ভারত না নিউজিল্যান্ড, জিতবে কে ? ভনের উত্তর জানতে চান ?

ইংলিশ কন্ডিশন এবং ডিউক বলেই ফয়সালা দেখছেন ভন

ভারত এখানে আসার আগেই নিউজিল্যান্ড পৌঁছে গিয়েছে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দুটো টেস্ট খেলবে ওঁরা। সেখানে ভারতীয় দল প্র্যাকটিস ম্যাচ খেললেও, প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ না খেলেই নামতে হবে কিউইদের বিপক্ষে। তাছাড়া ডিউক বলে খেলা বলছেন ভন

  • Share this:

    #লন্ডন: কদিন আগেই বিরাট কোহলি এবং কেন উইলিয়ামসন একই গোত্রের ব্যাটসম্যান মন্তব্য করেছিলেন তিনি। শুধু সেখানেই থামেননি মাইকেল ভন। ভারতীয় অধিনায়ককে চিমটি কেটে তিনি জানিয়েছিলেন উইলিয়ামসন বিরাটের থেকে নাকি একটা জায়গাতেই খালি পিছিয়ে। সেটা হল সোশ্যাল মিডিয়ায় ভক্ত সংখ্যা। এদিন আবার নতুন ভবিষ্যৎবাণী করে বসলেন। তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছিল বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে কোন দল বাজিমাত করবে? প্রশ্নটা শুনে নিজের স্বাভাবিক ভারত-বিরোধিতা থামাতে পারেননি প্রাক্তন ইংলিশ অধিনায়ক। ভারতকে হিসেবের মধ্যে না রেখে নিউজিল্যান্ডকে সম্ভাব্য জয়ী দল হিসেবে ঘোষণা করে দিলেন তিনি।

    নিজের বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ভন জানান, "দেখুন ভারত এখানে আসার আগেই নিউজিল্যান্ড পৌঁছে গিয়েছে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে দুটো টেস্ট খেলবে ওঁরা। সেখানে ভারতীয় দল প্র্যাকটিস ম্যাচ খেললেও, প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ না খেলেই নামতে হবে কিউইদের বিপক্ষে। তাছাড়া ডিউক বলে খেলা। ক্রিকেটীয় যুক্তির বিচারে নিউজিল্যান্ডকে অবশ্যই এগিয়ে রাখব "। পাশাপাশি প্রাক্তন অধিনায়ক মনে করেন বর্তমান নিউজিল্যান্ড দলটা আগের থেকে উন্নত। অতীতে কখনও মার্টিন ক্রো, কখনও রিচার্ড হ্যাডলি, কখনও বা ব্রেন্ডন ম্যাককালাম নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটকে ওপরে নিয়ে গিয়েছেন। কিন্তু এই দলে অধিনায়ক উইলিয়ামসন ছাড়াও টম ল্যাথাম, ব্লান্ডেল, কনওয়, জেমিসনদের মত প্রতিভাবান ক্রিকেটার রয়েছে। এঁরা আধুনিক ক্রিকেটার হলেও টেস্ট খেলার মত মানসিকতা রয়েছে। শেষপর্যন্ত লড়াই করতে পারেন।

    তবে ভনের কথা বেশি গুরুত্ব দিতে রাজি নয় ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ভারতীয় ক্রিকেটাররা অতীতে ভনের ভবিষ্যৎবাণী ভুল প্রমাণ করেছেন। ভন এক সময় জানিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হোয়াইটওয়াশ হবে ভারত। শেষপর্যন্ত টেস্ট সিরিজ জিতেছিল ভারত। মুখে চুনকালি লেগেছিল ভনের। কিন্তু মানুষের লজ্জা থাকার একটা সীমা রয়েছে। ভন সেই সীমার ওপরে। তিনি মনে করছেন ভারতের তুলনায় যোগ্য টেস্ট খেলা ক্রিকেটার সংখ্যায় বেশি রয়েছে নিউজিল্যান্ড দলে।

    তাছাড়া ভারত-বিরোধিতা এই মুহূর্তে তাঁর অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। কদিন আগেই প্রাক্তন পাকিস্তানের ওপেনার সালমান বাটের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয় তাঁর। ব্রিটিশ সাম্রাজ্য চলে গিয়েছে বহুদিন। তবুও ভনের মত কিছু অর্ধশিক্ষিত ক্রিকেটার চোখে গোলাপি চশমা পড়ে থাকেন। শুধুই বিরোধিতা করার জন্য বিরোধিতা করতে চান। সময় বলবে তাঁর কথা সত্যি প্রমাণিত হয় না মিথ্যা।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: