• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • OTHER SPORTS WIMBLEDON JUNIOR CHAMPION SAMIR BANERJEE PLAYED IN KOLKATA SOUTH CLUB ON 2015 SMJ

Wimbledon junior champion Samir Banerjee Exclusive: সল্টলেকে আত্মীয়রা থাকেন, ৬ বছর আগে কলকাতার সাউথ ক্লাবে খেলে গিয়েছে সমীর বন্দ্যোপাধ্যায়

এই তো মাত্র ২ বছর আগে দিল্লিতেও এসেছিল সমীর বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

এই তো মাত্র ২ বছর আগে দিল্লিতেও এসেছিল সমীর বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

  • Share this:

#কলকাতা

: সমীর বন্দ্যোপাধ্যায়। গত দুদিনে এই বাঙালি নামটাই ভারতীয় স্পোর্টস সার্কিটে সাড়া ফেলে দিয়েছে। বাঙালি নাম। তাই সবার মনে প্রশ্ন, সমীরের সঙ্গে কি কলকাতার কোনও যোগাযোগ রয়েছে! প্রবাসী বাঙালি সমীর। কলকাতার সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ খুবই কম। তাতে কী! একবার হলেও তো তিনি কলকাতায় এসেছেন! সমীরের বাবা কুণাল বন্দ্যোপাধ্য়ায় বলছিলেন, ''কলকাতায় আমার কয়েকজন আত্মীয় রয়েছেন। সল্টলেক চত্বরে। ৬ বছর আগে সমীর কলকাতার সাউথ ক্লাবে প্র্যাকটিস করেছিল কয়েকদিন। ২০১৫ সালে সমীরের তখন ১১ বছর বয়স। ২ বছর আগে দিল্লিতে আইটিএফ টুর্নামেন্ট খেলেছিল সমীর। তার পর অবশ্য আর ভারতে যাওয়া হয়নি। করোনা মহামারীর আবহে সমীরের প্র্যাকটিসে প্রভাব পড়েছে।'' সমীর যখন কলকাতায় আসেন তখন আখতার আলি বেঁচে ছিলেন। সাউথ ক্লাবে তখনও নিয়মিত দেখা মিলত আখতার আলির। কিন্তু এখন আর তিনি নেই। আখতার আলির হঠাত্ চলে যাওয়া এখনও যেন মেনে নিতে পারেন না নিউ জার্সির বাস্কিং রিঙের বাসিন্দা কুণাল বন্দ্যোপাধ্যায়।

সমীরের মা উষা বন্দ্যোপাধ্যায় মূলত বিশাখাপত্তনমের বাসিন্দা ছিলেন। তিনি ফার্মাসিউটিকল ইন্ডাস্ট্রির সঙ্গে যুক্ত। ১৯৮৬ সালে তিনিই প্রথম নিউ জার্সিতে পাড়ি দেন। এর পর ১৯৮৯ সালে নিউ জার্সি চলে যান কুণাল বন্দ্যোপাধ্য়ায়। জুনিয়র উইম্বলডন জয়ী সমীরের বাবা কুণাল বলছিলেন, ''ভারতীয় টেনিস সার্কিটে সমীরকে নিয়ে এত কথা হচ্ছে, এটা দেখে ভাল লাগছে। আসলে আমার ছোটবেলা কেটেছে অসমের ডিব্রুগড়ে। আমার বাবা হিরন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় অয়েল ইন্ডিয়ার দুলিয়াযান হেডকোয়ার্টারের ম্যানেজার ছিলেন। আমরা অসমের ডিব্রুগড় জেলার বাসিন্দা ছিলাম। আমি আইআইটি মুম্বই থেকে পড়াশোনা করে আমেরিকা চলে যাই। ওখানে ফিনান্সিয়াল কনসালট্যান্ট হিসাবে কাজ শুরু করি।'' উল্লেখ্য, সমীরের দিদি এখন কলেজের থার্ড ইয়ারের ছাত্রী। এবার সমীরেরও কলেজে ভর্তি হওয়ার কথা। মেধাবী ছাত্র সমীর পড়াশোনায় যেন ফাঁক না রাখে, সেটাই চাইছেন কুণাল বন্দ্যোপাধ্যায়।

সমীরের টেনিস কেরিয়ার নিয়ে এখন অনেকেরই জানার উত্সাহ। কুণাল বন্দ্যোপাধ্যায় বলছিলেন, ''পাঁচ বছর বয়সে নিউ জার্সির সেন্টার কোর্ট টেনিস অ্যাকাডেনিতে ট্রেনিং শুরু করেছিল সমীর। ও তো তখন ফুটবল আর বেসবলও খেলত। টেনিস ক্লাবে আমার কিছু বন্ধু সমীরের খেলা দেখে মুগ্ধ হয়। ওরাই বলেছিল ছেলেকে টেনিসে ভর্তি করাতে। এর পর ও জুনিয়র লেভেলে বেশ কয়েকটা টুর্নামেন্ট জেতে। ২০১৭ সালে আমেরিকার অনূর্ধ্ব-১৪ উইন্টার চ্যাম্পিয়নশিপ জেতে সমীর। ও ফ্লোরিডা ও ফ্র্যাঙ্কফুটে ট্রেনিং করেছে। তবে আমি সব সময়ই চাই ও যেন টেনিসের পাশাপাশি পড়াশোনাও করে। সমীর মেধাবি। তা ছাড়া আর পাঁচজন ভারতীয় অভিভাবকের মতো আমরাও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগি। টেনিসে কেরিয়ার গড়লে অনিশ্চয়তা রয়েছে। তবে উইম্বলডন জুনিয়র চ্যাম্পয়ন হওয়াটা ওকে নতুন করে ভাবতে বসিয়েছে। ও এখন সিনিয়র লেভেল টুর্নামেন্টে খেলার জন্য প্রস্তুতি নেবে।'' প্রসঙ্গত, উইম্বলডন জুনিয়র চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর সমীর এখন টপ টেন জুনিয়র প্লেয়ার্সদের তালিকায় ঢুকে পড়তে পারেন। আর তাই সমীর এবার আমেরিকার ন্য়াশনাল হার্ডকোর্ট টুর্নামেন্ট জয়ের স্বপ্ন দেখছে। তা হলেই ইউএস ওপেনে খেলার ওয়াইল্ড কার্ড এন্ট্রি পাবে সে। স্বপ্নপূরণের আর তো মাত্র কয়েক ধাপ দূরে ভারতীয় বংশোদ্ভূত সমীর।

Published by:Suman Majumder
First published: