নবান্নে মমতা-অভিষেক বৈঠক, সব রকম সাহায্যের আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর

নবান্নে মমতা-অভিষেক বৈঠক, সব রকম সাহায্যের আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর

আগামী বছর ভারতে টি20 বিশ্বকাপ। ২০২৩ একদিনের বিশ্বকাপও আয়োজিত হবে ভারতের মাটিতে। এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে বোর্ডে। পিছিয়ে নেই সিএবিও

  • Share this:

#কলকাতা: আগামী বছর ভারতে টি20 বিশ্বকাপ। ২০২৩ একদিনের বিশ্বকাপও আয়োজিত হবে ভারতের মাটিতে। এখন থেকেই প্রস্তুতি শুরু হয়ে গিয়েছে বোর্ডে। পিছিয়ে নেই সিএবিও। ২০২১ ও ২০২৩- এর বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে ইডেনকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা রয়েছে সিএবি কর্তাদের। সোমবার স্টেডিয়াম কমিটির বৈঠকে একটা রূপরেখা তৈরি করলেন সিএবি কর্তারা। তারআগে এদিন বিকেলে নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করেন সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া। প্রায় একঘণ্টা বৈঠক হয়।

জোড়া বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে সমস্ত রকম প্রশাসনিক সাহায্য চান অভিষেক। ময়দানের উন্নতির জন্য মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে আলোচনা হয় সিএবি প্রেসিডেন্টের। হাওড়ার ডুমুরজলায় নতুন স্টেডিয়াম করা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে একপ্রস্ত আলোচনা হয়। ইতিমধ্যেই সরকারের সঙ্গে আলোচনা করে নয়া স্টেডিয়ামের জন্য  ডুমুরজলা মাঠ চিহ্নিত করেছে সিএবি। বৈঠক শেষে নিউজ এইট্টিন বাংলাকে অভিষেক জানান, 'প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই প্রথম মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ হল। অতীতেও উনি সিএবির পাশে ছিলেন। আজও মুখ্যমন্ত্রী সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন। আমরা বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। তারমধ্যে অবশ্যই জোড়া বিশ্বকাপের প্রস্তুতির বিষয়টি রয়েছে। আগামী বছর অক্টোবর-নভেম্বরে ভারতে হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তার আগে আমরা স্টেডিয়ামের বেশ কিছু নতুন কাজ করতে চাই।'

আগামী বছর টি20 বিশ্বকাপের আগে হাতে সময় কম। তাই স্টেডিয়াম সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলো আগে করতে চান অভিষেক। তারমধ্যে অন্যতম নতুন দুটি ড্রেসিংরুম। বিভিন্ন গ্যালারির সংস্কার। বেশ কয়েকটি ব্লকের ব্র্যান্ডিং নিয়ে ভাবনাচিন্তা রয়েছে কর্তাদের। কয়েকটি আরও কর্পোরেট বক্স হতে পারে। ক্লাব হাউজের উল্টো দিকের গ্যালারি সংস্কার করার ভাবনা রয়েছে। তবে পুরোটাই সময় ও সেনার অনুমতি সাপেক্ষে। সূত্রের খবর, কাজের অনুমতি পাওয়ার প্রসঙ্গটিও আলোচনা হয়েছে এদিনের বৈঠকে। চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির বদলে ২০২১ টি20 বিশ্বকাপ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। এই টুর্নামেন্টে গ্রুপ ও নকআউট পর্যায় গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ পাওয়ার কথা সিএবির।

ইতিমধ্যেই পঙ্কজ গুপ্ত ইন্ডোর স্টেডিয়ামকে প্রায় নবরূপে সজ্জিত করার কাজ শেষের পথে। ১৮ মার্চ ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা একদিনের ম্যাচের আগে নতুন ইন্ডোর উদ্বোধন করতে চান সিএবি কর্তারা। আগামী মাসে ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের টিকিটের দাম কিছুটা কমানোর ভাবনা রয়েছে সিএবি কর্তাদের। মাঠে বেশি সংখ্যক লোক টানতে এই ভাবনা। তবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকের পর। এদিন নবান্নের বৈঠক শেষে অভিষেক ডালমিয়া মুখ্যমন্ত্রীকে আগামী দিনে সিএবি-র বিভিন্ন ইভেন্টে মৌখিক আমন্ত্রণ জানিয়ে আসেন।  এদিকে নতুন মিউজিয়াম করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে একটা জায়গা চিহ্নিত করা হয়েছে।

ERON ROY BURMAN

First published: February 17, 2020, 11:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर