• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • SHARE YOUR EMOTIONS WE ARE ALL DISAPPOINTED VIRAT KOHLIS MESSAGE TO FANS

CWC 2019: আবেগ সামলে রাখুন, আস্থা রাখুন টিম ইন্ডিয়ায়, দেশবাসীকে বার্তা বিরাটের

Photo Courtesy: BCCI/Twitter

  • Share this:

    #ম্যাঞ্চেস্টার: VK 911। সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড ভারত অধিনায়ক। আবেগ সামলে রাখুন। আস্থা রাখুন টিম ইন্ডিয়ায়। দেশবাসীকে পাল্টা বার্তা বিরাটের।

    গত চার বছরের স্বপ্ন, আবার ভেঙে গেল।কী আছে এই দেশটার কাছে ? ক্রিকেট আর রাজনীতি। তাই ২৩ মে ভোটের খবর বেরোনোর পর, ১৩০ কোটি নতুন করে টেলিভিশনে সামনে বসার মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছিল। ভাবটা এমন ছিল, ছত্রিশ বছর পর লর্ডস থেকে বিশ্বকাপ নিয়েই ফিরবে টিম ইন্ডিয়া। ক্রিকেট তো যেন ভারতের ধর্ম। হবে নাই বা কেন? প্রায় একশো বছরের বেশি ইতিহাসের পর আজও আমরা ফুটবলে পিছিয়ে। সুনীল ছেত্রীর ব্লু টাইগার্সকে কুর্নিশ করে, কিন্তু ফুটবল বিশ্বকাপে ভারত! এই স্বপ্ন দেখা অনেক দিন আগেই ছেড়ে দিয়েছে বাগবাজারের রকের আড্ডা। এ আবার কী খেলা, দশ দল খেলে। এই খোঁটার পরেও খবরটা ঠিক নিতে হয়, আজ স্কোর কত হল? আলোচনা করতে হয়, ধোনি যদি আর একটু আগে ব্যাটটা চালাত।

    দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মোদির শপথ। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় বঞ্চিত বাংলা। এ সব কিছুই বাসি। টাটকা বলতে দেশবাসীর আলোচনায় ছিল শুধুমাত্র বিশ্বকাপ। কিন্তু ম্যাঞ্চেস্টার মন ভেঙে দিল।

    মুকুলের ব্যাটে রাজ্য রাজনীতিতে গেরুয়া ঝড়। নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তারদের পেটানোয় উত্তাল শহর। এ সবের পরেও বেলা ৩টে বাজলে বদলে যেত পরিবেশ। বাসে-ট্রামে-মেট্রোয় মোবাইলে চোখ। স্কোরকার্ডে নজর। ক্রিকেটের প্রতি এই উন্মাদনা এই শহরের নতুন নয়। নতুন আধুনিকতার প্রলেপ। এখন মোবাইলেই দেখা যায় সবকিছু। তাই বাড়ি ফিরে টিভির সামনে বসাটা এই ক’দিন ছিল ঠিক স্লগ ওভারের মতো।

    আফগানিস্তান ম্যাচে প্রথমবার বুকে ব্যথা অনুভব হয়েছিল। চিনচিনে ভাবটা বেড়েছিল ইংল্যান্ড ম্যাচে। আর হার্টব্রেক ম্যাঞ্চেস্টারে। তাই জলসংকট। রাহুল গান্ধির পদত্যাগ, মুম্বইয়ে বৃষ্টি, কর্ণাটক রাজনীতি, দেশের দ্বিতীয় মহিলা অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণের বাজেট - সবকিছু ছাপিয়েও ১০ জুলাইয়ের আগে পর্যন্ত রোহিত ছিল দিল্লির কনটপ্লেস থেকে মুম্বইয়ের ধারাভির বস্তির আলোচনার বিষয়।

    সত্যিই কী আছে এই দেশটার ? এদেশের অধিকাংশ নাগরিক ক্রিকেটকে পুজো করেন। তাই সচিন এ দেশের ভগবান। কপিল-সানি শিব ও ব্রহ্মা। আর সৌরভ এখনও মহারাজকীয়। চার বছর ধরে ছোট ছোট বিনিয়োগে স্বপ্নগুলিকে একত্রিত করেছিল। অনুভূতি, উপলব্ধিতে ক্যানভাসে ফুটিয়ে তুলেছিল ১৪ জুলাইয়ে লর্ডসের এক কাল্পনিক ছবি। তাতে আঁকা হয়েছিল বিশ্বকাপ হাতে বিরাট। তা তো কল্পনাতেই থেকে গেল।

    ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরছেন ধোনি। হয়তো মনে মনে ভাবছিলেন, আবার একটা বিশ্বকাপ চেয়েছিল দেশবাসী। দিতে পারলাম কই। ক্ষমা করো ভারত। পাশে থেকো।

    First published: