• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • LEGENDARY WEST INDIES PACER MICHAEL HOLDING IMPRESSED WITH UMESH YADAV PERFORMANCE AGAINST ENGLAND RRC

Umesh - Holding : উমেশ যাদবের কন্ট্রোল দেখে অবাক মাইকেল হোল্ডিং

উমেশ যাদবের দুরন্ত কামব্যাকে স্বস্তির নিঃশ্বাস ভারতীয় শিবিরে

Michael Holding impressed with Umesh Yadav . হোল্ডিং মনে করেন ১৪০-১৪৪ কিলোমিটার গতিতে ইংল্যান্ডের পিচে সঠিক জায়গায় বল রাখতে পারলে সেরা ব্যাটসম্যানদের ঘাম ছুটিয়ে দেওয়া যায়। সেটাই করেছেন উমেশ

  • Share this:

    লন্ডন: তিনি নিজে কিংবদন্তি পেসার। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সোনালী প্রজন্মের অন্যতম সেরা ফাস্ট বোলার। সেই মাইকেল হোল্ডিং ওভালে উমেশ যাদবের বোলিং দেখে রীতিমত অবাক। ভারতীয় পেসারকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিচ্ছেন তিনি। মাইকেল মনে করেন যাদবের গতি বরাবর সম্পদ। ভারতের মাটিতে হোক বা বিদেশে, উমেশের গতি এবং বাউন্স ঝামেলায় ফেলে বিপক্ষ ব্যাটসম্যানদের। ডেভিড ওয়ার্নার থেকে স্টিভ স্মিথ, অতীত অভিজ্ঞতায় বহু নামী ব্যাটসম্যানকে আউট করেছেন ভারতীয় পেসার।

    কিন্তু মূল সমস্যা ছিল লাইন, লেন্থ এবং কন্ট্রোল। ওভালে উমেশ ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যানদের বল করার সময় প্রতিটি বিভাগে নিখুঁত ছিলেন। হোল্ডিং মনে করেন ১৪০-১৪৪ কিলোমিটার গতিতে ইংল্যান্ডের পিচে সঠিক জায়গায় বল রাখতে পারলে সেরা ব্যাটসম্যানদের ঘাম ছুটিয়ে দেওয়া যায়। সেটাই করেছেন উমেশ। এমনকি বুমরার থেকেও বেশি কার্যকরী প্রমাণিত হয়েছেন। হোল্ডিং পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছেন দ্বিতীয় ইনিংসেও বল হাতে বড় ভূমিকা নিতে দেখা যাবে বিধর্বের পেসারকে।

    গত বছরের ডিসেম্বরে খেলেছিলেন শেষ টেস্ট। দার্ঘ ৯ মাস পর ফের ভারতের প্রথম এগারোয় উমেশ যাদব। প্রত্যাবর্তনেই নজর কেড়েছেন তিনি। ওভাল টেস্টে ইংল্যান্ডের প্রথম ইনিংসে টিম ইন্ডিয়ার সফলতম বোলার উমেশ। তাঁর ঝুলিতে তিন উইকেট। যার মধ্যে জো রুটও আছেন। ফর্মে থাকা ইংল্যান্ড অধিনায়ককে দ্রুত আউট করে ভারতকে লড়াইয়ে ফেরান তিনি। তারপর দ্বিতীয় দিনের শুরুতে ওভারটন ও মালানকে ফিরিয়ে চাপে ফেলে দেন ইংরেজদের।

    নিজের বোলিং প্রসঙ্গে উমেশ বলছেন, ‘একজন বোলার হিসেবে উইকেট নেওয়াটাই আমার কাজ। তা সে রুটের উইকেট হোক বা রবিনসনের। তাই সব উইকেটই আমার কাছে সমান।’ ৩৩ বছর বয়সি উমেশ যাদব খেলছেন কেরিয়ারের ৪৯তম টেস্ট। দেড়শো উইকেট হয়ে গেল তাঁর।

    নিজের মাইলফলক সম্পর্কে তিনি বলছেন, ‘শুরু থেকে দলের সঙ্গেই রয়েছি, অনুশীলন করছি। তাই ছন্দেই ছিলাম। জানতাম, যে কোনও সময় সুযোগ আসতে পারে। তাই দলের ট্রেনার, ফিজিওর তত্ত্বাবধানে নিজেকে ফিট রেখেছিলাম। এই ম্যাচে তারই সুফল পেলাম।’ অধিনায়ক বিরাট কোহলি থেকে শুরু করে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট উমেশকে সেরা ছন্দে বল করতে দেখে খুশি। শেষ টেস্টে ম্যাঞ্চেস্টারে তাঁকে খেলানো হোক, দাবি তুলছেন অনেকে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: