• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • KL RAHUL AND KRUNAL PANDYA GETS INDIA PAST 300 AGAINST ENGLAND AT PUNE RRC

শুরুতে ধাওয়ান, শেষে ক্রুনাল এবং রাহুলের ব্যাটে বড় রান ভারতের

শেষ ১০ ওভারে ঝড় তুললেন ক্রুনাল এবং রাহুল photo/bcci Twitter

ভারতের জাতীয় দলের টুপি পাওয়ার পর আকাশের দিকে তাকিয়ে স্বর্গীয় বাবার উদ্দেশ্যে হাত নাড়তে দেখা গেল ক্রুনালকে

  • Share this:

    ভারত - ৩১৭/৫

    #পুণে: ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্ট এবং টি টোয়েন্টি সিরিজ জেতার পর একদিনের সিরিজ জিততেও নিজেদের উজাড় করে দেবে ভারতীয় ক্রিকেটাররা তাতে কোনও সন্দেহ ছিল না। হিটম্যান এদিন তাড়াতাড়ি ফিরে গেলেও শিখর ধাওয়ান এবং বিরাট কোহলি দুর্দান্ত ছন্দে ব্যাট করছিলেন। কিন্তু হঠাৎ করেই ৩০ ওভারের পর থেকে রান ওঠার গতি কমে গেল ভারতের। একটা সময় মাত্র ৩৬ রানে চার উইকেট হারিয়ে ভারতের ব্যাটিং মন্থর হয়ে গিয়েছিল।

    কিন্তু শেষ দশ ওভারে রাহুল এবং ক্রুনাল পান্ডিয়া মিলে আবার ভারতকে ম্যাচে ফিরিয়ে আনলেন। অভিষেক একদিনের ম্যাচে হার্দিকের ভাই বুঝিয়ে দিলেন তাঁকে দলে নিয়ে ভুল করেননি নির্বাচকরা। ভারতের জাতীয় দলের টুপি পাওয়ার পর আকাশের দিকে তাকিয়ে স্বর্গীয় বাবার উদ্দেশ্যে হাত নাড়তে দেখা গেল ক্রুনালকে। নিজের অর্ধশতরান পূর্ণ করলেন অভিষেক ম্যাচেই। দীর্ঘদিন পর রাহুল রানে ফিরলেন। বিরাট কোহলির চিন্তা অনেকটা কমবে।

    এবার ভারতের ভাগ্য ভুবনেশ্বর, শার্দুল ঠাকুরদের হাতে। প্রথম ১০ ওভারে ভারত দুটো উইকেট তুলে নিতে পারলে চাপে পড়বে ইংল্যান্ড।পুণেতে ভারত বনাম ইংল্যান্ড প্রথম একদিনের ম্যাচে টস ভাগ্য ফেরেনি বিরাট কোহলির। কিন্তু নিজের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরে এলেন শিখর ধাওয়ান। মঙ্গলবার এমসিএ স্টেডিয়ামে ওপেন করতে নেমে রোহিত শর্মার সঙ্গে কিছুটা দেখে খেলছিলেন শিখর। রোহিত এদিন কনুইয়ে চোট পাওয়ার ফলে দীর্ঘক্ষন ব্যাট করতে পারেননি। ২৮ করে ফিরে যান।

    কিন্তু শিখর এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন ভারতের স্কোরবোর্ড। সঙ্গে অধিনায়ক বিরাট কোহলি যোগ্য সহায়তা করেন। দুই দিল্লিওয়ালা মিলে ইংল্যান্ডের বোলারদের রীতিমতো শাসন করলেন। শিখরের রান পাওয়াটা দরকার ছিল ভারতীয় দলের প্রয়োজনে। তবে এদিন রশিদের বলে তাঁর সহজ ক্যাচ ফেলে দেন মঈন আলি। ধাওয়ান বুদ্ধি করে নিজের ইনিংস সাজালেন এদিন। লুজ বল বাউন্ডারির বাইরে পাঠালেন,ভাল বলকে সম্মান দিলেন। কিন্তু স্কোরবোর্ড চালু রাখলেন সব সময়।

    বিরাট কোহলি উডের বলে ৫৬ করে ফিরে গেলেন। কিন্তু ধাওয়ান দায়িত্বপূর্ণ ব্যাটিং জারি রাখলেন। প্রথম টি টোয়েন্টিতে খেলার পর আর সুযোগ পাননি। টেস্ট দলে তিনি নেই। তাই এদিন যেন আলাদা কিছু প্রমাণ করার ইচ্ছে নিয়ে শুরু করেছিলেন এই বাঁহাতি। কোহলি ফিরে যাওয়ার পর শুধু নিজের শতরান নয়, অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান হিসেবে তাঁর উইকেটে আরও বেশি সময় থাকা উচিত ছিল। সেই চেষ্টা করে গেলেন।

    বিরাট দুর্ধর্ষ ব্যাট করছিলেন। কিন্তু একটা ভুলে ফিরে যেতে হল। দুজনের ১০৫ রানের পার্টনারশিপ ভারতের ভিত মজবুত করল। ধাওয়ান এদিন যেমন কভার ড্রাইভ মারলেন, তেমনই অন সাইডে দেখার মত কিছু শট খেললেন। ক্রিকেটারদের নিয়ে আগাম ভবিষ্যৎবাণী চলে না। আক্ষেপ থাকবে মাত্র ২ রানের জন্য শতরান হাতছাড়া হওয়ায়। কিন্তু যেভাবে ভারত শেষ কয়েকটা ওভারে রান তোলার গতি বাড়াল তাতে নিশ্চিতভাবেই ভারতীয় বোলাররা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে শুরু করতে পারবেন।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: