• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • Shoaib Akhtar on Ganguly : পুরনো বন্ধু সৌরভ, আজহারের সঙ্গে দেখা করে বহু স্মৃতি মনে পড়ে যাচ্ছে শোয়েবের

Shoaib Akhtar on Ganguly : পুরনো বন্ধু সৌরভ, আজহারের সঙ্গে দেখা করে বহু স্মৃতি মনে পড়ে যাচ্ছে শোয়েবের

দুবাইয়ের ভিআইপি গ্যালারীতে সৌরভ এবং আজহারের সঙ্গে শোয়েব

দুবাইয়ের ভিআইপি গ্যালারীতে সৌরভ এবং আজহারের সঙ্গে শোয়েব

Shoaib Akhtar happy to meet Sourav Ganguly. ফাইনাল চলাকালীন ভিআইপি গ্যালারীতে বসে রয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, জয় শাহ, আজহারউদ্দিন। পাকিস্তানের তরফের উপস্থিত রামিজ রাজা, আফ্রিদি, শোয়েব আখতার।

  • Share this:

    #দুবাই: টিভিতে বেশ কয়েকবার দেখা গিয়েছে দৃশ্যটা। ফাইনাল চলাকালীন ভিআইপি গ্যালারীতে বসে রয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, জয় শাহ, আজহারউদ্দিন। পাকিস্তানের তরফের উপস্থিত রামিজ রাজা, আফ্রিদি, শোয়েব আখতার। পরে একটি ছবিও দেখা যায় যেখানে সৌরভের সঙ্গে শোয়েবকে আলোচনা করতেও দেখা যায়। কী বিষয়ে আলোচনা হয়েছে, তা নিয়ে অবশ্য মুখ খোলেননি পাক তারকা।

    আরও পড়ুন - Ravi Shastri on IPL : আইপিএলের আর্থিক জোর ছাড়া ভারতীয় ক্রিকেট উন্নতি করতে পারত না, বলছেন শাস্ত্রী

    এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আয়োজক দেশ ছিল ভারত। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে বিশ্বকাপের খেলা হয়েছে আরব আমিরাতে। এশিয়ান দেশ আয়োজক, এশিয়ার মাঠে খেলা- তবু বিশ্বকাপের ফাইনালে ছিল না কোনো এশিয়ার দল। শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচটি খেলেছে তাসমান পাড়ের দুই দেশ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। যেখানে কিউইদের ৮ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জিতেছে অ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়া।

    ম্যাচটি মাঠে বসেই দেখেছেন পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা ক্রিকেটার শোয়েব আখতার, শহিদ আফ্রিদিরা। আয়োজক দেশের ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান হিসেবে মাঠে উপস্থিত ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলিও। কিন্তু ভারত কিংবা পাকিস্তান ছিল না ফাইনালে। তাই তো ম্যাচ শেষে এই আফসোস শোনা গেলো শোয়েব আখতারের কণ্ঠে। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে দেওয়া ভিডিওবার্তায় ম্যাচের নানান দিক নিয়ে আলোচনা করেছেন শোয়েব। পাশাপাশি এটিও জানিয়েছেন, ফাইনাল ম্যাচটি ভারত-পাকিস্তান খেললে আরও মজা হত।

    শোয়েব বলেছেন, আমি মাঠেই ছিলাম, খেলা দেখছিলাম। অনেক খেলোয়াড়ের সঙ্গে দেখা হয়েছে। ভারতের অনেক খেলোয়াড় ছিল। আমাদের অনেক কথা হয়েছে। শাহিদ আফ্রিদিও ছিল মাঠে। সবার সঙ্গে দেখা করে অনেক ভাল লেগেছে। পরিবেশটা খুবই আনন্দদায়ক ছিল।তিনি আরও বলেন, তবে এটার মজা আরও অনেক বেশি হতে পারত, যদি ম্যাচটা হত ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে। এটা এমন একটা খেলা হত যেখানে পরিবেশ হত দুর্দান্ত, খেলাও হত উত্তেজনাপূর্ণ।

    দূর্ভাগ্যবশত এটা হয়নি, দুই দলই আগে বাদ পড়ে গেছে। আমি চেয়েছিলাম ফাইনালে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ হোক। দুনিয়ায় যত যা-ই হোক, ভারত-পাকিস্তান ম্যাচের মজা সবকিছুর ওপরে। আমি সত্যিই এটা বিশ্বাস করতাম যে এই বিশ্বকাপটি পাকিস্তানের ছিল। ইশ! যদি অস্ট্রেলিয়াকে হারাতে পারত পাকিস্তান।

    তবে পুরোনো বন্ধুদের সাথে দেখা করে পুরনো অনেক কথা মনে পড়ে যাচ্ছিল জানিয়েছেন শোয়েব। ভারত পাকিস্তান ক্রিকেট নাকি আবার হতে পারে। এমন একটা কথা হাওয়ায় ভাসছে। এশিয়া কাপ এবং পরের বছর অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ তো আছেই। তবে আইসিসির পক্ষ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া যায়নি। সৌরভ, শোয়েবদের কাছে আসা কিছু ইঙ্গিত দিচ্ছে কী? উত্তর সময় দেবে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: