FAU-G লঞ্চের তারিখ ঘোষণা করলেন অক্ষয় কুমার, PUBG মিমে মাতলেন নেটিজেনরা

FAU-G লঞ্চের তারিখ ঘোষণা করলেন অক্ষয় কুমার, PUBG মিমে মাতলেন নেটিজেনরা

২৬ জানুয়ারি অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন লঞ্চ করা হবে FAU-G

২৬ জানুয়ারি অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন লঞ্চ করা হবে FAU-G

  • Share this:

FAU-G: প্রকাশ্যে এল FAU-G গেমের অ্যান্থেম। সেই সূত্রে জানা গিয়েছে, ২৬ জানুয়ারি অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনই লঞ্চ করবে এই গেম। সম্প্রতি ট্যুইটারে নিজেই পুরো বিষয়টি সুনিশ্চিত করেছেন বলিউডের খিলাড়ি অক্ষয় কুমার (Akshay Kumar)। আর এর পর থেকে নানা ধরনের মিমে মেতে উঠেছেন নেটিজেনরা।

ভারত-চিন সীমান্ত সংঘর্ষের সূত্র ধরে ২ সেপ্টেম্বর তথ্য লেনদেন, ফাঁস ও তথ্য চুরির যোগে ব্যান হয়ে যায় ১১৮টি অ্যাপ। সেদিনই ব্যান হয়েছিল বহুল জনপ্রিয় PUBG গেম। ইনফরমেশন টেকনোলজি অ্যাক্টের ৬৯ A ধারার অধীনে PUBG-সহ সমস্ত অ্যাপকে নিষিদ্ধ করা হয়। তখন সরকারের তরফে জানানো হয়েছিল, দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা রক্ষায় এই পদক্ষেপ করা হয়েছে। এর পর এই গেমের ফিরে আসা নিয়ে একাধিক জল্পনা তৈরি হয়েছে। এরই মাঝে দেশের বাজারে মাল্টিপ্লেয়ার অ্যাকশন গেম FAU-G-র রিলিজের বিষয়টি সংবাদ শিরোনামে উঠে আসে। অক্ষয় কুমার নিজেও গেমটির লঞ্চের বিষয় সুনিশ্চিত করেন।

মূলত ভারতীয় সেনার উপরে ভিত্তি করেই গেমটি ডিজাইন করা হয়েছে। এই বিষয়ে ট্যুইটারে একটি পোস্ট করে বলিউড সুপারস্টার জানান, ২৬ জানুয়ারি অর্থাৎ প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন লঞ্চ করা হবে FAU-G। একটি ভিডিও ক্লিপ শেয়ার করার পর অক্ষয় লেখেন, দেশের মধ্যে কোনও সমস্যা হোক বা দেশের সীমান্তের সমস্যা, সর্বদা দৃঢ় ভাবে দাঁড়িয়ে রয়েছেন ভারতের বীর জওয়ানরা। এই সেনারাই আমাদের অতন্দ্র ও নির্ভীক প্রহরী। আমাদের FAU-G।

অক্ষয় কুমারের এই ভিডিও পোস্টের পর থেকেই একের পর এক মিম শেয়ার শুরু হয়েছে। অক্ষয়ের নানা ডায়লগ, ওয়েলকাম থেকে শুরু করে হেরাফেরির নানা দৃশ্যের মিমি পোস্ট বানিয়ে শেয়ার করেছেন নেটিজেনরা।

প্রসঙ্গত, গত বছর সেপ্টেম্বরে একটি ঘোষণায় অক্ষয় কুমার এ নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছিলেন। অক্ষয়ের কথায়, FAU-G লঞ্চ হওয়ার পর সেই গেম থেকে প্রাপ্ত লভ্যাংশের ২০ শতাংশ সেনাদের ট্রাস্টে দেওয়া হবে। অক্ষয় কুমার নিজেই এই ট্রাস্ট শুরু করেছেন। তিনি আরও জানান, ভারতের ইয়ংস্টারদের কাছে ধীরে ধীরে বিনোদনের একটি বড় মাধ্যমে হয়ে উঠছে গেমিং। এ ক্ষেত্রে FAU-G গেমের হাত ধরে এক নতুন দিগন্তের সূচনা হতে চলেছে। তিনি আশা করছেন যে, গেমটি খেলার মধ্য দিয়ে দেশের সেনাদের আত্মত্যাগকে আরও ভালো করে উপলব্ধি করতে পারবেন দেশের যুবকেরা। আর পরোক্ষ ভাবে সেনাদের ট্রাস্টেও সাহায্য করতে পারবেন তাঁরা!

Published by:Ananya Chakraborty
First published: