হার্দিকদের নির্বাসনের সুপারিশ বোর্ড প্রধানের, কমপক্ষে দু’ম্যাচ নির্বাসনের পক্ষপাতী বিনোদ রাই

হার্দিকদের নির্বাসনের সুপারিশ বোর্ড প্রধানের, কমপক্ষে দু’ম্যাচ নির্বাসনের পক্ষপাতী বিনোদ রাই

Photo Source: Twitter

  • Share this:

    #মুম্বই: টিভি শো-য়ে বেলাগাম মন্তব্যের জের। হার্দিক-রাহুলকে নির্বাসনে পাঠানোর সুপারিশ। দু’ম্যাচ নির্বাসনের পক্ষপাতী আদালত নিযুক্ত প্রশাসকদের প্রধান বিনোদ রাই। তবে শাস্তি নিয়ে মতানৈক্য রয়েছে।

    এদিকে বোর্ডের লিগাল সেলের মতামতের পক্ষে ডায়না এডুলজি। কড়া শাস্তি চান বোর্ড কোষাধ্যক্ষ অনিরুদ্ধ চৌধুরিও। বল-বিকৃতি কাণ্ডে স্মিথ-ওয়ার্নারের মত হার্দিকদেরও সাসপেন্ড করার দাবি উঠছে এখন।

    ক্রিকেটারদের অশালীন মন্তব্যের জন্য বোর্ডকে চিঠি দিতে চলেছে জাতীয় মহিলা কমিশন। এরই মাঝে নয়া বিতর্ক হার্দিকদের শো-কজের চিঠিতে ‘মিটু’ কাণ্ডে অভিযুক্ত সিইও রাহুল জোহরির সই নিয়ে।

    যৌনতায় খুল্লমখুল্লা। মহিলাদের অসম্মান। কৃষ্ণাঙ্গ আসক্তিতে বেলাগাম। টিভি শোয়ে বিন্দাস মেজাজটাই বিপদ ডেকে আনল হার্দিকের। একইসঙ্গে প্রশ্ন উঠে গেল ভারতীয় ক্রিকেটে বিরাটদের ইনস্ট্যান্ট প্রজন্মের রুচি আর সংস্কৃতি নিয়েও।

    করণ জোহরের শোয়ে সম্প্রতি দেখা গেছে অন্য হার্দিক-রাহুলকে। সচিনের থেকে এগিয়ে বিরাট.... বলার সময় মাঠের আগ্রাসন ছিল কোহলির দুই সতীর্থের গলায়। যদিও তাতে প্রবল আহত হয় তেণ্ডুলকর-উত্তর ভারতীয় ক্রিকেটের গরিষ্ঠ সেন্টিমেন্ট। কিন্তু সে তো ব্যক্তিগত মতামত ! কিন্তু গোল বাধল অন্য জায়গায়। জনপ্রিয় কফি শোয়ের মেজাজে পাল্লা দিয়ে বাড়তি কুল হতে গিয়ে। আগ্রাসী অ্যাডভেঞ্চারে কখন যেন নিজেদের অজান্তেই শালীনতার ক্রিজ ছেড়ে বেরিয়ে পড়লেন দুই বিরাট-ঘনিষ্ঠ। যৌনতা, নারীত্ব, চামড়ার রং। করণ জোহর একের পর এক হাফভলি দিয়েছিলেন। হার্দিক-রাহুলও স্টেপ-আউটের আসক্তিতে রাশ টানতে পারেন নি। উন্মুক্ত হল টিম ইন্ডিয়ার ‘গুডি-গুডি’দের ব্যাড বয় ইমেজ। খোলস ছেড়ে বেরিয়ে আসা ক্যাসানোভা।

    First published: