• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Team India beach volleyball : গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে বিচ ভলিবল খেলে নিজেদের চাপমুক্ত রাখছেন কোহলিরা

Team India beach volleyball : গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচের আগে বিচ ভলিবল খেলে নিজেদের চাপমুক্ত রাখছেন কোহলিরা

মনের দিক থেকে চাপ মুক্ত থাকার চেষ্টায় বিরাট কোহলিরা

মনের দিক থেকে চাপ মুক্ত থাকার চেষ্টায় বিরাট কোহলিরা

Team India enjoys beach volleyball session in Dubai before New Zealand showdown. নিজেদের চাপমুক্ত রাখতে টিম ইন্ডিয়া বিচ ভলিবল খেলাতে মন দিয়েছে। কারণ মনকে শান্ত রাখতে পারলে তবেই নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সেরা পারফর্মেন্স মাঠে দেওয়া সম্ভব।

  • Share this:

    দুবাই: বাইরে মুখে কেউ কথা বলছেন না। কিন্তু টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে টিম ইন্ডিয়া যে ভেতরে ভেতরে প্রবল চাপে, তাতে সন্দেহ নেই। ২০০৭ এবং ২০১৬ টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দু'বারের সাক্ষাতেই নিউজিল্যান্ড হারিয়েছিল ভারতকে। পাকিস্তানের কাছে প্রথম ম্যাচে হেরে প্রবল চাপে টিম ইন্ডিয়া। রবিবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে কার্যত ‘মরণ-বাঁচন’ লড়াই। কিউয়িদের হারাতে না পারলে টি-২০ বিশ্বকাপে শেষ চারে ওঠার আশা কার্যত শেষ হয়ে যাবে ভারতের। তাই প্রস্তুতিতে কোনও খামতি রাখছেন না ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

    দুবাইয়ে আইসিসি অ্যাকাডেমি মাঠে প্রচণ্ড গরমেও ঘণ্টার পর ঘণ্টা নেটে নকিং সেরেছেন রোহিত শর্মা, লোকেশ রাহুলরা। প্র্যাকটিসে দারুণ ছন্দে দেখা গিয়েছে ক্যাপ্টেন বিরাট কোহলিকে। পাক ম্যাচেও তার ইঙ্গিত মিলেছিল। ব্যর্থতার মিছিলে একমাত্র উজ্জ্বল ছিলেন তিনিই। শুধু সমর্থকরা নন, নেটে কোহলিকে মেজাজে ব্যাট করতে দেখে মুগ্ধ দলেরই দুই সদস্য ঈশান কিষান ও শ্রেয়স আয়ার। স্টাম্পের পিছনে বসে তাঁরা বিরাটের ব্যাটিং দেখছিলেন। থ্রো-ডাউনের বিরুদ্ধে স্ট্রেট ড্রাইভে কোহলি হিট করতেই আবেগ চেপে রাখতে পারেননি ঈশান ও শ্রেয়স। তাঁরা চিৎকার করে উঠেছেন আনন্দে। সেই ভিডিও ইতিমধ্যে ভাইরাল হয়েছে সামাজিক মাধ্যমে।

    সুপার টুয়েলভে ‘বি’ গ্রুপ থেকে পাকিস্তানের সেমি-ফাইনালে ওঠা শুধু সময়ের অপেক্ষা। কারণ, বাবর আজমরা গ্রুপের সেরা দুই প্রতিপক্ষ ভারত ও নিউজিল্যান্ডকে সহজেই হারিয়েছেন। দ্বিতীয় দল হিসেবে কারা শেষ চারে যাবে, সেটা অনেকটাই স্পষ্ট হয়ে যাবে রবিবার। ওই ম্যাচের পর ভারত ও নিউজিল্যান্ডের আরও তিনটি খেলা বাকি থাকবে আফগানিস্তান, নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে। বড় কোনও অঘটন না ঘটলে প্রতিটি ম্যাচই তাদের জেতা উচিত।

    তাই রবিবারের লড়াইকেই পাখির চোখ করছে দুই পক্ষ। তবে আইসিসি’র ইভেন্টে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ভারতের রেকর্ড একেবারে ভালো নয়। পরিসংখ্যান কোহলিদের বিপক্ষে। কিন্তু এমন মঞ্চই তো সেরা পারফরম্যান্স বের করে আনে! টিম ইন্ডিয়া যদি সেরাটা মেলে ধরতে পারে, তাহলেই কাটবে কিউয়িদের গাঁট।

    পাকিস্তানের বিরুদ্ধে হেরে গিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে জয় পেতে নিজেদের উজাড় করে দেবে উইলিয়ামসন, মিচেল, সোধী, সান্টনার, সেইফার্টরা। কিন্তু ভারতের জয় ছাড়া অন্য ভাবনা নেই। ডু অর ডাই ম্যাচে ব্ল্যাক ক্যাপ্সদের হারিয়ে জয়ের সরণিতে ফিরতে মরিয়া টিম ইন্ডিয়া।আপাতত নিজেদের চাপমুক্ত রাখতে টিম ইন্ডিয়া বিচ ভলিবল খেলাতে মন দিয়েছে। কারণ মনকে শান্ত রাখতে পারলে তবেই সেরা পারফর্মেন্স মাঠে দেওয়া সম্ভব।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: