লক্ষ বারের বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে।

এই অ্যাপটিকে তৈরি করেছেন ওড়িশার বিশ্বতম নায়ক আর কর্ণাটকের সিদ্ধার্থ গৌতম মিলে। সুমিত ঘোষ দাবি করেছেন যে এটি একমাত্র ভারতীয় অ্যাপ যা চিনা অ্যাপ টিকটক-কে টক্কর দিতে পাড়বে। বেশ কিছু ভাষা উপলব্ধ ভারতীয় Chinagri App-এ। এখানে যেমন নানাবিধ ভিডিয়ো ডাউনলোড করা যায়, ঠিক তেমনই ভিডিয়ো আপলোড, বন্ধুদের সঙ্গে চ্যাট, নতুন বন্ধু পাতানো, কন্টেন্ট শেয়ার করা এবং ফিড দেখে ব্রাউজ করার মতো বহু অপশন রয়েছে। এখন পর্যন্ত, ১০ হাজারেরও বেশি মানুষ প্রতিদিন এন্টারটেনমেন্ট কন্টেন্ট তৈরি করছেন। মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা গ্রুপের আনন্দ মাহিন্দ্রাও এই অ্যাপটি সম্পর্কে ট্যুইট করে লিখেছেন, 'আমি টিকটক অ্যাপটি ডাউনলোড করি নি। কিন্তু, সবেমাত্র এই চিংগারি অ্যাপটি ডাউনলোড করেছি।'

Published by: Ananya Chakraborty
First published: June 29, 2020, 9:44 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर