হোম /খবর /খেলা /
বিরাট কোহলি এখন পুরোটাই আধ্যাত্মিক মানুষ! অজানা রহস্য ফাঁস শিখর ধাওয়ানের

Virat Kohli: বিরাট কোহলি এখন পুরোটাই আধ্যাত্মিক মানুষ! অজানা রহস্য ফাঁস শিখর ধাওয়ানের

কোহলির আধ্যাত্মিক মানুষ হয়ে ওঠার কারণ জানালেন ধাওয়ান

কোহলির আধ্যাত্মিক মানুষ হয়ে ওঠার কারণ জানালেন ধাওয়ান

  • Share this:

মুম্বই: বিরাট কোহলির সঙ্গে তার বন্ধুত্ব বহু যুগের। দুজনেই দিল্লির ছেলে। তরুণ বয়স থেকে একসঙ্গে ক্রিকেট খেলছেন। শিখর ধাওয়ান বিরাট কোহলিকে যতটা চেনেন, ততটা হয়তো অন্য কেউ চেনে না। সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে ভারতের প্রাক্তন বাঁহাতি ওপেনার শিখর বলেছেন একটা সময় শুধু খাওয়া দাওয়া, পার্টি, লেট নাইট এটাই ছিল বিরাট কোহলির জীবন। কিন্তু শেষ পাঁচটা বছর নিজেকে একটা আধ্যাত্মিক চিন্তাধারায় মুড়ে ফেলেছেন বিরাট।

সম্পূর্ণ অন্য মানুষ তিনি। এই বিরাট কোহলি বুঝে গিয়েছেন জীবনে টাকা, নাম, যশ ক্ষণস্থায়ী। মানুষ হিসেবে বড় হওয়াটাই আসল। আর এই আধ্যাত্মিকতার পেছনে বিরাটের স্ত্রী অনুষ্কা শর্মার ভাবনাও আছে। তাই দুজনে মিলে সমাজ কল্যাণ মূলক প্রচুর কাজ করেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং উজ্জয়নীর মহাকাল মন্দির। নেটিজেনদের বিশ্বাস, মহাকাল মন্দিরে মাথা ঠেকাতেই কাজ হয়েছে।

আরও পড়ুন - SRK: মেসিকেও হারিয়ে দিলেন শাহরুখ! বিশ্বের সেরা প্রভাবশালীদের তালিকায় শীর্ষে `পাঠান'

শেষ হয়েছে ৩ বছর, ৩ মাস ও ১৭ দিনের সেঞ্চুরির অপেক্ষা।১২০৫ দিন পর বিরাট ব্যাটে এসেছিল টেস্ট শতরান। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে আমেদাবাদ টেস্টের চতুর্থ দিনে কেরিয়ারের ২৮তম টেস্ট সেঞ্চুরি। বিশ্বাসটাই আসল। যে বিরাট কোহলি একদিন পুজোপাঠ নিয়ে নাক সিঁটকেছিলেন, তিনিই এখন মন্দির, আশ্রমের দোরে হত্যে দিচ্ছেন। ৩৪ বছরের প্রাক্তন অধিনায়ক আড়াইটে বছর ধরে অসীম যন্ত্রণার মধ্য দিয়ে কাটিয়েছেন।

প্রাণাধিক প্রিয় ব্যাট ছুঁয়েও দেখেননি একমাস। তার আগে নইনিতালে নিম করলি বাবার আশ্রমেও গিয়েছিলেন বিরাট এবং অনুষ্কা। অর্থাৎ জীবনের আসল দিশা খুঁজে পেয়েছেন বিরাট। স্ত্রী তাকে এই ব্যাপারে সম্পূর্ণ সমর্থন করেন। শিখর জানিয়েছেন আধ্যাত্মিকতার ব্যাপারে তার সঙ্গে বিরাটের কিছু আলোচনা হয়েছে।

একটাই জীবন মানুষের কিভাবে কাজে লাগানো উচিত সেই সম্পর্কে বিরাটের থেকে পরামর্শ পেয়েছেন তিনি। শিখরের নিজের স্ত্রীর সঙ্গে ডিভোর্স হয়ে গিয়েছে। তবে এটা নিয়েও খুব একটা নিজেকে দোষ দিতে রাজি নন তিনি। প্রাক্তন স্ত্রীর বিরুদ্ধেও কথা বলছেন না। এটাই হচ্ছে আধ্যাত্মিকতার উপকার।

Published by:Rohan roychowdhury
First published:

Tags: Shikhar Dhawan, Virat Kohli