• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • পদকের লালসায় ডোপিং ! রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি

পদকের লালসায় ডোপিং ! রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি

ম্যাকলারেন রিপোর্ট প্রকাশের পরেই রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি তুলল ওয়াডা।

ম্যাকলারেন রিপোর্ট প্রকাশের পরেই রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি তুলল ওয়াডা।

ম্যাকলারেন রিপোর্ট প্রকাশের পরেই রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি তুলল ওয়াডা।

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মস্কো:  পদকের লালসা। তার জন্যই স্টেট স্পনসর্ড ডোপিং চালায় রাশিয়া। অলিম্পিকের ঠিক আগে এই বোমা ফাটালেন কানাডার গবেষক রিচার্ড ম্যাকলারেন। তদন্তে দাবি করা হয়েছে, মস্কোর প্রত্যক্ষ মদতেই এই কাজ চলত। ম্যাকলারেন রিপোর্ট প্রকাশের পরেই রাশিয়াকে অলিম্পিক থেকে নির্বাসনের দাবি তুলল ওয়াডা।

    শুরুটা এই বছরের গোড়ায়। অস্ট্রেলীয় ওপেনের পরেই ডোপিংয়ের অভিযোগে কেঁপে যায় বিশ্ব টেনিস। কারণ নায়িকার নাম মারিয়া শারাপোভা। আমেরিকায় মাশা স্বীকার করেন, তিনি ডোপ নিয়েছিলেন। মাশার এই স্বীকারোক্তির পরেই সন্দেহ আরও দানা বাধে আন্তর্জাতিক ডোপ বিরোধী সংস্থার। নিজের মতো করেই তদন্ত শুরু করে ওয়াডা। কেঁচো খুড়তে গিয়ে কেউটে বেরিয়ে আসে। প্রাথমিক তদন্তে উঠে আসে, লন্ডন অলিম্পিকের পর থেকেই পদক লালসায় অ্যাথলিটদের ডোপ করতে ঢালাও লাইন্সেস দেয় মস্কো।

    তদন্ত আরও পাকা করতে দায়িত্ব দেওয়া হয় কানাডিয়ান গবেষক রিচার্ড ম্যাকলারেনকে। সোমবার ওয়াডার প্রাথমিক রিপোর্টের উপরেই সিলমোহর বসল। ইতিমধ্যেই রিও অলিম্পিক থেকে নি‍র্বাসিত করা হয়েছে রুশ অ্যাথলিটদের। ভবিষ্যত ঝুলে ইলিনা ইয়েনবাওবাদের মতো তারকাদের। এই পরিস্থিতিতে ম্যাকলারেন রিপোর্টে দাবি করা হল, স্টেট স্পনসর্ড ডোপিং চালায় রাশিয়া। যেখানে রুশ ক্রীড়ামন্ত্রীর নেতৃত্বে এই জাল বোনা হয়েছে গত চার বছর ধরে।

    কোনও বড় প্রতিযোগিতার আগে রুশ কর্তাদের নির্দেশে অ্যাথলিটদের থেকে ডোপ ফ্রি নমুনা সংগ্রহ করা হত। সেই নমুনা ফ্রিজারে রেখে নিয়মরক্ষার কাজ করত রুশ সংস্থা। গোটা প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, তারপর অ্যাথলিটদের সরাসরি ডোপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হত। এক্ষেত্রে প্রতিযোগিতা শুরু হলে ফ্রিজারে থাকা আগের নমুনাই পেশ করা হত। সন্দেহ যাতে না-হয়, সেই কারণে দেশের গুপ্তচরদের কাজে লাগিয়ে ল্যাব থেকে আসল নমুনা চুরি করা হত। সিল না ভেঙে বদলে দেওয়া হত নমুনা। ফলে যখন নমুনা পরীক্ষা হত, তখন রুশ অ্যাথলিটরা ছাড় পেতেন।

    টরেন্টোয় ম্যাকলারেন জানিয়েছেন, লন্ডন থেকে রিও গত চার বছরে প্রতিবার এই কাণ্ডই ঘটিয়েছেন রুশ অ্যাথলিটরা। আর বার বার ছাড়া পেয়েছেন। এরপর আর সহ্য করা সম্ভব নয়। ওয়াডার দাবি, অবিলম্বে অলিম্পিক থেকে রাশিয়াকে নির্বাসিত করা হোক। সিদ্ধান্ত অলিম্পিক কমিটির কোর্টে।

     
    First published: